scorecardresearch

বড় খবর

বিদ্রোহের আবহে বড়দিনে মোদী-কৃষক কথা

তিন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে কৃষক বিদ্রোহের আবহে বড়দিনে ৬ রাজ্য়ের কৃষকদের সঙ্গে কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

বিদ্রোহের আবহে বড়দিনে মোদী-কৃষক কথা
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

কৃষকদের ক্ষোভ নিরসনে মরিয়া মোদী সরকার। তিন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে কৃষক বিদ্রোহের আবহে বড়দিনে ৬ রাজ্য়ের কৃষকদের সঙ্গে কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ওই দিন প্রধানমন্ত্রী কিষান সম্মান নিধি প্রকল্পের আওতায় ৯ কোটি কৃষকদের ব্য়াঙ্ক অ্য়াকাউন্টে ১৮ হাজার কোটি টাকা ডিজিট্য়াল মাধ্য়মে জমা করবেন মোদী। দিল্লি সীমানায় কৃষকদের আন্দোলনের আবহে যা উল্লেখযোগ্য় বলে মনে করছে সংশ্লিষ্ট মহলের একাংশ।

পিএমও-র তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘‘পিএম-কিষান নিয়ে নিজেদের অভিজ্ঞতার কথা জানাবেন কৃষকরা। সেইসঙ্গে কৃষকদের কল্য়াণার্থে সরকারের নেওয়া বিভিন্ন উদ্য়োগ সম্পর্কেও তাঁরা কথা বলবেন’’। ওইদিনের অনুষ্ঠানে থাকবেন কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর।

আরও পড়ুন: কৃষি আইন বাতিল না হলে বরিস যেন না আসেন, ব্রিটিশ শিখ সাংসদদের আর্জি কৃষকদের

উল্লেখ্য়, কৃষক বিদ্রোহের আবহে এর আগে একাধিকবার বার্তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। কৃষকদের উদ্দেশে মোদী বলেছিলেন, ‘‘কৃষকদের স্বার্থেই সংস্কার করা হচ্ছে। এর ফলে আরও অনেক অপশন পাবেন তাঁরা। নিজের পণ্য় ভাল দামে ও পরিকাঠামোয় সরাসরি বিক্রি করার স্বাধীনতা কি কৃষকদের দেওয়া উচিত নয়’’। কৃষি আইন নিয়ে বিরোধীরা অপপ্রচার চালাচ্ছেন বলেও সরব হতে দেখা গিয়েছে মোদীকে।

প্রসঙ্গত, কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে অনড় কৃষকরা। দিল্লি সীমানায় কৃষকদের বিক্ষোভ অব্য়াহত। কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে ভারত বনধ পালন করেন কৃষকরা। সেইসঙ্গে ৩২টি কৃষক ইউনিয়নের প্রধানরা অনশনে বসেন। একাধিকবার সরকারের সঙ্গে কৃষকরা আলোচনার টেবিলে বসলেও জট কাটেনি। এই প্রেক্ষিতে কৃষকদের ক্ষোভ মেটাতে নতুন করে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছে সরকার। কবে ফের বৈঠক হবে, সেজন্য় দিন নির্ধারণ করতে আহ্বান জানানো হয়েছে।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Pm modi to interact with farmers on dec 25 waiting for govt to come to table with open mind say unions