‘শাহিনবাগ আন্দোলন সাজানো’।।ভারতে ফেসবুকের শীর্ষ পদাধিকারীকে ‘হুমকি’।। বেঙ্গালুরু হিংসা তদন্তে সিট

কী ঘটল দেশে? আপডেটেড থাকতে আপনাকে যে খবর জানতেই হবে, দিনের সব গুরুত্বপূর্ণ খবর এই প্রতিবেদনে।

By: New Delhi  Updated: August 18, 2020, 07:51:12 AM

শাহিনবাগে বিক্ষোভ গোটাটাই বিজেপির ‘সাজানো ও কৌশলগত’ কর্মসূচি, এমন বিস্ফোরক অভিযোগই করেছে আম আদমি পার্টি। এদিকে, ফেসবুকের ‘বিজেপি-ভীতি’র খবর ঘিরে হইচইয়ের মধ্য়েই হুমকির অভিযোগ তুলে দিল্লি পুলিশের সাইবার সেলের দ্বারস্থ হলেন ফেসবুক ইন্ডিয়ার পাবলিক পলিসি এক্সিকিউটিভ আঁখি দাস। অন্য়দিকে, বেঙ্গালুরুতে হিংসার ঘটনায় কড়া পদক্ষেপের পথে হাঁটল ইয়েদুরাপ্পা সরকার। দেশের এমনই সব খবর পড়ে নিন এক এক করে…

শাহিনবাগ আন্দোলন বিজেপির ‘সাজানো’, বিস্ফোরক অভিযোগ আপের

ফাইল ছবি।

শাহিনবাগে বিক্ষোভ গোটাটাই বিজেপির ‘সাজানো ও কৌশলগত’ কর্মসূচি, এমন বিস্ফোরক অভিযোগই করেছে আম আদমি পার্টি। উল্লেখ্য়, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে দিল্লির শাহিনবাগে বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘিরে সরগরম ছিল জাতীয় রাজনীতি।

*এদিন সাংবাদিক বৈঠ‍কে আপ মুখপাত্র সৌরভ ভরদ্বাজ বলেন, ”শাহিনবাগ আন্দোলনের প্রত্য়কটা ধাপ সাজিয়েছেন বিজেপির শীর্ষ নেতারা। তাঁরাই ঠিক করে দিয়েছেন, কে কী বলবেন, কে কাকে আক্রমণ করবেন, কে পাল্টা আক্রমণ করবেন। এসবই পরিকল্পিত ও খুব ভালভাবে সাজানো”।

* ভরদ্বাজ আরও বলেছেন, এটা এখন পরিষ্কার, কেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে বলেছিলেন যে, ‘পদ্ম বোতাম টিপুন, যেন শাহিনবাহ কারেন্ট অনুভব করে”।

* উল্লেখ্য়, সোমবার একদল মুসলিম বিজেপিতে যোগ দেন। তাঁদের মধ্য়ে ৫০ জনেরও বেশি শাহিনবাগের, এমনটাই দাবি করা হয়েছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

হুমকির মুখে ভারতে ফেসবুকের শীর্ষ পদাধিকারী, পুলিশে অভিযোগ

ফেসবুকের কর্ণধার মার্ক জুকেরবার্গের সঙ্গে আঁখি দাস। ছবি: ফেসবুক/আঁখি দাস

অনলাইন পোস্টের মাধ্যমে তাঁকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এই অভিযোগেই রবিবার রাতে দিল্লি পুলিশের সাইবার সেলে লিখিত অভিযোগ দায়ের করলেন ফেসবুক ইন্ডিয়ার পাবলিক পলিসি এক্সিকিউটিভ আঁখি দাস। তাঁর অভিযোগ, ‘একাধিক ব্যক্তি অনলাইনে এমন সব পোস্ট বা কনটেন্ট পাবলিশ করছেন যা খুবই হিংসাত্মক। এগুলি আমার জীবনের প্রতি হুমকি।’ অভিযোগ দায়ের হলেও এখনও এফআইআর হয়নি। দিল্লি পুলিশের এক আধিকারীক জানিয়েছেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি, ঘঠনার তদন্ত চলছে।’

*বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে ‘বিদ্বেষ রোধ আইন’ প্রয়োগে বাধা দিয়েছিলেন এ দেশে ফেসবুকের পাবলিক পলিসি এক্সিকিউটিভ আঁখি দাস। বাণিজ্যিক কারণ বিবেচনা করেই এই বাধা দেওয়া হয়েছে। গত ১৪ অগাস্ট মার্কিন সংবাদপত্র ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে এই প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। অনলাইন পোস্টের বিষয়বস্তু এই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন আঁখি।

*পুলিশের কাছে দায়ের করা চার পাতার অভিযোগপত্রে আঁখি দাস বলেছেন যে, ‘ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদন ভারতে বিভিন্ন প্রকাশনা দ্বারা ভুল পথে ও বিকৃতভাবে তুলে ধরা হয়েছে। যা পরে সোশাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে যায়।’ হিংসাত্মক পোস্টে তাঁর ছবিও ব্যবহার করা হয়েছে হলে অভিযোগ করেছেন ফেসবুক ইন্ডিয়ার পাবলিক পলিসি এক্সিকিউটিভ। Read in English

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

বিজেপির বিদ্বেষমূলক পোস্টের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি, সংসদীয় কমিটির প্রশ্নের মুখে ফেসবুক

ফেসবুক কেন বিজেপিকে আটকাচ্ছে না, উঠছে প্রশ্ন।

বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে ‘বিদ্বেষ রোধ আইন’ প্রয়োগে বাধা দিয়েছিলেন এ দেশে ফেসবুকের পাবলিক পলিসি এক্সিকিউটিভ আঁখি দাস। বাণিজ্যিক কারণ বিবেচনা করেই এই বাধা দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে এই প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। তারপর থেকেই যুযুধান বিজেপি ও কংগ্রেসের বাকযুদ্ধ তুঙ্গে। মার্কিন সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদনের উপর নজর রয়েছে বলে জানিয়েছেন সংসদের তথ্য-প্রযুক্তি সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান শশী থারুর। তিনি বলেছেন, ‘আমি অবশ্যই বিষয়টি খতিয়ে দেখব। এ বিষয়ে ফেসবুকের মতামত জানতে চাওয়া হবে।’ সূত্রের খবর যে, সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে উঠে আসা বিষয়ের ব্যাখ্যা জানতে চেয়ে ফেসবুককে আজই সমন পাঠাবে।

*ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে প্রকাশিত প্রতিবেদন দাবি করা হয়, ভারতে বাণিজ্যিক ধাক্কার ‘আশঙ্কা’-য় বিজেপি নেতা-নেত্রীদের বিদ্বেষ ও উস্কানিমূলক পোস্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না। বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে ‘বিদ্বেষ রোধ আইন’ প্রয়োগে বাধা দিয়েছিলেন এ দেশে ফেসবুকের পাবলিক পলিসি এক্সিকিউটিভ আঁখি দাস। প্রতিবেদনে উল্লেখ, আঁখি দাস সংস্থার কর্মীদের বলেছিলেন, বিজেপি নেতাদের লংঘনকারী হিসেবে শাস্তি দিলে ভারতে ফেসবুকের বাণিজ্যিক ক্ষতি হতে পারে।

*অভিযোগ, সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে হিংসায় মদত দিতে ফেসবুকে বিদ্বেষমূলক মন্তব্য করেছিলেন তেলেঙ্গানার বিজেপি বিধায়ক টি রাজা। কিন্তু সংস্থার বর্তমান ও প্রাক্তন কর্মীদের বক্তব্য অনুযায়ী ফেসবুক ইন্ডিয়ার পাবলিক পলিসি ডিরেক্টর আঁখি দাসের হস্তক্ষেপেই ওই বিধায়কের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এই বিষয়টিকে শাসক দলের প্রতি সংস্থার ‘পক্ষপাতিত্বমূলক পদক্ষেপ’ বলেই ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে আখ্যায়িত করা হয়েছে। Read in English

