scorecardresearch

বড় খবর

আয়ারল্যান্ডে জাতিবিদ্বেষের শিকার বাঙালি পরিবার

হেনস্থাকারী বিয়ারের ক্যান থেকে মদ্যপান করছিল। প্রসূনবাবু জানিয়েছেন, প্রায় ঘন্টাখানেক জাতিবিদ্বেষী মন্তব্য ও অপমান সহ্য করতে হয়েছে তাঁদের।

আয়ারল্যান্ডে জাতিবিদ্বেষের শিকার বাঙালি পরিবার
আয়ারল্যান্ডের ট্রেনে জাতিবিদ্বেষের শিকার বাঙালি পরিবার

আয়ারল্যান্ডে বেড়াতে গিয়ে জাতিবিদ্বেষী হেনস্থার শিকার হল একটি বাঙালী পরিবার। ওই দেশের সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, বেলফাস্ট থেকে ডাবলিনগামী ট্রেনে এক মত্ত ব্যক্তি প্রায় ঘন্টাখানেক ধরে প্রসূন ভট্টাচার্য নামে এক ব্যক্তি এবং তাঁর পরিবারকে উচ্চারণ, গায়ের রং এবং জাতিগত পরিচয় নিয়ে হেনস্থা করে। প্রসূনবাবু তিনদিনের জন্য বাবা-মাকে নিয়ে আয়ারল্যান্ডে বেড়াতে গিয়েছিলেন।

স্থানীয় সূত্রের খবর, হেনস্থাকারী বিয়ারের ক্যান থেকে মদ্যপান করছিল। প্রসূনবাবু জানিয়েছেন, প্রায় ঘন্টাখানেক জাতিবিদ্বেষী মন্তব্য ও অপমান সহ্য করতে হয়েছে তাঁদের। ঘটনাটি সম্পর্কে খোঁজখবর শুরু করেছে ওই দেশের অভিবাসন সংক্রান্ত কাউন্সিল। প্রসূনবাবুর কথায়, “অত্যন্ত খারাপ ও অপমানজনক ঘটনা। ট্রেনের একজন গার্ড আমাদের কাছে আসেন। কিন্তু তিনি কোনও কার্যকর ব্যবস্থা নেন নি। ওই মত্ত ব্যক্তিকে ট্রেন থেকে নামিয়ে দেওয়াও হয়নি। ফলে ডাবলিন পৌঁছনো পর্যন্ত একটানা হেনস্থা চলতে থাকে।”

আরও পড়ুন, মহারাষ্ট্রে তিন বছরে ১২ হাজারের বেশি কৃষকের আত্মহত্য়া

পিটার নামে এক ব্যক্তি ওই ট্রেনে প্রসূনবাবুদের সহযাত্রী ছিলেন। তিনি বলেন, “গার্ড অনেক বেশি কার্যকর ভূমিকা পালন করতে পারতেন। তিনি ওই মত্ত ব্যক্তিকে একাধিকবার বসতে বলছিলেন, কিন্তু জাতিবিদ্বেষী আচরণ সম্পর্কে তিনি কোনও ব্যবস্থা নেন নি।” পিটারের দাবি, ট্রেন ডাবলিনে পৌঁছনোর পর তিনি প্রসূনবাবু এবং তাঁর বাবা-মায়ের সঙ্গে কথা বলেন এবং তাঁদের সঙ্গে হওয়া ঘটনার জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

প্রসূনবাবু পরে টুইট করে গোটা ঘটনাটি জানিয়েছেন। তাতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও বিদেশ সচিব এস জয়শঙ্করকে ট্যাগ করেছেন।

আয়ারল্যান্ডের ইমিগ্র্যান্ট কাউন্সিলের আধিকারিক পিপ্পা উলনাফ বলেন, “এই ঘটনা প্রমাণ করছে জাতিবিদ্বেষ রুখতে আরও সক্রিয়তা প্রয়োজন।” আইরিশ রেলওয়ের মুখপাত্র ব্যারি কেনির কথায়, “অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। ওই পরিবারের সঙ্গে যা ঘটেছে, তার জন্য আমরা লজ্জিত। তিনি জানান, সাধারণভাবে ট্রেনের কর্মীরা জাতিবিদ্বেষী ঘটনা রুখতে এবং পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সবসময়ই চেষ্টা করেন।”

আইরিশ রেলওয়ে সোস্যাল মিডিয়ায় এই ঘটনা সংক্রান্ত যে কোনও খবর দেওয়ার জন্য যাত্রীদের কাছে আবেদন করেছে। আয়ারল্যান্ডের পুলিশ প্রশাসনের কাছেও সিসিটিভি ফুটেজ দিয়ে সাহায্য করার জন্য বলা হয়েছে।

Read the full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bengali family racially abused on train in ireland