scorecardresearch

বড় খবর

২৫ মামলার শুনাননিতে গঠিত পাঁচ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চ!

বিচারপতি ইউ ইউ ললিত প্রধান বিচারপতি হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার দুই দিন পর ২৯ আগস্ট থেকে পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চের সমন্বয়ে ২৫ টি মামলার শুনানি শুরু হবে৷

২৫ মামলার শুনাননিতে গঠিত পাঁচ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চ!
সর্বোচ্চ আদালত ২৫টি মামলার শুনানির জন্য একটি পাঁচ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চ গঠন করেছে

সুপ্রিম কোর্ট বুধবার বিজ্ঞাপিত করেছে যে বিচারপতি ইউ ইউ ললিত প্রধান বিচারপতি হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার দুই দিন পর ২৯ আগস্ট থেকে পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চের সমন্বয়ে ২৫ টি মামলার শুনানি শুরু হবে৷

প্রধান বিচারপতি এনভি রমনা ২৬ আগস্ট অবসর নেবেন এবং বিচারপতি ললিত ২৭ আগস্ট থেকে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন। ২৯শে আগস্ট সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি হিসেবে বিচারপতি ললিতের প্রথম কার্যদিবস হিসাবে বিবেচিত হবে।

সুপ্রিম কোর্টের তরফে থেকে জারি করা নোটিশ অনুযায়ী, পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চে কিছু সময়ের জন্য বিচারাধীন ২৫টি বিষয়ে শুনানি শুরু হবে সোমবার থেকে।

আদালত ২৫ টি মামলার প্রাথমিক শুনানির জন্য একটি পাঁচ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চ গঠন করেছে, যার মধ্যে নোটবন্দীকরণ এবং অর্থনৈতিকভাবে দুর্বলদের জন্য সংরক্ষণ রয়েছে। আগামী সপ্তাহ থেকে এই বেঞ্চে শুনানি হবে। বিচারপতি ইউ ইউ লালিল প্রধান বিচারপতি (সিজেআই) হওয়ার দু’দিন পরে এই বেঞ্চ তার কাজ শুরু করবে।

সুপ্রিম কোর্ট বুধবার ২৫ টি মামলা বাছাই করেছে যেগুলির শুনানি পরবর্তী পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চে শুরু হবে। আগামী সপ্তাহ, ২৯ আগস্ট থেকে সুপ্রিম কোর্টের ২৫টি সাংবিধানিক বেঞ্চ মামলার প্রাথমিক শুনানি শুরু করবে, যার মধ্যে বহুবিবাহের সাংবিধানিক বৈধতা, নিকাহ হালালা এবং অন্যান্য সম্পর্কিত মুসলিম বিবাহ প্রথা, অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল বিভাগে সংরক্ষণ (EWS), WhatsApp গোপনীয়তা নীতির মতো বিষয় রয়েছে। পাঞ্জাবের শিখদের সংখ্যালঘু মর্যাদা প্রদান এবং ২০১৬ এর নোটবন্দীকরণ নীতির চ্যালেঞ্জও এর মধ্যে অর্ন্তভুক্ত রয়েছে।

আরও পড়ুন: [ পড়া না পারায় ক্লাসেই বেধড়ক মার, অজ্ঞান হয়ে হাসপাতালে ভর্তি দলিত পড়ুয়া ]

আদালত প্রশাসনের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত একটি নোটিশ অনুসারে, যে বিষয়গুলি পাঁচ বিচারকের সাংবিধানিক বেঞ্চের দ্বারা শুনানি হবে সেগুলি সাধারণ সংকলন ফাইল করা, সংক্ষিপ্ত লিখিত দাখিল করা এবং সময়ের সঙ্গে সম্পর্কিত অস্থায়ী ইঙ্গিত সহ নির্দেশাবলীর জন্য তালিকাভুক্ত করা হবে।

