বড় খবর

করোনায় কোন ধরনের ওষুধের ব্যবহারে ফল মারাত্মক হতে পারে?

যত সংখ্যক মানুষের উপর এই পরীক্ষা করা হয়েছে তাঁদের মধ্যে ১০.৩ শতাংশ রোগীর দেহে এই ধরণের ওষুধ ব্যবহার করা হয়।

করোনা শরীরে বাসা বাঁধলে কী কী হতে পারে, কতটা দুর্বল হতে পারে শরীর এই বিষয়টি এখন আমাদের কম বেশি সকলেরই প্রায় জানা। তাছাড়াও শ্বাসকষ্ট, ডায়াবেটিস, লিভারে সমস্যা থাকলে করোনা আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে সেটিও আমাদের অজানা নয়। তবে সোমবার মলিক্যুলার সাইকিয়াট্রি জার্নালে যে তথ্য প্রকাশ্যে এসেছে তা দুশিন্তা বাড়াচ্ছে চিকিৎসা মহলে।

সম্প্রতি গবেষকরা দেখেছেন নার্ভের রোগীরা যদি কোভিড-১৯ ভাইরাস আক্রান্ত হয় তাহলে রোগীদের নার্ভের ওষুধের সঙ্গে বিরূপ প্রতিক্রিয়া ঘটাচ্ছে কোভিড চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধ। আর সেই কারণেই স্বাস্থ্যকর্মীরা বর্তমানে এই বিষয়টি নিয়ে সদাসতর্ক থাকছেন। কীভাবে সংক্রমণ এবং রোগকে প্রতিহত করে নার্ভের রোগীকে সুস্থ করে তুলবেন তা নিয়ে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তোলার কাজেও গুরুত্ব দিচ্ছেন।

আরও পড়ুন, ‘সব দিক বিবেচনা করা হোক’, স্পুটনিক ভি উৎপাদন নিয়ে সংশয়ে ভারত

গবেষকরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে লক্ষ লক্ষ রোগীর সনাক্তযোগ্য নয় সেই সকল হেলথ রেকর্ড বিশ্লেষণ করেছেন। সেখানে দেখা গিয়েছে যত সংখ্যক মানুষের উপর এই পরীক্ষা করা হয়েছে তাঁদের মধ্যে ১০.৩ শতাংশ রোগীর দেহে এই ধরণের ওষুধ ব্যবহার করা হয়। শুধু তাই নয় ১৫.৬ শতাংশ ক্ষেত্রে এরাই কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন। এও দেখা গিয়েছে এ জাতীয় রোগ না থাকলে আক্রান্তের সম্ভাবনা কম হত বলেই মত গবেষকদের।

যাআর নার্ভের ওষুধ খাওয়ার অভ্যাস রয়েছে এবং তামাকজাত দ্রব্য খান তাঁদের ক্ষেত্রে করোনা হলে ফল মারাত্মক। গবেষণায় দেখা গিয়েছে এই সব রোগীদের ক্ষেত্রে প্রাথমিক পর্যায়েই হাসপাতাল নিয়ে যাওয়ার প্রয়োজন পড়ে এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তাঁদের মৃত্যু হয়।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Explained news here. You can also read all the Explained news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Substance use disorders linked to covid 19 vulnerability

Next Story
সন্ত্রাসবিরোধী আইন কী? কেন এই আইনে গ্রেফতার হলেন উমর খালিদ?
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com