scorecardresearch

বড় খবর

যুদ্ধ নিয়ে মোদীর মনোভাবের ঢালাও প্রশংসা ব্রিটেনের, ভারতের পাশে থাকার বার্তা

এবার সরাসরি মোদীর এই যুদ্ধনীতি নিয়ে মুখ খুললেন ব্রিটিশ বিদেশমন্ত্রী জেমস ক্লেভারলি।

যুদ্ধ নিয়ে মোদীর মনোভাবের ঢালাও প্রশংসা ব্রিটেনের, ভারতের পাশে থাকার বার্তা
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

যুদ্ধ নিয়ে মোদীর মনোভাবের ঢালাও প্রশংসা ব্রিটেনের। ব্রিটিশ বিদেশমন্ত্রী জেমস ক্লেভারলি বলেছেন, ‘লন্ডন আশা করে যে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন শান্তির পক্ষে যুক্তিসঙ্গত সেই সকল দেশের কথা শুনবেন যারা অবিলম্বে রাশিয়া-ইউক্রেন সংঘাত বন্ধের পক্ষে জোরালো সওয়াল করেছেন’।

হালকা চালে পুতিনকে কড়া বার্তাতেই কেল্লাফতে! বিশ্ব মঞ্চে একাধিক দেশ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ। সদ্য আয়োজিত এসসিও সামিটে শান্তির বার্তা দিয়ে যুদ্ধ নিয়ে পুতিনকে কড়া বার্তা দিয়ে বিশ্বের একাধিক দেশের কাছে প্রশংসা আদায় করে নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এবার সরাসরি মোদীর এই যুদ্ধনীতি নিয়ে মুখ খুললেন ব্রিটিশ বিদেশমন্ত্রী জেমস ক্লেভারলি।

তিনি বলেন, “২২তম এসসিও শীর্ষ সম্মেলন যুদ্ধ নিয়ে পুতিনকে যে বার্তা মোদী দিয়েছেন তা যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ”। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২২তম এসসিও শীর্ষ সম্মেলন শুক্রবার রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে দেখা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দুই রাষ্ট্রনেতার মধ্যে একটি ইতিবাচক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এবং দুজনের মধ্যে ইউক্রেন যুদ্ধসহ একাধিক বিষয়ে আলোচনা হয়েছে এই বৈঠকে। এর মাঝেই মোদী-পুতিনকে বলেন, “এখন যুদ্ধের সময় নয়”! মোদীর এই কড়া অবস্থানে রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন বলেন, “আমি জানি ইউক্রেনের যুদ্ধ নিয়ে আপনার অবস্থান, আপনার উদ্বেগ!  আমরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এই যুদ্ধ বন্ধ করার জন্য আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করব”।

যুদ্ধ নিয়ে পুতিনকে হালকা চালে কড়া বার্তা দিতেই আমেরিকা সহ বিশ্বের একাধিক দেশের মন জিতে নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। ব্রিটিশ বিদেশমন্ত্রী জেমস ক্লেভারলি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসা করে বলেছেন  “বিশ্ব মঞ্চে প্রধানমন্ত্রী মোদীর শক্তিশালী ও প্রভাবশালী কণ্ঠ রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধের একটা ইতিবাচক পথ খুলে দেবে। যুদ্ধ নিয়ে মোদীর অবস্থান প্রশংসনীয় যারা শান্তির পক্ষে সওয়াল করছেন তাদের কাছে মোদীর এই বার্তা বিশেষ ভাবেই তাৎপর্যপূর্ণ। যুদ্ধ নিয়ে মোদীর এই মনোভাবকে আমরা স্বাগত জানাচ্ছি”।

আরও পড়ুন : [ কলকাতা সহ দেশের প্রায় ৫০ জায়গায় হানা, NIA-এর জালে PFI-এর শ’খানেক কর্মী ]

তিনি আরও বলেন, ‘রাশিয়া-ইউক্রেনের সংঘর্ষে প্রচুর নিরীহ মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।  যুদ্ধের কারণে বিশ্বব্যাপী খাদ্য সংকট তৈরি হয়েছে। সেই কারণেই প্রধানমন্ত্রী মোদীর হস্তক্ষেপ গুরুত্বপূর্ণ। সেই সঙ্গে তিনি শান্তি রক্ষায় ভারতের পাশে থাকার আশ্বাসও দেন’ ।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Pm modi has influential voice on world stage