বড় খবর

অযোধ্যা রায়ের বিরুদ্ধে আবেদন করছে মুসলিম ল বোর্ড ও জামিয়ত উলেমা-ই-হিন্দ

সংগঠনের সম্পাদক জাফরিয়াব জিলানি বলেছেন, “শরিয়ত মোতাবেক মসজিদের জমির মালিক আল্লা, তা অন্য কাউকে দেওয়া যায় না।”

Ayodhya, Supreme Court Verdict Review Petition
ছবি- ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

অযোধ্যা জমি বিতর্ক মামলার রায়ে ন্যায়বিচার হয়নি। এই মর্মে অভিযোগ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের রিভিউ পিটিশন দাখিল করছে সারা ভারত মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড। রবিবার সংগঠনের পক্ষে এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে। লখনউয়ে ল বোর্ডের এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ল বোর্ডের সদস্য এসওআর ইলিয়াস বৈঠকের পর সাংবাদিক সম্মেলনে জানিয়েছেন, “মসজিদের জন্য নির্দিষ্ট জমি ছাড়া অন্য কোনও জমি গ্রহণ আমাদের পক্ষে সম্ভব নয়, ফলে আমরা রিভিউ পিটিশন দাখিল করব বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। অন্য যে জমির কথা বলা হয়েছে তা আমরা নেব না।”

আরও পড়ুন: সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে ফারুক আবদুল্লা, চিদাম্বরমকে হাজিরার অনুমতির দাবি বিরোধীদের

সংগঠনের সম্পাদক জাফরিয়াব জিলানি বলেছেন, “শরিয়ত মোতাবেক মসজিদের জমির মালিক আল্লা, তা অন্য কাউকে দেওয়া যায় না। বোর্ড স্পষ্ট ভাষায় জানিয়েছে মসজিদ ছাড়া অযোধ্যার অন্য কোথাও পাঁচ একর জমি গ্রহণ করা সম্ভব নয়। বোর্ড মনে করছে মসজিদের কোনও বিকল্প হতে পারে না।”

ইতিমধ্যে জামিয়ত উলেমা-ই-হিন্দ সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারাও সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রিভিউ পিটিশন দাখিল করবে। সংগঠনের প্রধান আর্শাদ মাদানি এ কথা বলেছেন।

রবিবার জামিয়াতে কার্যকরী কমিটির বৈঠকে রিভিউ পিটিশনের ব্যাপারে সম্মতি দেওয়া হয়েছে। এ রায়ের রিভিউ পিটিশনের ভাল-মন্দ খতিয়ে দেখবার জন্য শুক্রবার পাঁচ সদস্যের কমিটি প্রস্তুত করা হয়।


সংবাদ সংস্থা এএনআই মাদানিকে উদ্ধৃত করেছে। তিনি বলেছেন, “আমরা জানি য়ে আমাদের পিটিশন ১০০ শতাংশ খারিজ হবে, তবুও আমরা আবেদন করব। এটা আমাদের অধিকার।”

আরও পড়ুন: ‘বালাসাহেব ঠাকরে আমাদের আত্মসম্মান শিখিয়েছেন’, কুর্সি দখলের মাঝে শিবসেনাদের ‘বার্তা’ ফড়নবীশের

বৃহস্পতিবার মাদানি বলেছিলেন, “একবার মসজিদ নির্মিত হবার পর তা শেষ দিন পর্যন্ত মসজিদই থাকে। ফলে বাবরি মসজিদ মসজিদ ছিল, আছে, থাকবে। তবে সুপ্রিম কোর্ট যদি বলে বাবরি মসজিদ মন্দির ধ্বংস করে গঠিত হয়েছে, তাহলে আমাদের আর কোনও দাবি থাকে না। আমাদের দাবিই যদি না থাকে, তাহলে আমাদের আদৌ জমি দেওয়া হবে কেন! এই কারণের সুপ্রিম কোর্টের রায় বিভ্রান্তিকর।”

গত সপ্তাহে সর্বসম্মত রায়ে সুপ্রিম কোর্ট অযোধ্যার বিতর্কিত স্থানে রাম মন্দির নির্মাণের পথ খুলে দিয়েছে এবং কেন্দ্রকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে মসজিদ বানানোর জন্য পাঁচ একর জমি সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের হাতে তুলে দিতে।

 

Web Title: Ayodhya supreme court verdict challenge all india mulim personal law board jamiat e ulema hind

Next Story
‘বালাসাহেব ঠাকরে আমাদের আত্মসম্মান শিখিয়েছেন’, কুর্সি দখলের মাঝে শিবসেনাদের ‘বার্তা’ ফড়নবীশের
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com