১ লা আগস্ট পর্যন্ত, মোট ৪৯২ টি সাংবিধানিক বেঞ্চের বিষয়, যার মধ্যে ৫৩ টি প্রধান মামলা রয়েছে যার মধ্যে আইন এবং সাংবিধানিক ব্যাখ্যার গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন রয়েছে, শীর্ষ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। ৪৯২ টি মামলার মধ্যে ৩৪২ টি পাঁচ বিচারকের বেঞ্চের বিষয়, যার মধ্যে ৪১টি প্রধান মামলা রয়েছে। সাত বিচারপতির বেঞ্চের বিবেচনায় মামলার সংখ্যা সাতটি প্রধান এবং আটটি সংযুক্ত বিষয়। নটি বিচারকের বেঞ্চের সামনে পাঁচটি প্রধান এবং ১৩০ টি সংযুক্ত বিষয় বিচারাধীন রয়েছে ।

সংবিধানের ১৪৫(৩) অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে যে সংবিধানের ব্যাখ্যার ক্ষেত্রে আইনের গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন জড়িত এমন মামলাগুলির ন্যূনতম পাঁচজন বিচারকের দ্বারা সিদ্ধান্ত নেওয়া প্রয়োজন। একবার সিদ্ধান্ত নেওয়া হলে, এই মামলাগুলি আইনের বিতর্কিত প্রশ্নগুলির নজির হিসাবে কাজ করে এবং প্রাসঙ্গিক বিষয়গুলির উপর ভবিষ্যতের রায় নির্দেশ করে। এই মামলার ফলাফলগুলি আর্থ-সামাজিক-রাজনৈতিক প্রভাব আনতে পারে, নতুন অধিকার এবং নীতিতে পরিবর্তন আনতে পারে।

উপরে উল্লিখিত বিষয়গুলি ছাড়াও, ২৯ শে আগস্ট থেকে পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চের সামনে আসা মামলাগুলির তালিকার মধ্যে রয়েছে সংরক্ষণ সংক্রান্ত আইনি সমস্যাগুলি। অ্যাংলো ইন্ডিয়ান, তফসিলি জাতি এবং তফসিলি উপজাতি সম্প্রদায়ের জন্য লোকসভা এবং রাজ্য বিধানসভার আসন। অন্ধ্রপ্রদেশের আইনের বৈধতা যা রাজ্যের মুসলিম সম্প্রদায়ের সকল সদস্যকে “অনগ্রসর শ্রেণীর” অংশ হিসাবে ঘোষণা করেছে তাও পাঁচ বিচারকের বেঞ্চের সামনে উপ্সথাপন করা হবে।

১৫ আগস্ট, ভারতের প্রধান বিচারপতি এনভি রমনা সুপ্রিম কোর্টে ক্রমবর্ধমান অমীমাংসিত মামলার কথা স্বীকার করে বলেছেন, কোভিড মহামারী এবং লকডাউনের জন্য ক্রমবর্ধমান সংখ্যাকে দায়ী।

স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের জন্য সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন (এসসিবিএ) আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করে, সিজেআই বলেছিলেন “গত ১৬ মাসে, আমরা মাত্র ৫৫ দিনের জন্য শারীরিকভাবে একত্রিত হতে পেরেছি। মহামারী পরিস্থিতি না থাকলে আমি আশা করি পরিস্থিতি অন্যরকম হত এবং আমরা আরও বেশি মামলার শুনানি করতে পারতাম। মানুষের উচ্চ প্রত্যাশা থাকাটা ন্যায্য এবং স্বাভাবিক, কিন্তু দুঃখজনকভাবে, প্রাকৃতিক পরিস্থিতি আমাদের প্রতিকূলে ছিল”।  বিচারপতি রমনা আরও বলেন, , তিনি আশা করেন যে অদূর ভবিষ্যতে পরিস্থিতির উন্নতি হবে যাতে আদালতগুলি তাদের পূর্ণাঙ্গভাবে কাজ করতে পারে।

সুপ্রিম কোর্টে বর্তমানে অন্তত ৭১,৪০০ মামলা বিচারাধীন রয়েছে। ২০২১ সালের এপ্রিলে বিচারপতি রমনা যখন সিজেআই হিসাবে দায়িত্ব নেন, তখন ৬৭ হাজারের বেশি মামলা নিষ্পত্তির অপেক্ষায় ছিল।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Noteban among 25 cases to be heard by 5 judge benches