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

বেঙ্গালুরু হিংসার তদন্তে সিট গঠন ইয়েদুরাপ্পা সরকারের

সোশাল মিডিয়া পোস্ট ঘিরে বেঙ্গালুরুতে সংঘর্ষ

বেঙ্গালুরুতে হিংসার ঘটনায় কড়া পদক্ষেপের পথে হাঁটল ইয়েদুরাপ্পা সরকার। হিংসার ঘটনার তদন্তে বিশেষ তদন্তকারী দল(সিট) গঠন করা হয়েছে বলে সোমবার জানালেন কর্নাটকের মুখ্য়মন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা।

* ইয়েদুরাপ্পা আরও জানিয়েছেন, হিংসায় ক্ষতিপূরণ অপরাধীদের থেকেই আদায় করা হবে। এজন্য় হাইকোর্টের দ্বারস্থ হবে সরকার।

* কর্নাটকের মুখ্য়মন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, হিংসার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ইউএপিএ ধারা লাগু-সহ কঠোর পদক্ষেপ করা হচ্ছে।

*উল্লেখ্য়, কংগ্রেস বিধায়কের এক আত্মীয়ের সোশ্য়াল মিডিয়া পোস্ট ঘিরে হিংসা ছড়ায় বলে অভিযোগ উঠেছে।(Read in English)

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

একযোগে যোগী সরকারকে আক্রমণ রাহুল-প্রিয়াঙ্কার

rahul gandhi, রাহুল গান্ধী যোগী আদিত্য়নাথ, প্রিয়াঙ্কা ও রাহুল গান্ধী।

উত্তরপ্রদেশে ‘জঙ্গলরাজ’ চলছে, এমন অভিযোগ তুলে এবার যোগী সরকারকে একযোগে বিঁধলেন রাহুল ও প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। মহিলাদের উপর ঘৃণ্য় অপরাধ ও জাতিগত হিংসা ব্য়াপক হারে উত্তরপ্রদেশে বাড়ছে, এমন অভিযোগ করে এদিন সোচ্চার হয়েছেন রাহুল-প্রিয়াঙ্কা।

*আজমগড়ের বসগাঁওয়ের গ্রামের দলিত প্রধানকে হত্য়ার ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে রাহুলের টুইট, ”উত্তরপ্রদেশে জাতিগত হিংসা ও ধর্ষণের ঘটনা বাড়ছে। আরেকটা ভয়ঙ্কর ঘটনা- সরপঞ্চ সত্য়মেব, দলিত হয়ে না বলেছিলেন, সে কারণে তাঁকে হত্য়া করা হল। সত্য়মেবজির পরিবারকে সমবেদনা”।

*উল্লেখ্য়, এ ঘটনায় ৪ জনের বিরুদ্ধে জাতীয় নিরাপত্তা আইন লাগু করা হয়েছে। গত সপ্তাহে বসগাওঁ গ্রামের প্রধানকে হত্য়া করার অভিযোগ উঠেছে। পরিচিতদের হাতেই খুন হয়েছেন গ্রামের প্রধান, এমনটাই দাবি পুলিশের। (বিস্তারিত পড়ুন)

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

বিতর্কের আবহেই আজ আলোচনার টেবিলে ভারত-নেপাল

modi, oli, মোদী, ওলি মোদী-ওলি ।

সীমান্তে বিতর্কের আবহেই সোমবার আলোচনার টেবিলে বসল ভারত ও নেপাল। করোনা পরিস্থিতিতে এদিন দু’দেশের শীর্ষ কূটনীতিকরা ভার্চুয়াল বৈঠক সারছেন। নেপালে ভারতীয় সহায়তায় উন্নয়নমূলক প্রকল্পের পর্যালোচনা করতেই এই বৈঠক বলে জানা যাচ্ছে। এদিনের বৈঠকে নেপালের তরফে রয়েছেন বিদেশ সচিব শঙ্কর দাস বৈরাগী। এ দেশের তরফে রয়েছেন নেপালে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত বিনয় মোহন কাওয়ার্তা।

