FIFA World Cup 2018: জন আব্রাহাম জানালেন কোন দল তাঁর পছন্দের

FIFA World Cup 2018: ইন্ডিয়ান সুপার লিগের টিম নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড এফসির মালিক অভিনেতা জন আব্রাহাম। ফুটবল জ্বরে অবশ্যই আক্রান্ত তিনি। জানালেন FIFA World Cup-এ তাঁর সমর্থন কে পাচ্ছে।

By : IE Bangla Sports Desk | New Delhi Updated: Jun 14, 2018, 16:53:20 PM

সদ্য মুক্তি পেয়েছে তাঁর অভিনীত ছবি ‘পরমাণু’। বক্স-অফিসে সাফল্যও অর্জন করেছে ভালই। আপাতত এই প্রযোজক-অভিনেতা ব্যস্ত তাঁর পরের ছবি ‘সত্যমেব জয়তে’ নিয়ে। অন্যদিকে ‘বাটলা হাউসের’ অভিনেতা এবং ‘রোমিও আকবর ওয়াল্টার’ প্রস্তুত ২018 ফিফা বিশ্বকাপের জন্যও। জন যে ফুটবলের ফ্যান সেটা কে না জানে? একটা গোটা ইন্ডিয়ান সুপার লিগ টিমের মালিক তিনি, নাম নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড এফসি। কিন্তু রণক্ষেত্র রাশিয়ায় কোন দলের ওপর বাজি ধরছেন জন?

‘পরমাণুর’ প্রচারে দিল্লি গিয়েছিলেন অভিনেতা। সেখানেই তাঁকে জিজ্ঞেস করা হয় ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ নিয়ে। বিশ্বকাপে তাঁর প্রিয় দল কোনটি জানতে চাওয়া হলে তিনি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বলেন, “আমি নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড এফসিকে সমর্থন করি। ওহ! সরি, ওটা তো আইএসএল-এ আমার টিম (হাসি)। আমি আমার দেশকেই সমর্থন করব। অন্য কোনও দেশকে কেন সমর্থন করব? কিন্তু যদি আকর্ষণীয় দলের কথা বলা হয়, তাহলে আমার মনে হয় আমি জার্মানির খেলা পয়সা দিয়ে দেখতেও রাজি।”

নিজের ক্লাব নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড এফসি-র সদস্যদের সঙ্গে ফুটবল মাঠে জন আব্রাহাম

ভারতের মতো দেশে যেখানে ক্রিকেট ছাড়া আর কোনও খেলা নিয়ে মানুষের তেমন মাথাব্যথা নেই, সেখানে জনের মতো খুব কম বলিউড অভিনেতাই ফুটবলকে জনপ্রিয় করে তুলতে সাহায্য করেছেন। জন নিজে পেশাগতভাবে ভারতের এ ডিভিশনে  খেলেছেন এবং চেষ্টাও করেছিলেন জাতীয় দলে জায়গা করার। ঠিক তখনই মডেলিং এবং অভিনয়ের সুযোগ আসে।

তবে ফিল্মি দুনিয়ায় এতদিন কাটানোর পরও তাঁর খেলার নেশা কাটেনি। অভিষেক বচ্চন, রণবীর কাপুরের মতো জনও মাঠে নেমেছেন খেলার প্রতি ভালবাসা থেকেই। ২০০৭ এ তাঁর ছবি ‘ধন ধনা ধন গোলও’ তৈরি হয়েছিল ফুটবল নিয়েই। জনের নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড এফসি গুয়াহাটিতে গঠিত হয়, এবং আসাম, মেঘালয়, সিকিম, নাগাল্যান্ড, মণিপুর, অরুণাচল প্রদেশ, মিজোরাম তথা ত্রিপুরা – ভারতের এই আট উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যকে নিয়েই নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড এফসি।

আরও পড়ুন: FIFA World Cup 2018: বিশ্বকাপ জ্বরে আক্রান্ত গুগল ডুডলও

গত বছর নভেম্বরে আসাম সরকার অভিনেতাকে আশ্বাস দেয়, বিশ্বমানের ফুটবল অ্যাকাডেমি বানানোর জন্য সরকার তাঁকে সাহায্য করবে। জনও জানিয়েছিলেন, তাঁর তরফ থেকে সম্পূর্ণ সহযোগিতা থাকবে। শুধু তাই নয়, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার অনেক দেশের খেলোয়াড়রা যাতে গুয়াহাটিতে এসে অ্যাকাডেমিতে সময় কাটান, জন সেদিকেও খেয়াল রাখবেন।