‘প্রেসিডেন্ট দেশ ছাড়তেই বুঝেছিলাম সব আশা শেষ’, বললেন আফগান সাংসদ আনারকলি

রবিবার বায়ুসেনার বিশেষ বিমানে কাবুল থেকে ভারতে এসে আশ্রয় নিয়েছেন আফগানিস্তানের এই সাংসদ৷

Lost all hope after President Ghani fled, says Afghan MP Anarkali Kaur Honaryar
দিল্লিতে আফগানিস্তানের সাংসদ আনারকলি কৌর হোনারইয়ার৷

তালিবানিদের দখলে আফগানিস্তান৷ প্রাণ ভয়ে বিদেশিদের পাশাপাশি দেশ ছেড়ে পালাচ্ছেন আফগানরাও৷ রবিবার ভারতীয় বায়ুসনার বিমানে দেশ ছেড়েছেন আফগান সাংসদ আনারকলি কৌর হোনারইয়ার৷ আনারকলি হলেন আফগানিস্তানের প্রথম অ-মুসলিম মহিলা সাংসদ৷ প্রায় এক দশক ধরে সাংসদ পদে রয়েছেন এই মহিলা৷ একরাশ অভিমান, ক্ষোভ নিয়ে দেশ ছাড়তে একপ্রকার বাধ্য হয়েছেন তিনি৷ আফগান সাংসদ বলেন, ‘‘ওখানকার পরিস্থিতি বদলের পরেও প্রথম দেশ ছাড়ব ভাবিনি৷ তবে প্রেসিডেন্ট ঘনি দেশ ছেড়ে পালাতেই বুঝে যাই যে সব আশা শেষ হয়ে গেছে৷’’

আমেরিকান সেনা আফগানিস্তান ছাড়ার কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই গোটা দেশ কব্জায় নিয়েছে তালিবান৷ আবারও ২০ বছর আগেকার তালিবানি শাসন ফিরেছে আফগান মুলুকে৷ এখনকার তালিবান আরও বেশি শক্তিশালী, আরও বেশি হিংস্র, এমনই দাবি আফগান সাংসদ আনারকলি কৌরের৷ ভারতে আশ্রয় নেওয়া এই মহিলা রাজনীতিবিদ বলেন, ‘‘আমি ও আমার পরিবার ২০ বছর আগেকার তালিবান শাসনও দেখেছি৷ কিন্তু এখনকার পরিস্থিতি সম্পূর্ণ ভিন্ন৷ এখন ওরা আরও বেশি শক্তিশালী৷ ওরা আমাদের আর থাকতে দিতে চায় না৷’’

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে আফগান সাংসদ আনারকলি কৌর হোনারইয়ার বলেন, ‘‘আমার দাদু ও বাবা তাঁদের গোটা জীবন আফগানিস্তানে কাটিয়েছেন৷ আমার বাবা একজন ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে তাঁর কর্মজীবন শুরু করেছিলেন৷ তিনি নির্বাচন কমিশনের সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন৷ আমি ও আমার অন্য ভাইবোনরা ওখানে সরকারের হয়ে কাজ করতাম৷’’ দেশের অন্য অংশগুলি দখলের পরে তালিবানরা যখন কাবুলে ঢুকে পড়ল তখনও দেশ ছাড়ার কথা ভাবেননি এই আফগান তরুণী৷ তিনি বলেন, ‘‘এসব যখন শুরু হল, তখনও দেশ ছাড়ার কোনও পরিকল্পনা ছিল না৷ কিন্তু খুব তাড়াতাড়ি সব বদলে গেল৷ আমার মা আমাকে নিয়ে খুব উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছিলেন৷ মা ভেবেছিলেন তালিবানরা আমাকে ছাড়বে না৷ আমরা সব কিছু হারিয়ে ফেলেছি৷’’

আরও পড়ুন- উদ্ধবকে চড় মারার হুমকি, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নারায়ণ রানের বিরুদ্ধে ৩টি FIR দায়ের

কাবুলে থাকাকালীনও আনারকলি ও তাঁর পরিবার ভেবেছিলেন আন্তর্জাতিক স্তর থেকে সাহায্য মিলবে৷ তাঁরা আফগানিস্তানেই থাকতে পারবেন৷ তবে ১৫ অগাস্ট প্রেসিডেন্ট ঘনি দেশ ছাড়তেই তাঁরা মুষড়ে পড়েন তাঁরা৷ তখনই সাংসদ ও তাঁর পরিবার বুঝে যায় যে সব আশা শেষ৷ তারই কয়েকদিন আগে সংসদে প্রসিডেন্ট ঘনিকে দেখেছিলেন আনারকলি৷ তালিবানের বিরুদ্ধে ঘনি ঐক্যবদ্ধভাবে সাংসদদের নিয়ে প্রতিবাদ গড়ে তুলবেন বলে ভেবেছিলেন এই সাংসদ৷

তিনি বলেন, ‘‘সংসদে থাকাকালীন একদিন আগেও প্রেসিডেন্টকে দেখেছিলাম৷ আমি ভেবেছিলাম আমরা শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য কিছু করব৷ প্রত্যেক সাংসদের কাছে তালিবানি হামলা নিয়ে ফোনে সবাই অভিযোগ জানাচ্ছিলেন৷ সংসদ থেকে বেরিয়ে গাড়িতে ফেরার সময়েও লোকজনকে রাস্তা দিয়ে উদভ্রান্ত হয়ে ছুটতে দেখেছিলাম৷’’ দেশ ছেড়ে আপাতত ভারতে আশ্রয় নিলেও আবারও আফগানিস্তানেই ফিরতে চান আনারকলি কৌর হোনারইয়ার৷ আফগানিস্তানে শেষ হোক তালিবানি-রাজ৷ ফিরুক শান্তি৷ এখন এই একটাই প্রার্থনা আফগানিস্তানের এই সাংসদের৷

Read full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Lost all hope after president ghani fled says afghan mp anarkali kaur honaryar

Next Story
উদ্ধবকে চড় মারার হুমকি, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নারায়ণ রানের বিরুদ্ধে ৩টি FIR দায়ের
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com