*উল্লেখ্য়, সম্প্রতি ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ফোন করেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলা। কালাপানি সীমান্ত বিবাদের পর এই প্রথম দু’দেশের প্রধানমন্ত্রীর মধ্য়ে ফোনালাপ হয়। ১১ মিনিট ধরে ফোনে দুই প্রধানমন্ত্রী কথা বলেন। মোদীকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানান ওলি। স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে অস্থায়ী সদস্য় হিসেবে ভারত নির্বাচিত হওয়ায় মোদীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী।

*প্রসঙ্গত, নেপালের নয়া রাজনৈতিক মানচিত্র ঘিরে কাঠমাণ্ডু ও নয়া দিল্লির সম্পর্কে চিড় ধরেছে। লিপুলেখ, কালাপানি, লিম্পিয়াধুরাকে নিজেদের মানচিত্রে অন্তর্ভুক্ত করেছে নেপাল, যার তীব্র বিরোধিতা জানিয়েছে ভারত। গত জুন মাসে নয়া মানচিত্র অনুমোদন করে নেপাল সংসদ। নেপালের এহেন পদক্ষেপের বিরোধিতা জানিয়ে নয়া দিল্লি জানায়, ‘এটা অসমর্থনযোগ্য়’। (বিস্তারিত পড়ুন)

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

বারামুলায় জঙ্গি হামলা, নিহত দুই সিআরপিএফ জওয়ান-এক পুলিশকর্মী

বারামুলায় জঙ্গি হামলা

জম্মু-কাশ্মীরের বারামুলার জঙ্গিদের ছোঁড়া এলোপাথাড়ি গুলিতে মৃত্যু হয়েছে তিন কর্তব্যরত নিরাপত্তা রক্ষীর। এদের মধ্যে দু’জন সিআরপিএফ-এর জওয়ান ও একজন জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের সদস্য। নিরাপত্তা বাহিনীর চেকপোস্টের কাছেই এই হামলা চালায় সন্ত্রাসবাদীরা। এলাকা ঘিরে রেখে চিরুনি তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

কাশ্মীর জোন পুলিশের তরফে টুইটে জানানো হয়েছে যে, ‘সিআরপিএফ ও জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের যৌথ বাহিনী ক্রিরির চেক পোস্টে টহল দিচ্ছিল। তখনই তাদের উপর অতর্কিতে হামলা চালায় সন্ত্রাসবাদীরা। পালটা গুলি চালাতে শুরু করে বাহিনীও। তবে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয় সন্ত্রাসবাদীরা। গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় ২ জন সিআরপিএফ জওয়ান ও একজন পুলিশকর্মীর।’

গত ১৪ অগস্ট শ্রীনগরের কাছে নওগামে পুলিশের একটি কনভয়ের উপর হামলা চালায় একদল সন্ত্রাসবাদী। ওই ঘটনায় দু জন পুলিশকর্মীর মৃত্যু হয়েছে। জখম হন আরও একজন পুলিশকর্মী। পুলিশের একটি কনভয়কে লক্ষ করে এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে সন্ত্রাসবাদীরা। পালটা গুলি চালায় পুলিশও। দু পক্ষের গুলিবিনিময়ে জখম হন তিনজন পুলিশকর্মী। তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে চিকিত্‍‌সা চলাকালীন দু জন শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

সরকারি পরিসংখ্যান অনুসারে চলতি বছর ১ এপ্রিল থেকে উপত্যকায় জঙ্গিরা নিরাপত্তা বাহিনী ও রাজনৈতিক কর্মীদের উপর কমপক্ষে ৩০ বার হামলা চালিয়েছে। এর ফলে অন্তত ১২ জন নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মীর মৃত্যু হয়েছে ও জখম হয়েছেন ১৯ জন। জঙ্গি হামলায় প্রাণ গিয়েছে ৬ রাজনৈতিক কর্মীর। ৩০টির মধ্যে উত্তর ও মধ্য কাশ্মীর ১২টি জঙ্গি হামলা হয়েছে। Read in English

