scorecardresearch

জেএনইউকাণ্ড ‘রাষ্ট্রদ্রোহিতা’ নয়, দিল্লি পুলিশের আর্জি খারিজ করে জানাল কেজরি সরকার

রাষ্ট্রদ্রোহিতার অপরাধে অভিযুক্ত দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র সংসদ সভাপতি কানাইয়া কুমার সহ অন্য শিক্ষার্থীরা। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলার করার অনুমোদন চেয়ে কেজরিওয়াল সরকারের কাছে আবেদন করে দিল্লি পুলিশ। তবে সেই আবেদন খারিজ করেছে দিল্লি সরকার।

জেএনইউকাণ্ড ‘রাষ্ট্রদ্রোহিতা’ নয়, দিল্লি পুলিশের আর্জি খারিজ করে জানাল কেজরি সরকার
কানাইয়া কুমার

রাষ্ট্রদ্রোহিতার অপরাধে অভিযুক্ত জেএনইউ-এর প্রাক্তন ছাত্র সংসদ সভাপতি কানাইয়া কুমার সহ অন্য শিক্ষার্থীরা। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলার করার অনুমোদন চেয়ে কেজরিওয়াল সরকারের কাছে আবেদন করে দিল্লি পুলিশ। তবে সেই আবেদন খারিজ করেছে দিল্লি সরকার। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস সূত্রে এমনটাই জানা যাচ্ছে।

দিল্লি স্বরাষ্ট্র দফতরের ধারণা, ২০১৬ সালের ৯ই ফেব্রুয়ারি জেএনইউ-এর ক্যাম্পাসে যে ঘটনা ঘটেছিল সেখানে কানাইয়াদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অপরাধ তেমন গুরুতর নয়। চলতি মাসের ১৮ তারিখ এই সংক্রান্ত মামলাটি আদালতে ওঠার কথা রয়েছে।

আরও পড়ুন: এসি নেই, ফ্যান-কম্বলে তিহারযাপন চিদাম্বরমের

কানায়ার কার্যকলাপে রাষ্ট্রদ্রোহিতা ও রাষ্ট্রের সার্বভৌমত্বের উপর আঘাত আনার মতো কোনও কারণ নেই। মামলাটিতে আইপিসির অধীন ১২৪ ধারা অনুযায়ী অভিযুক্ত ১০ জনের বিরুদ্ধে যে চার্জশিট দেওয়া হয়েছে তা সেই মানের নয়। সম্পূর্ণ বিষয়টিই ‘অন্যায্য’। জানিয়েছেন দিল্লি স্বরাষ্ট্র দফতরের এক আধিকারিক। যদিও এই বিষয়ে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিনিধির ফোন বা এসএমএসে কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি দিল্লির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন ও সংশ্লিষ্ট দফতরের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি রানু শর্মা। তবে স্বরাষ্ট্র দফতরের এক আধিকারিকের কথায়, ‘পুলিশের রিপোর্টের ভিত্তিতেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

বসন্ত কুঞ্জ (উত্তর) থানায় দায়ের করা এফআইআর-এ উল্লিখিত আইপিসি ধারা অনুযায়ী অভিযোগ আনা হচ্ছে , ধারা ১৯৬ সিআরপিসির আওতায় মামলার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপের জন্য উপযুক্ত কর্তৃপক্ষের অনুমোদন প্রয়োজন। তবে, রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগের মামলায় অনুমোদন না নিয়ে অভিযোগপত্র দাখিল করার ক্ষেত্রে পুলিশের ‘জরুরী অবস্থা’ কার্যকর নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে দিল্লির স্বরাষ্ট্র দফতর। দফতর জানিয়েছে যে, অভিযোগপত্র দাখিল করার জন্য পুলিশ পরে অনুমোদন চেয়েছিল।

আরও পড়ুন: Chandrayaan 2 Landing: চন্দ্রযান ২: শেষ পনেরো মিনিটই ভাবাচ্ছে ইসরোকে

দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে যে জেএনইউ-এর ছাত্র কানাইয়া সহ ১০ পড়ুয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করার এক ঘন্টা আগে পুলিশ অনুমোদনের জন্য আবেদন করেছিল। তারা জানিয়েছে, 2016 সালের ইভেন্ট চলাকালীন যে স্লোগানগুলি শোনা গিয়েছিল তার জন্য পড়ুয়াদের অভিযুক্ত বলে জন্য দায়ী করা যায় না।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে জেএনইউ ক্যাম্পাসে একটি অনুষ্ঠান চলাকালীন দেশবিরোধী শ্লোগান দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। তারপরই দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র নেতা কানাইয়া কুমার সহ ১০ পড়ুযার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ আনা হয়। দিল্লি সরকারের দাবি, মামলা আইপিসি ১২৪ এর ​​অধীনে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে পর্যাপ্ত প্রমাণ দাখিল সম্ভব হয়নি। এমনকি ভিডিওতেও তা প্রামাণ করতে ব্যর্থ হয়েছে পুলিশ।

Read the full story English 

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: No sedition in jnu case says delhi govt