scorecardresearch

বড় খবর

ভারী বৃষ্টি-কনকনে ঠান্ডার জোড়া ফলা, দিল্লি সীমান্তে সমস্যা জেরবার কৃষকরা

“প্রকৃতি যতই রুষ্ট হোক, আমরা এখান থেকে নড়ছি না।”

ভারী বৃষ্টি-কনকনে ঠান্ডার জোড়া ফলা, দিল্লি সীমান্তে সমস্যা জেরবার কৃষকরা

নতুন বছরে অধিকারের দাবিতে আন্দোলনের ঝাঁজ বাড়ানোর কথা বললেও প্রকৃতি বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে কৃষকদের। গত এক মাস ধরে দিল্লি-হরিয়ানার সিংঘু সীমান্তে ঘাঁটি গেড়ে বসে আছেন কৃষকরা। কনকনে ঠান্ডা উপেক্ষা করে তাঁরা বসে আছেন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে। কিন্তু নতুন বছরে বৃষ্টি অন্তরায় হচ্ছে আন্দোলনের। দিল্লি সীমান্তে শনিবার রাতভর বৃষ্টির জেরে সমস্যায় পড়েছেন তাঁরা। জলে ভিজে চুপচুপে অবস্থা তাঁবু, কম্বল, জ্বালানির কাঠ। তার মধ্যে ঠান্ডার কামড়। একাধিক জায়গা জলমগ্ন হয়ে রয়েছে।

মূলত, অবস্থান বিক্ষোভের জায়গা গুলি বৃষ্টির জেরে জলমগ্ন হয়ে রয়েছে। ওয়াটারপ্রুফ তাঁবুও কাজে আসেনি। সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার কৃষক নেতা অভিমন্যু কোহার জানিয়েছেন, ওয়াটারপ্রুফ তাঁবু থাকলেও জমা জল এবং ঠান্ডার কামড়ে নিজেদের রক্ষা করতে পারছেন না কৃষকরা। তিনি জানিয়েছেন, বিক্ষোভস্থলে বৃষ্টির জলের জন্য অবস্থা খারাপ। তবুও তাঁদের আক্ষেপ, সরকার তাঁদের দুরাবস্থা দেখেও মুখ তুলে চাইছে না।

আরও পড়ুন প্রজাতন্ত্র দিবসে দিল্লির রাজপথ কাঁপাবে ‘কিষাণ প্যারেড’, ঘোষণা বিক্ষুব্ধ কৃষকদের

সিংঘু সীমান্তে অবস্থান করা গুরবিন্দর সিং জানিয়েছেন, বিভিন্ন জায়গা জলমগ্ন হয়ে রয়েছে। পুর পরিষেবা পর্যাপ্ত নয়। তবুও তিনি আশাবাদী, যতই বৃষ্টি হোক, কৃষকদের জেদ দমানো যাবে না। বলেছেন, “প্রকৃতি যতই রুষ্ট হোক, আমরা এখান থেকে নড়ছি না।” মৌসম ভবনের পূর্বাভাস অনুযায়ী, দিল্লি ও সংলগ্ন এলাকায় ভারী বর্ষণের জেরে তাপমাত্রার পারদ নিচে নেমেছে। তার উপর মেঘলা আকাশের জন্য রোদের অভাবে ঠান্ডার কামড় বাড়ছে। আগামী ৬ জানুয়ারি পর্যন্ত ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Rain waterlogging causes inconvenience to farmers protesting at delhi border