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

আট মাস পর নিখোঁজ জওয়ানের দেহ উদ্ধার

২০২০ সালের জানুয়ারি মাস থেকে খোঁজ ছিল না কাশ্মীরে কর্মরত গারওয়াল রাইফেসের জওয়ান রাজেন্দ্র সিং নেগির।

২০২০ সালের জানুয়ারি মাস থেকে খোঁজ ছিল না কাশ্মীরে কর্মরত গারওয়াল রাইফেসের জওয়ান রাজেন্দ্র সিং নেগির। গুলমার্গে নিয়ন্ত্রণরেখায় টহলদারির সময়ই নিখোঁজ হয়ে যান এই জওয়ান। তারপর থেকে পরিবারের লোকেরা নেগিকে হন্যে হয়ে খুঁজছিলেন। সেনার তরফেও খোঁজের তৎপরতা কম ছিল না। কিন্তু, আট মাস পর রাজেন্দ্র সিং নেগির দেহ উদ্ধার হয়েছে। সোমবার তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে তা জানানো হয়।

খোঁজ না পেয়ে গত মে মাসেই ভারতীয় সেনাবাহিনীর তরফে ঘোষণা করা হয়েছিল যে, রাজেন্দ্র নেগী শহিদ হয়েছেন। প্রয়াত জওয়ান নেগি রেখে গেলেন তাঁর স্ত্রী, দুই কন্যা ও এক পুত্র সন্তানকে। এই ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী তিভেন্দ্র সিং রাওয়াত।

শহিদ বীর জওয়ানের আত্মার শান্তি কামনা ও তাঁর পরিবারকে সাহস-শক্তি অর্জনেরপ্রার্থনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী রাওয়াত। হতভাগ্য পরিবারকে সব ধরনের সহায়তার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে। Read in English

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

বিএসএফ প্রধান পদে রাকেশ আস্থানা

Rakesh Asthana রাকেশ আস্থানা।

বিএসএফের প্রধান হিসেবে নিয়োগ করা হল গুজরাট ক্য়াডারের আইপিএস অফিসার রাকেশ আস্থানাকে। অন্য়দিকে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের স্পেশাল সেক্রেটারি পদে নিয়োগ করা হল ভি এস কে কৌমুদিকে।

* বর্তমানে সিভিল অ্য়াভিয়েশন সিকিউরিটির ডিরেক্টর জেনারেল পদে কর্মরত রয়েছেন আস্থানা।

* নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্য়ুরোর ডিজি পদে অতিরিক্ত দায়িত্বও সামলাচ্ছেন আস্থানা। (Read in English)

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

মোদীর ঘোষণা করা ডলফিন প্রকল্পের সূচনা আগামী ১৫ দিনে: প্রকাশ জাভড়েকর

১৫ অগাস্ট ডলফিন সংরক্ষণ প্রকল্পের ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী

স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে লাল কেল্লায় দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদী ডলফিন সংরক্ষণ প্রকল্পের ঘোষণা করেছিলেন। সোমবার পরিবেশমন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর জানিয়েছেন আগামী ১৫ দিনের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা করা ডলফিন সংরক্ষণ প্রকল্পের সূচনা হবে।

*টুইটে জাভড়েকর জানিয়েছেন, ‘৭৪তম স্বাধীনতা দিবসে প্রধানমন্ত্রীজি ঘোষিত পবিত্র ডলফিন সংরক্ষণ প্রকল্প নদী ও সমুদ্রে আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই চালু হবে।’ মন্ত্রী জানিয়েছেন, নদী ও সমুদ্র-উভয় ক্ষেত্রে বসবাসকারী ডলফিন সংরক্ষণ করা হবে। এর ফলে পরিবেশ স্থানীয়স্তরে অর্থনীতি চাঙ্গা হবে ও কর্মসংস্থান হবে। ডলফিন সংরক্ষণের মাধ্যমে পর্যটন শিল্প বিস্তারের কথাও বিবেচনা করছে কেন্দ্র।

