scorecardresearch

বড় খবর

বিপাকে সিসোদিয়া, লুকআউট নোটিস জারি, বিদেশভ্রমণেও নিষেধাজ্ঞা!

শুক্রবার দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়ার বাসভবনে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই অভিযান চালিয়েছে।

বিপাকে সিসোদিয়া, লুকআউট নোটিস জারি, বিদেশভ্রমণেও নিষেধাজ্ঞা!
সিসোদিয়া বলেন, বিজেপি চক্রান্ত করে "দেশের উন্নয়ন" কে আটকাতে পারবে না।

মদ কেলেঙ্কারিতে আরও চাপে দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মনীশ সিসোদিয়া। সিসোদিয়ার বাড়িতে সিবিআই হানা নিয়ে সরগরম দিল্লির রাজনীতি। এর মধ্যেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বোমা ফাটিয়ে সিসোদিয়া বলেন, “ভাল কাজের পুরস্কার হিসাবে আগামী ২-৩ দিনের মধ্যেই আমাকে গ্রেফতারও করতে পারে সিবিআই”! অবশেষে সিসোদিয়ার বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিস জারি করল সিবিআই। সূত্রের খবর সিবিআই দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মনীশ সিসোদিয়া সহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে একটি লুক আউট নোটিস জারি করেছে। সেই সঙ্গে বিদেশ ভ্রমণেও রয়েছে নিষেধাজ্ঞা। এদিকে লুকআউট নোটিস প্রসঙ্গে সিসোদিয়া প্রথম প্রতিক্রিয়ায় বলেন, “আমাকে খুঁজে পাচ্ছেনা কেন্দ্র! আমাকে বলুন কোথায় আমাকে আসতে হবে”। একটি টুইট বার্তায় তিনি লেখেন, “অভিযানে কিছুই পাননি, এখন আমাকে জব্দ করতে লুক আউট নোটিস জারি করা হয়েছে, কেন্দ্রের নাটক দেখে আমি অবাক”।

 বিশেষ করে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে কেজরিওয়াল সরকারের “ভাল কাজ” বন্ধ করার চেষ্টা করার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে সরাসরি আক্রমণ করে, সিসোদিয়া একটি সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন “আমরা ভয় পাই না” এবং “পরবর্তী নির্বাচন”  হবে মোদী বনাম অরবিন্দ কেজরিওয়াল”! এই লুক-আউট নোটিস অগ্রাহ্য করে বিদেশ যাওয়ার চেষ্টা করলে সিসোদিয়াকে আটক করা হতে পারে বলেও সূত্রের দাবি। এই মামলায় সিবিআই যে  এফআইআর দায়ের করেছে, তাতে ১৫ জনের নাম থাকলেও মূল অভিযুক্ত সিসোদিয়াই।

শুক্রবার দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়ার বাসভবনে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই অভিযান চালিয়েছে। সেই সঙ্গে অভিযান চালানো হয়েছে আরও ৩০টি জায়গায়।  তার মধ্যেই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আম আদমি পার্টির (আপ) সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়াল জনসাধারণকে অভিনন্দন জানিয়ে সংবাদমাধ্যমে একটি ভাষণ দেন। দিল্লির শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নতির জন্য আপ সরকারের প্রচেষ্টা নিয়ে নিউইয়র্ক টাইমসের প্রথম পাতায় প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। সেই কারণেই জনগণকে অভিনন্দন জানান কেজরিওয়াল।

আরও পড়ুন: [ হিমাচলে হড়পা বানে তলিয়ে মৃত কমপক্ষে ২৫, ভারী বৃষ্টিতে জনজীবন বিপর্যস্ত ওড়িশায় ]

পাশাপাশি, সিসোদিয়ার বাড়িতে সিবিআই অভিযান নিয়েও তিনি মুখ খোলেন। কেজরিওয়াল স্পষ্ট জানান যে সিসোদিয়ার বিরুদ্ধে সিবিআইয়ের অভিযান প্রত্যাশিতই ছিল। কারণ, তাঁর দল আম আদমি পার্টি ক্রমশই নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন বিজেপির কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে উঠেছে। তাই রাজনৈতিক ভাবে না-পেরে, প্রশাসনিক ভাবে প্রতিদ্বন্দ্বীকে কাবু করতে সিবিআইকে কাজে লাগাচ্ছে মোদী সরকার। কিন্তু, তাঁর দল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকে ব্যবহার করে বিজেপির এভাবে দমন-পীড়নের চেষ্টা গ্রাহ্য করছে না। ভয় পাচ্ছে না। লড়াই থেকে পিছপা হতে নারাজ বলেই জানিয়েছেন কেজরিওয়াল।

যদিও বিজেপিকে আক্রমণের প্রেক্ষিপ্তে বিজেপিও আপের বিরুদ্ধে পাল্টা আক্রমণ শানিয়েছে। দলের পক্ষ থেকে এদিন এক সাংবাদিক সম্মেলনে কেজরিওয়ালকে “মদ কেলেঙ্কারির রাজা” বলেও অভিহিত করা হয়। সেই সঙ্গে বলা হয়েছে সিবিআই হানাকে রাজনৈতিক আক্রমণ বলে অভিহিত করে আপ সরকার আসলে আসলে নিজেদের দুর্নীতি ঢাকার চেষ্টা করছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর,  লোকসভার সদস্য মনোজ তিওয়ারি এবং দিল্লি বিজেপির প্রধান আদেশ গুপ্ত এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে আপ সরকারকে তুলোধোনা করে বলেন, “ “মণীশ সিসোদিয়া এখন তার নামের বানানও পরিবর্তন করেছেন। এখন এটা মানি শহ”।

অন্যদিকে সিসোদিয়া বলেন, বিজেপি চক্রান্ত করে “দেশের উন্নয়ন” কে আটকাতে পারবে না। তিনি আরও বলেন সিবিআই অনুসন্ধানগুলি “দুর্নীতি দূর করার লক্ষ্য নয়” তবে এটি “কেজরিওয়ালের উত্থানকে রুখে দেওয়ার একটা প্রচেষ্টা মাত্র”। সম্প্রতি এক টুইট বার্তায় দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল লিখেছেন, “ সিসোদিয়ার সঙ্গে দু’দিনের জন্য তিনি গুজরাট সফর করবেন এবং শিক্ষা, স্বাস্থ্য মডেল নিয়ে সেখানকার যুবকদের সঙ্গে তিনি কথা বলবেন”।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Look out circular issued against manish sisodia in delhi excise policy case barred from travelling abroad