scorecardresearch

বড় খবর

তুমুল বিতর্কের জেরে গোয়ালিয়রে বন্ধ হল ‘গডসের জ্ঞানশালা’

মঙ্গলবার জেলা প্রশাসনের তরফে বন্ধ করে দেওয়া হয় লাইব্রেরি। সেইসঙ্গে যাবতীয় জিনিসপত্র বাজেয়াপ্ত করা হয়।

তুমুল বিতর্কের জেরে গোয়ালিয়রে বন্ধ হল ‘গডসের জ্ঞানশালা’

তুমুল বিতর্কের জেরে খোলার দুদিন পরই বন্ধ হয়ে গেল নাথুরাম গডসের নামাঙ্কিত লাইব্রেরি। মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিরে অখিল ভারতীয় হিন্দু মহাসভার উদ্যোগে চালু হয়েছিল মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারীর লাইব্রেরি। কিন্তু মঙ্গলবার জেলা প্রশাসনের তরফে বন্ধ করে দেওয়া হয় সেটি। সেইসঙ্গে যাবতীয় জিনিসপত্র বাজেয়াপ্ত করা হয়। আইনশৃঙ্খলার সমস্যা হতে পারে বলে দাবি প্রশাসনের।

গডসে জ্ঞানশালা নামে এই লাইব্রেরি চালু হওয়ার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক সমালোচনার ঝড় ওঠে। বহু অভিযোগ জমা পড়ে গোয়ালিয়রের পুলিশ সুপার অমিত সাঙ্ঘির কাছে। যার জেরে ওই এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করতে বাধ্য হয় প্রশাসন। সাঙ্ঘি জানিয়েছেন, হিন্দু সহাসভার সদস্যদের সঙ্গে একটি বৈঠক হয় পুলিশের। তারপরেই লাইব্রেরি বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। সমস্ত বইপত্র, ব্যানার এবং অন্যান্য জিনিসপত্র বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন ভ্যাকসিন নিয়ে নয়া নির্দেশ জারি কেন্দ্রের, বেঁধে দেওয়া হল সময়সীমা-দাম

বিশ্ব হিন্দি দিবস উপলক্ষে রবিবার অখিল ভারতীয় হিন্দু মহাসভা মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসের জীবন ও আদর্শকে উৎসর্গ করে গোয়ালিয়রে একটি গ্রন্থাগারের উদ্বোধন করে। দৌলতগঞ্জে হিন্দু মহাসভার কার্যালয়ে গডসে জ্ঞানশালার উদ্বোধনও করা হয়। সেখানে গডসে কীভাবে মহাত্মা গান্ধীর হত্যার পরিকল্পনা করেছিলেন, সেই তথ্য এবং তাঁর বক্তৃতাগুলিও নথি হিসেবে রয়েছে।

এর আগেও হিন্দু মহাসভা একাধিকবার তাঁর উচ্ছ্বসিত প্রশংসা ও মহিমা কীর্তন করেছে। হিন্দু মহাসভা গোয়ালিয়র প্রতি বছর গডসে জন্মদিবস পালন করে। উল্লেখ্য, গান্ধী হত্যার বিষয়ে নাথুরামের বক্তব্য ছিল গান্ধীজির জন্যই দেশভাগ হয়েছে, হিন্দু, শিখরা অবর্ণনীয় নির্যাতনের শিকার হয়েছেন।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: 2 days after opening nathuram godse library shut