*গঙ্গা-ব্রহ্মপুত্র-মেঘনা ও কর্ণফুলি নদীতে আপাতত গাঙ্গেও ডলফিনের বাস। ভারত-নেপালল ও বাংলাদেশের মধ্যে প্রবাহিত নদীতে এদের বেশি দেখা যায়। সমীক্ষায় প্রকাশ আপাতত ভারতের মধঘ্যে বহমান নদীতে ৩,৭০০ ডলফিন রয়েছে। যা সংরক্ষণে ১০ বছরের প্রকল্প ঘোষণার কথা বলেছিলেন মোদী। Read in English

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

করোনা দমতেই ছন্দে ফিরছে অর্থনীতি

বাড়ছে অর্থনৈতিক কার্যকলাপ

দেশের যেসব অঞ্চলে করোনা সংক্রমণ দ্রুত রোধ বা মোকাবিলা করা গিয়েছে সেই সব অঞ্চলে অর্থনৈতিক কার্যকলাপ উল্লেখযোগ্যহারে বেড়েছে। অর্থমন্ত্রকের অর্থনীতি বিষয়ক দফতরের তরফে এমনটাই জানানো হয়েছে।

*আপাতভাবে এই বৃদ্ধি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, বেশকিছু রাজ্য রয়েছে যেগুলোতে করোনার প্রকোপ খুব বেশি। সেই সব রাজ্যে সঠিক আকারে অর্থনৈতিক পুনরুত্থান না ঘটলে বৃহত্তর প্রেক্ষিতে অর্থনৈতিক সমস্যার সৃষ্টি হবে।

*অর্থনৈতিক ক্রিয়াকলাপ চাঙ্গার বিষয়টি সূচিত হচ্ছে মূলত তিনটি ইস্যুর প্রেক্ষিতে। এগুলি হল, বিদ্যুতের ব্যবহার, ই-ওয়ে বিলের অনুমোদন ও একশ দিনের কাজ প্রকল্প।

*যেমন বিদ্যুৎ বন্টন মে মাসের তুলনায় জুন মাসে ৩ মিলিয়ান ইউনিট বৃদ্ধি পেয়েছে। পরিসংখ্যানের প্রেক্ষিতে গত বছরের তুলনায় কর্নাটক, অন্ধ্রপ্রদেশ, পাঞ্জাব ও ছত্তিশগড়ে এই পুনরুদ্ধারের হার বেশি।

*মে মাসের তুলনায় রাজ্যের অভ্যন্তরে ও আন্তঃরাজ্য পণ্য চলাচলওের হারও বেড়েছে। ই-ওয়ে বিল অনুমোদন বেড়েছে। কিন্তু কয়েক বছরের বৃদ্ধির তুলনা করলে মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, দিল্লি ও হরিয়ানার মত করোনার প্রকোপযুক্ত রাজ্যগুলোতে এই বৃদ্ধির হার বেশ কম। জিএসটি নথিভুক্ত থাকলে বা ৫০ হাজারের বেশি পণ্য অন্যত্র গেলেই ই-ওয়ে বিলের প্রয়োজন হয়। পণ্য চলাচলের বৃদ্ধি অর্থনীতি চাঙ্গার অন্যতম ইঙ্গিত বলেই বিবেচিত।

*একশো দিনের কাজের চাহিদা যেমন বেড়েছে তেমনই এই প্রকল্পের অধীন কর্মদিবসের সংখ্যাও বৃদ্ধি পয়েছে। কয়েক বছরের তুনায় বছর জুন মাসে কর্মদিবস বড়েছে প্রায় দ্বিগুণ। তবে, করোনার জেরে পরিযায়ী শ্রমিকের দল বাড়ি ফেরায় মহারাষ্ট্রে এর চাহিদা অন্যন্য বারের তুলনায় কম। Read in English

