scorecardresearch

বড় খবর

টিকা না নিলে বাইরে ঘোরাঘুরি নয়, কড়া নির্দেশিকা অসম সরকারের

টিকা না নিলে হাসপাতাল ছাড়া কোথাও এন্ট্রি হবে না বলে জানিয়ে দিল অসম সরকার।

এক্সপ্রেস ফটো- পার্থ পাল

কোভিডের বাড়বাড়ন্তের জেরে কড়া অসম প্রশাসন। যে হারে ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা রাজ্যে বাড়ছে তাতে উদ্বিগ্ন উত্তর-পূর্বের এই রাজ্য। এবার থেকে টিকা না নিলে হাসপাতাল ছাড়া কোথাও এন্ট্রি হবে না বলে জানিয়ে দিল অসম সরকার। সুপ্রিম কোর্টে কেন্দ্র হলফনামা দিয়ে জানিয়েছিল, কোভিড টিকাকরণ বাধ্যতামূলক করা হয়নি। কিন্তু অসম সরকার এবার টিকা নেওয়ার জন্য বাধ্য করতে এই নির্দেশিকা জারি করেছে।

নির্দেশিকা অনুযায়ী, ১৫ জানুয়ারি থেকে নাগরিকদের টিকার শংসাপত্র সঙ্গে রাখতে হবে জনসমক্ষে বেরোলে। যে কোনও সরকারি বা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে শুধুমাত্র টিকার দুটি ডোজ নেওয়া মানুষকেই ঢোকার অনুমতি দেওয়া হবে। না হলে দায়ী থাকবে কর্তৃপক্ষ। নির্দেশ অমান্য হলে শাস্তির মুখে পড়তে হবে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠানকে।

মুখ্য়মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা সোমবার জানিয়েছেন, যাঁদের টিকা নিতে অনীহা তাঁদের বাড়িতেই থাকা উচিত। যদিও তিনি বলেছেন, টিকা গ্রহণ বাধ্যতামূলক নয়, কিন্তু তাঁর কথায়, টিকা না নিলে অফিসর-কাছারি, পাবলিক প্লেসে ঘোরা উচিত নয়। শর্মা বলেছেন, নাগরিকদের টিকার শংসাপত্র দেখাতে হতে পারে। কারণ তাঁর সরকার কোনও রকম জনবিরোধী কার্যকলাপ বরদাস্ত করবে না।

আরও পড়ুন সাড়ে ১১ হাজার পেরিয়েছে দিল্লির দৈনিক সংক্রমণ! মুম্বইয়েও আক্রান্তের গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী

মুখ্যসচিব জিষ্ণু বড়ুয়া নির্দেশিকা জারি করে জানিয়েছেন, সমস্ত সরকারি কর্মী, স্থায়ী বা অস্থায়ী কর্মীকে অফিস করতে হলে টিকা নিতে হবে। যাঁরা নেবেন না তাঁদের ছুটিতে পাঠানো হবে। কিন্তু সেই ছুটির জন্য কোনও বেতন পাবেন না তাঁরা। যাঁরা মেডিক্যাল গ্রাউন্ডে টিকা নিতে পারেননি তাঁদের ছাড় দেওয়া হয়েছে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Assam bars unvaccinated people from public places amid sharp rise in covid cases