বড় খবর

করোনার জেরে মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে শিশুদের হৃদপিন্ড

কোভিড-১৯ আক্রান্ত হলে শিশুদের দেহে অনেকসময়ই শ্বাসকষ্টের উপসর্গ দেখা যায় না, যা আসলে ভীতির উদ্রেক করে। শিশুরা দীর্ঘদিন উপসর্গবিহীনও থাকতে পারে।

বিশ্বে এখনও করোনা ত্রাস অব্যাহত। সব বয়সি মানুষকেই আক্রমণ করছে এই ভাইরাস। তবে শিশুদের ক্ষেত্রে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার জেরে কিছুটা বাঁধা পাচ্ছে কোভিড। কিন্তু যে সব শিশুরা এই ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে করোনা মুক্ত হলেও তাঁদের হৃদপিন্ডে মারাত্মক ক্ষতি হচ্ছে সাম্প্রতিক গবেষণায় এমনটাই দেখা গিয়েছে।

দ্য ল্যানসেট জার্নালে যে পেপার প্রকাশিত হয়েছে সেখানে বলা হয়েছে বাচ্চাদের দেহে করোনার জেরে মাল্টিসিস্টেম ইনফ্ল্যামেটরি সিনড্রোম (এমআইএস-সি) দেখা যাচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে হৃদপিন্ডও। এই ক্ষতির পরিমাণ এতটাই যে অনেক বাচ্চাদের সারাজীবন ধরে চিকিৎসার প্রয়োজন হয়ে পড়ছে। সান আন্তোনিওর টেক্সাস হেলথ সায়েন্স সেন্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের ড: আলভারো মোরেইরা এমনটাই জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন, করোনা থেকে সুস্থ হলেও মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ফুসফুস, ময়নাতদন্তে উঠে এল নয়া তথ্য

একটি বিবৃতিতে তিনি বলেন, “বই কিংবা এতদিনের পড়াশুনো থেকে জানা যাচ্ছে যে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হলে শিশুদের দেহে অনেকসময়ই শ্বাসকষ্টের উপসর্গ দেখা যায় না, যা আসলে ভীতির উদ্রেক করে। শিশুরা দীর্ঘদিন উপসর্গবিহীনও থাকতে পারে। কেউ জানতেও পারবে না তাদের দেহে এই রোগ রয়েছে। কিন্তু কয়েক সপ্তাহ পর থেকে দেহে তৈরি হচ্ছে প্রদাহ।”

জানুয়ারি থেকে জুলাই মাসের ২৫ তারিখ অবশি এমন ৬৬২টি এমআইএস-সি কেস পরিলক্ষিত হয়েছে বিশ্বে। এদের মধ্যে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। ৯০ শতাংশের দেহে ইসিজি হয়েছে এবং ৫৪ শতাংশের ক্ষেত্রে ফলাফল চিন্তা বৃদ্ধি করেছে।

আরও পড়ুন, অজান্তেই করোনা সংক্রমণের কারণ হয়ে উঠছে বাচ্চারা, প্রমাণ দিলেন গবেষকরা

কী কী সমস্যা থাকছে?

করোনারি ব্লাড ভেসেল ফুলে উঠছে, যা সাধারণত কাওয়াসাকি রোগের ক্ষেত্রে দেখা যায়

সারা শরীরে রক্ত সঞ্চালনে বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে। এর ফলে হৃদপিন্ড থেকে শরীরের কোষগুলিতে যথেষ্ট পরিমাণ অক্সিজেনযুক্ত রক্ত পৌঁছচ্ছে না।

Read the story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Explained news here. You can also read all the Explained news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Children finds severe heart damage coronavirus covid 19 side effects

Next Story
করোনা আক্রান্তে ব্রাজিলকে টপকে দ্বিতীয় স্থানে ভারত
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com