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

তদন্ত রিপোর্ট নির্দিষ্ট সময় পাঠাতে হবে, সরকারি দফতরগুলোকে নির্দেশ সিভিসি-র

কেন্দ্রীয় ভিজিল্যান্স কমিশন

কেন্দ্রীয় ভিজিল্যান্স কমিশন সমস্ত কেন্দ্রীয় সরকার দফতরকে দুর্নীতির অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত রিপোর্ট সময়মতো পাঠাতে বলেছে এবং তা না হলে পুরো বিষয়টি ‘গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা’ করা হবে বলে সতর্ক করে দিয়েছে।

*কেন্দ্রীয় ভিজিল্যান্স কমিশন চিফ ভিজিল্যান্স অফিসারদের থেকে তদন্ত সংক্রান্ত সহ রিপোর্ট নিয়ে থাকে। কেন্দ্রীয় সরকারি দফতরে দুর্নীতি রুখতে চিফ ভিজিল্যান্স অফিসাররাই কমিশনের হাতিয়ার।

*কমিশনের পর্যবেক্ষণে উঠে এসেছে যে, তদন্ত রিপোর্ট পৌঁছানোর ক্ষেত্রে কোনও নির্দিষ্ট নিয়ম মানা হচ্ছে না। ফলে তদন্তের বিষয়টি অযৌক্তিকভাবে বিলম্বিত হয় ও অভিযোগের ভিত্তিতে সময়োপযোগী ব্যবস্থা গ্রহণ করা সম্ভব হয় না। নির্দেশে বলা হয়েছে, ‘রিপোর্ট জমায় দেরি করার জন্য একাধিক ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে চিফ ভিজিল্যান্স অফিসাররা কোনও যুক্তি খাড়া করতে পারেননি।’ Read in English

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

সংসদ ভবনের অ্যানেক্স বিল্ডিংয়ে ছ’তলায় আগুন

সমসদ ভবনে শর্ট সার্কিট থেকেই আগুন লেগেছে বলে প্রাথমিক অনুমান।

সোমবার সকালে সংসদ ভবনের অ্যানেক্স বিল্ডিংয়ের ছ’তলায় আগুন লাগে। সকাল সাড়ে সাতটায় খবর যায় দমকলে। সঙ্গে সঙ্গেই দমকলের সাতটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। শর্ট সার্কিট থেকেই আগুন লেগেছে বলে প্রাথমিক অনুমান। পরে দমকলের ঘন্টাখানের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

*বর্তমানে স্বাস্থ্য বিধি মেনে বাদল অধিবেশনের প্রস্তুতিতে ব্যস্ত রাজ্যসভার সচিবালয়। আগামী সপ্তাহের মধ্যেই সমস্ত পরীক্ষানিরীক্ষা, মহড়া এবং চূড়ান্ত পরিদর্শনের কাজ শেষ হবে বলে জানানো হয়েছে। ৮৫ ইঞ্চির চারটি বড় এলসিডি স্ক্রিন বসবে চেম্বারে, ৪০ ইঞ্চির ছোট ছ’টি স্ক্রিন গ্যালারিতে বসানো হবে, সেই স্ক্রিনে সংসদদের কাজ লাইভ দেখানো হবে। থাকবে ওয়েবক্যাম, যার মাধ্যমে সরাসরি কথা বলা যাবে। অংশগ্রহণ করা যাবে আলোচনা পর্বেও। রাজ্যসভার ভিতরে জীবাণু এবং ভাইরাস ধ্বংস করতে অতিবেগুনি ইর‍্যাডিয়েশন সিস্টেম বসানোরও প্রস্তাব রয়েছে।

*করোনা সংক্রমণের জেরে মার্চ মাস থেকেই স্থগিত হয়ে রয়েছে লোকসভা ও রাজ্যসভার অধিবেশন। এবার ২৩ সেপ্টেম্বরের আগেই বাদল অধিবেশন শুরু করতে হবে। কারণ নিয়ম অনুযায়ী, দুই অধিবেশনের মধ্যে ৬ মাসের বেশি ব্যবধান রাখা যাবে না। Read in English

দেশের সব গুরুত্বপূর্ণ খবর পড়ুন এই প্রতিবেদনে

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the General News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

India top news national today latest news update 17 august 2020 india modi bjp congress jammu kashmir

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
করোনা আপডেট
X