scorecardresearch

বড় খবর

Operation London Bridge: রানির প্রয়াণের পরই শুরু হল ১০ দিনের বিরাট কর্মযজ্ঞ, কী কী হবে জানেন?

অপারেশন লন্ডন ব্রিজ প্রথম ২০১৭ সালের মে মাসে দ্য গার্ডিয়ানে প্রকাশিত হয়েছিল। যেখানে রানির মৃত্যুর পরের দিন থেকে ১০ দিনের মধ্যে কী ঘটবে তা বলা হয়েছিল।

Operation London Bridge: রানির প্রয়াণের পরই শুরু হল ১০ দিনের বিরাট কর্মযজ্ঞ, কী কী হবে জানেন?
রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের প্রয়াণ পরবর্তী কর্মযজ্ঞে বেশ কয়েকটি ধাপ রয়েছে। যা একে একে পালন করা হবে।

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যু পরবর্তী কর্মযজ্ঞের একটি গালভরা নাম রয়েছে। সেই নামটি হল “অপারেশন লন্ডন ব্রিজ’। যা সারা বিশ্বজুড়ে আবার ‘ডি-ডে’ (D-Day) নামেও পরিচিত থাকবে। রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের প্রয়াণ পরবর্তী কর্মযজ্ঞে বেশ কয়েকটি ধাপ রয়েছে। যা একে একে পালন করা হবে। তাঁর শেষকৃত্য থেকে শুরু করে শোক পালনের দিনসংখ্যা, সবই আলোচিত হয়েছে ও উল্লেখ করা হয়েছে প্রকাশিত বিশেষ নথিতে।

অপারেশন লন্ডন ব্রিজ

অপারেশন লন্ডন ব্রিজ অনুসারে, রানির মৃত্যুর দিনটিকে ‘ডি-ডে’ বলা হবে এবং তার অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়ার দিকে এগিয়ে যাওয়া প্রতিটি দিনকে ডি +1, ডি+2″ হিসাবে বর্ণনা করা হবে। যদিও রানির মৃত্যুর বার্তা জানানোর কোড হল ‘লন্ডন ব্রিজ ডাউন’। এই অপারেশনের অধীনে, ভিড় সামলাতে বড় নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হবে। অপারেশন লন্ডন ব্রিজ প্রথম ২০১৭ সালের মে মাসে দ্য গার্ডিয়ানে প্রকাশিত হয়েছিল। যেখানে রানির মৃত্যুর পরের দিন থেকে ১০ দিনের মধ্যে কী ঘটবে তা বলা হয়েছিল।

আরও পড়ুন রানি এলিজাবেথের প্রয়াণে একদিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা ভারতের

স্কটল্যান্ডের বালমোরাল প্রাসাদে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুর পর শুরু হয়েছে ব্রিটিশ সরকারের ‘অপারেশন ইউনিকর্ন’। ব্রিটিশ কর্মকর্তারা পূর্বে রানির মৃত্যু এবং শেষকৃত্যের মধ্যে প্রথম ১০ দিনের ঘটনাগুলি পরিচালনা করার জন্য অপারেশন লন্ডন ব্রিজ নামে একটি পরিকল্পনা তৈরি করেছিলেন। রানি এলিজাবেথ যদি স্কটল্যান্ডে মারা যান, তাহলে এরকম ক্ষেত্রে অপারেশন ইউনিকর্ন তৈরি করা হয়েছিল।

মৃত্যুর পরেই যা হবে

অপারেশন লন্ডন ব্রিজ অনুসারে, রানির মৃত্যুর দিনটিকে ‘ডি-ডে’ বলা হবে এবং তার অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়ার দিকে এগিয়ে যাওয়া প্রতিটি দিনকে ডি + 1, ডি + 2″ হিসাবে বর্ণনা করা হবে। যদিও রানীর মৃত্যুর বার্তা জানানোর কোড হল ‘লন্ডন ব্রিজ ডাউন’। এই প্রকল্পের অধীনে, ভিড় সামলাতে বড় নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হবে। অপারেশন লন্ডন ব্রিজ প্রথম ২০১৭ সালের মে মাসে দ্য গার্ডিয়ানে প্রকাশিত হয়েছিল। যেখানে রাণীর মৃত্যুর পরের দিন থেকে ১০ দিনের মধ্যে কী ঘটবে তা বলা হয়েছিল।

আরও পড়ুন বিয়েতে খাদির রুমাল দিয়েছিলেন গান্ধিজি, পরম যত্নে আগলে রাখেন এলিজাবেথ

উল্লেখযোগ্যভাবে, ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ ৯৬ বছর বয়সে মারা গেছেন। তিনি ৭০ বছর ধরে যুক্তরাজ্য শাসন করেছেন। রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘতম রাজত্বকারী রাজা। ১৯৫২ সালে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ যখন সিংহাসনে বসেন, তখন তার বয়স ছিল মাত্র ২৬ বছর।

পরের কিছু দিন কী হবে

এখানেই শেষ নয়। ওই ১০ দিনের মাঝে তিন দিন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃতদেহ পার্লামেন্টের দুটি হাউসে রাখা হবে। রানিকে যাতে সাধারণ মানুষ দেখতে পান সেই ব্যবস্থাও করা হবে। এছাড়াও, একদিকে যেমন দেশজুড়ে সম্ভাব্য বিশৃঙ্খলা রুখতে আঁটসাঁট নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে। তেমনই অপরদিকে, ব্রিটেনের জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার এবং রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্য সম্পন্ন হওয়ার দিনটিকে বিশেষরূপে ‘রাষ্ট্রীয় শোক হিসাবেও পালন করা হবে।

এই বিশেষ পদ্ধতি যখন জনসমক্ষে ফাঁস হয়েছিল, যখন তিনি বেঁচে ছিলেন। সেই সময়ে তাঁর বয়স ৯৫ বছর ছিল এবং শারীরিকভাবেও তিনি সুস্থ ছিলেন। তাঁর শরীরে স্বাস্থ্যজনিত কোনও জটিলতা ছিল না। আর সেই জন্যেই তখন এই পদ্ধতি নিয়ে বেশি আলোচনা করতে আগ্রহ দেখায়নি ব্রিটেন। মূলত “পলিটিকো” নামক একটি মার্কিন সংবাদপত্রে সৌজন্যে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের প্রয়াণ পরবর্তী পদ্ধতির তথ্য প্রকাশ্যে আসে। যদিও, সম্পূর্ণ প্রকাশিত তথ্যই বাকিংহাম প্যালেসের তরফে অস্বীকার করে দেওয়া হয়।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Explained news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Operation london bridge the 10 day process that kicked off with queen elizabeths death