scorecardresearch

বড় খবর

নির্ভয়াকাণ্ডে আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতে তিন দোষী

ওই ব্যক্তির বাড়ি ফেরার খবর চাউর হতেই তুমুল আতঙ্ক তৈরি হয় গোটা এলাকা জুড়ে। ব্যক্তি জানিয়েছে যে তাঁর জ্বর হয়েছে, কিন্তু করোনায় আক্রান্ত কি না তা জানেন না।

nirbhaya, নির্ভয়া, নির্ভয়াকাণ্ড, নির্ভয়া ফাঁসি, delhi gangrape case, দিল্লিতে গণধর্ষণকাণ্ড, ২০১২ সালে গণধর্ষণ, december 2012 gangrape case, সুপ্রিম কোর্ট, sc on delhi gangrape convicts, delhi high court on december 2012 gangrape, indian express bangla
নির্ভয়াকাণ্ডের চার দোষী মুকেশ সিং, পবন গুপ্তা, বিনয় কুমার শর্মা, অক্ষয় সিং। ছবি: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

নির্ভয়াকাণ্ডে নয়া মোড়। ফাঁসি ঠেকাতে এবার আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতের দ্বারস্থ হল নির্ভয়ার তিন অপরাধী। মৃত্যুদণ্ডের সাজা বেআইনি বলে দাবি করে নিজেদের আইনজীবী মারফৎ আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতের দ্বারস্থ হল তিন দোষী বিনয় শর্মা, পবন গুপ্তা ও অক্ষয় সিং। জরুরি ভিত্তিতে শুনানির আবেদন জানিয়েছে তারা।

এদিকে, দিল্লি গণধর্ষণে সাজাপ্রাপ্ত মুকেশের সমস্ত আইনি প্রক্রিয়া ফিরিয়ে দেওয়ার আর্জি খারিজ সুপ্রিম কোর্টের। প্রসঙ্গত, আগামী ২০ মার্চ ভোর সাড়ে ৫টায় নির্ভয়ার চার অপরাধীর ফাঁসির কথা জানিয়ে দিয়েছিল আদালত। সেই সময়েই নির্ভয়াকান্ডে অন্যতম দোষী মুকেশ দাবি করেছিলেন যে তিনি তাঁর আইনজীবীদের দ্বারা বিভ্রান্ত হয়েছেন এবং মৃত্যুদণ্ডের বিরুদ্ধে আপিল করার জন্য আদালতের কাছে আবেদন চেয়েছিলেন। সেই আবেদনই এদিন নাকচ করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট।

আরও পড়ুন: করোনা জয় করলেন দিল্লির প্রথম আক্রান্ত

মুকেশ আদালতের দেওয়া সমস্ত আবেদন নাকচ করতে চেয়েছেন এবং পাশাপাশি রাষ্ট্রপতির দেওয়া প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজের বিষয়টি নিয়েও ফের আইনি প্রক্রিয়া চাওয়ার আবেদন করেন। মুকেশের বক্তব্য আর আগের আইনজীবী বৃন্দা গ্রোভার এই মামলাকে ভুল পথে চালিত করেছিল। পরবর্তীতে মুকেশের আইনজীবী এম এল শর্মার মাধ্যমে দায়ের করা হয় এই আবেদন। যেখানে বলা হয়েছে যে কেন্দ্র, দিল্লি সরকার এবং এই মামলার অ্যামিকাস কিউরিও আইনজীবী বৃন্দা গ্রোভারের দ্বারা ঘটনো হয়েছে “অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র” এবং “জালিয়াতি” এবং চাওয়া হয়েছে সিবিআই তদন্ত।

আরও পড়ুন: করোনার জের, ট্রেনের কামরায় থাকছে না কম্বল-পর্দা

বিচারপতি অরুণ মিশ্র এবং বিচারপতি এম আর শাহের একটি বেঞ্চ মুকেশের আবেদনের রিভিউ পিটিশন এবং কিউরেটিভ পিটিশনের আর্জি দুটি খারিজ করেছে। ইতিমধ্যেই তিহার জেল কর্তৃপক্ষ ফাঁসি দেওয়ার প্রস্তুতি শুরু করেছে। আধিকারিকেরা জানিয়েছেন, ফাঁসুড়ে পবন জল্লাদকে ১৭ মার্চ মিরাট থেকে তিহার আসতে বলা হয়েছে। দড়ি ও অন্যান্য সরঞ্জাম পরীক্ষা করার জন্য আগামী দুদিনে একটি ‘ডামি ফাঁসি’ প্রক্রিয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Sc dismisses december 16 gangrape convicts plea to restore his legal remedies