scorecardresearch

বড় খবর

ইসলামাবাদের পর এবার বেজিং, ভারতের ডাকা কাবুল বৈঠক এড়াল চিন

ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের নেতৃত্বে আফগানিস্তানের পরিস্থিতি পর্যালোচনায় আগামিকাল দিল্লিতে এই বৈঠক হবে।

ইসলামাবাদের পর এবার বেজিং, ভারতের ডাকা কাবুল বৈঠক এড়াল চিন
পাকিস্তানের পথেই চিন।

পাকিস্তানের পর এবার আগামিকাল ১০ নভেম্বর দিল্লিতে আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে পর্যালোচনা বৈঠক এড়াচ্ছে চিন। সূত্র মারফত এমনই তথ্য এসেছে দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের হাতে। ভারতের ডাকা বৈঠক এড়িয়ে চিনের যুক্তি, আফগানিস্তানে স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে দ্বিপাক্ষিক কূটনৈতিক স্তরের আলোচনাতেই জোর দেওয়া হবে। ইসলামাবাদ, বেজিং নয়াদিল্লির ডাকা এই বৈঠক এড়ালেও বৈঠকে থাকছে রাশিয়া, ইরান এবং মধ্য এশিয়ার একাধিক দেশ। ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের নেতৃত্বে বুধবার দিল্লিতে এই উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক হবে।

আফগান মুলুকে তালিবানরাজ কায়েম হওয়ার পর থেকে উদ্বেগ বেড়েছে। ভারত-বিরোধী একাধিক শক্তি ইতিমধ্যেই আফগানিস্তানে সক্রিয়তা বাড়াচ্ছে বলে গোয়েন্দা সূত্রে খবর। শুধু ভারত-বিরোধী নয়, আফগানিস্তানে জঙ্গি সক্রিয়তা বৃদ্ধি মানে গোটা বিশ্বের কাছেই তা অত্যন্ত উদ্বেগের। আফগানিস্তানের পরিস্থিতি পর্যালোচনায় আগামিকাল দিল্লিতে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকের আয়োজন করে ভারত। এই বৈঠকে বিশ্বের একাধিক দেশের প্রতিনিধি যোগ দেবেন। তবে বৈঠকে আমন্ত্রণ পেয়েও তাতে সাড়া দেয়নি পাকিস্তান। শেষমেশ চিনও ভাতের ডাকা বৈঠক থেকে দূরে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে সূত্রের খবর।

আগামিকাল দিল্লিতে ভারতের ডাকা এই বৈঠকে কোন কোন দেশ থাকছে? জানা গিয়েছে, বুধবার দিল্লিতে এই বৈঠকে থাকতে পারেন রাশিয়া, ইরান,তাজিকিস্তান,উজবেকিস্তান,তুর্কেমেনিস্তান, কাজাখাস্তান এবং কিরঘিজস্তানের প্রতিনিধিরা। উল্লেখ্য, আফগানিস্তানে তালিবানরাজ ফেরার পর থেকে সে দেশে চূড়ান্ত অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, আফগানিস্তানের পরিস্থিতি ভারত-সহ বিশ্বের একাধিক দেশের জন্য উদ্বেগ বাড়াচ্ছে। আফগান মুলুকে তালিবানরাজ কায়েমে উদ্ভূত চ্যালেঞ্জের মোকাবিলার জন্য একটি “আঞ্চলিক নিরাপত্তা কাঠামো” তৈরি করতে উদ্যোগী ভারত।

আফগানিস্তানের ভিতরে চলা সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ, উগ্রবাদ ও চরমপন্থা, আন্তঃসীমান্ত আন্দোলন, মাদক উত্পাদন এবং পাচারে রাশ টানতে সম্মিলিত উদ্যোগের চেষ্টায় নয়াদিল্লি। একইসঙ্গে আফগানিস্তানে আমেরিকা ও তার সহযোগী দেশের রেখে যাওয়া অস্ত্র ও সরঞ্জামের সম্ভাব্য ব্যবহার সম্পর্কেও বেশ চিন্তিত ভারত। তা নিয়েও বুধবারের বৈঠকে আলোচনা হবে। জানা গিয়েছে, বুধবার বিভিন্ন দেশের শীর্ষকর্তারা ভারতে এসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গেও দেখা করতে পারেন। তাঁদের অনেকে অমৃতসর ও আগ্রায় বেড়াতে যেতে পারেন বলেও জানা গিয়েছে। আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতিকে প্রাধান্য দিয়েই এই বৈঠকের আয়োজন করে ভারত।

আরও পড়ুন- পুলিশকর্মীর পর পণ্ডিতের দোকানের কর্মচারী, ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে শ্রীনগরে জোড়া খুন

বিদেশমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, উচ্চ পর্যায়ের এই বৈঠকে আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে বিশদে আলোচনা হবে। আফগান মুলুকে শান্তি কায়েম করতে এবং সেখানকার জনগণের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে আগামিকালের এই বৈঠক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছে বিদেশমন্ত্রক। এরই পাশাপাশি বিদেশমন্ত্রকের তরফে আরও জানানো হয়েছে, “ভারত ঐতিহ্যগতভাবে আফগানিস্তানের জনগণের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক উপভোগ করেছে। আফগানিস্তানে বর্তমানে উদ্ভুত চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার ক্ষেত্রেও আন্তর্জাতিকস্তরে উদ্যোগ নিয়েছে ভারত। আসন্ন বৈঠকটি সেই দিকেই একটি পদক্ষেপ।”

Read full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: After pakistan china to skip new delhi meeting on kabul iran and russia to join