বড় খবর

আইএস যোগে এবার মহারাষ্ট্র এটিএসের হাতে ধৃত এক কিশোর-সহ ৯

আইএস যোগের অভিযোগে ৪ সন্দেহভাজনকে পাকড়াও করা হয়েছে ঔরঙ্গাবাদ থেকে। বাকি ৫ জনকে ধরা হয়েছে মুম্বই থেকে।

is, আইএস
আইএস যোগ সন্দেহে ৯ জনকে গ্রেফতার করল মহারাষ্ট্র এটিএস। প্রতীকী ছবি।

দেশে আইএস কার্যকলাপ রুখতে জোরকদমে চলছে ধরপাকড়। আইএস যোগ সন্দেহে এবার মহারাষ্ট্র সন্ত্রাস দমন শাখার হাতে ধরা পড়ল ৯ জন। ধৃতদের মধ্যে রয়েছে এক ১৭ বছরের কিশোরও। মহারাষ্ট্র এটিএস সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই ৯ জনের উপর বেশ কয়েকদিন ধরেই নজর রাখা হচ্ছিল। ওই ৯ জনকে ধরতে মুম্বই, থানে, ঔরঙ্গাবাদ-সহ ৫টি এলাকায় তল্লাশি অভিযান চালায় মহারাষ্ট্র এটিএস।

আইএস যোগের অভিযোগে ৪ সন্দেহভাজনকে পাকড়াও করা হয়েছে ঔরঙ্গাবাদ থেকে। বাকি ৫ জনকে ধরা হয়েছে মুম্বই থেকে। মহারাষ্ট্র এটিএস সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত ৯ জনের থেকে বেশ কিছু রাসায়নিক, মোবাইল ফোন, হার্ড ড্রাইভ, অ্যাসিডের বোতল, ধারালো ছুরি ও সিম কার্ড উদ্ধার করা হয়েছে। ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২০ বি(অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র), ইউএপিএ ধারা ও বম্বে পুলিশ আইনে ধৃতদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে। উল্লেখ্য, ধৃতদের মধ্যে রয়েছে দুই ভাই। এক বন্ধুর বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বেঙ্গালুরু গিয়েছিল তারা। গত রবিবার সেখান থেকেই তারা ফেরে বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন, আইএস মডিউলের তদন্তে এনআইএ-র হাতে পাকড়াও আরও এক

অন্যদিকে, গত সপ্তাহে আইএস মডিউলের তদন্তে নেমে এক ২৪ বছরের যুবককে পাকড়াও করেছিল এনআইএ। আইএস মডিউলে অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগে গত ৫ জানুয়ারি ২১ বছর বয়সী আরেক যুবককে পাকড়াও করে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা। এর আগে দেশে আইএসের বিরুদ্ধে তদন্তে নেমে জোর ধরপাকড় শুরু করেছিল এনআইএ। গত ২৬ ডিসেম্বর দেশের ১৭টি জায়গায় তল্লাশি অভিযান চালায় এনআইএ। সেই অভিযানে প্রচুর পরিমাণে অস্ত্রশস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধার করে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা। এনআইএ সূত্রে জানা গিয়েছিল, সেসময় ২৫ কেজি বিস্ফোরক, ১৫০ রাউন্ড গুলি, ১২টি পিস্তল, ১১২টি অ্যালার্ম ক্লক, বিদ্যুতের তার, ৯১টি মোবাইল ফোন, ৩টি ল্যাপটপ, ছুরি, ১৩৪টি সিমকার্ড ও নগদ ৭.৫ লক্ষ টাকা উদ্ধার করা হয়েছিল।

Read the full story in English

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Maharashtra ats for isis links nine arrested

Next Story
অধ্যাপক নিয়োগে বিভাগ অনুযায়ী সংরক্ষণ নীতি অনুসরণের পক্ষে সুপ্রিম রায়supreme court, সুপ্রিম কোর্ট
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com