scorecardresearch

স্বাস্থ্য মন্ত্রীর ‘কড়া চিঠি’, অ্যালোপ্যাথি নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য প্রত্যাহার রামদেবের

‘মাননীয় মন্ত্রী, আপনার চিঠি পেয়েছি। আমার মন্তব্য প্রত্যাহার করে নিচ্ছি। বিভিন্ন চিকিৎসা পদ্ধতি নিয়ে বিতর্ক শেষ করছি।’

স্বাস্থ্য মন্ত্রীর ‘কড়া চিঠি’, অ্যালোপ্যাথি নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য প্রত্যাহার রামদেবের

করোনায় অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসা নিয়ে রামদেবের বেফাঁস মন্তব্যর পর গর্জে উঠেছিল দেশের চিকিৎসক সমাজ। যোগগুরুর বিরুদ্ধে মামলা করারও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছিল। এরপর রামদেবকে চিঠি লিখলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন।

রবিবার যোগগুরুকে পাঠানো চিঠিতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী লিখেছেন যে এই মন্তব্যর জন্য ক্ষমা চাইতে হবে রামদেবকে। এরপরই নিজের মন্তব্য ফিরিয়ে নেন যোগগুরু। টুইটারে বিবৃতি দিয়ে রামদেব লেখেন, ‘মাননীয় মন্ত্রী, আপনার চিঠি পেয়েছি। আমার মন্তব্য প্রত্যাহার করে নিচ্ছি। বিভিন্ন চিকিৎসা পদ্ধতি নিয়ে বিতর্ক শেষ করছি।’

‘যোগ এবং আয়ুর্বেদ আমাদের পুরোপুরি সুস্বাস্থ্য প্রদান করে। আধুনিক চিকিৎসা পদ্ধতিতে কিছু সীমাবদ্ধতা আছে। তা শুধুমাত্র উপসর্গের ভিত্তিতে চিকিৎসা প্রদান করে। আর যোগ ও আয়ুর্বেদ পদ্ধতিগত চিকিৎসা দেয়।’ এমন কথাও টুইট করেন যোগগুরু।

কী বিতর্ক উঠেছিল?

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিয়োয় রামদেবকে দাবি করতে শোনা যায়, “অ্যালোপ্যাথি একটা এমন বোকা এবং দেউলিয়া বিজ্ঞান। অ্যালোপ্যাথিক ওষুধ খাওয়ার পর কয়েক লক্ষ মানুষ মারা গিয়েছে।” এর পরই দেশের সার্বভৌমত্বের সঙ্গে সম্পর্কিত চিকিৎসা পরিষেবায় অগ্নিসংযোগের অভিযোগে মহামারি আইনে তাঁর বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি জানিয়েছে আইএমএ।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: After harsh vardhan rap ramdev takes back allopathy statement