বড় খবর

চাঞ্চল্য়কর! চিনা শাসকদলের ৭ শাখার সঙ্গে ভারত-যোগ

ভারতের সঙ্গে কমপক্ষে ৭টি সিপিসি শাখার যোগ রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এই ৭ শাখায় ৯১ দলীয় সদস্য় রয়েছেন।

লাদাখ সীমান্তে সংঘাতের আবহে চাঞ্চল্য়কর তথ্য় সামনে এল। কমিউনিস্ট পার্টি অফ চায়নার (সিপিসি) কমপক্ষে ৭টি শাখার সঙ্গে ভারতের যোগ রয়েছে। কমপক্ষে চিনের শাসকদলের একজন সদস্য়কে চিনা রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন নিয়োগ সংস্থার পরিষেবা ব্য়বহার করে সাংহাইয়ে ভারতীয় কনস্য়ুলেট নিয়োগ করেছিল। এমন তথ্য়ই মিলেছে।

ভারতের সঙ্গে কমপক্ষে ৭টি সিপিসি শাখার যোগ রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এই ৭ শাখায় ৯১ দলীয় সদস্য় রয়েছেন। চিনা রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন নিয়োগ সংস্থার পরিষেবা ব্য়বহার করে ৩০টি বিদেশি কনস্য়ুলেট চিনা পেশাদারদের নিয়োগ করেছে। যার মধ্য়ে এক কর্মীকে নিয়োগ করেছে সাংহাইয়ে ভারতের কনস্য়ুলেট জেনারেল। গোপনীয়তার স্বার্থে ওই ব্য়ক্তির নাম, জন্মের তারিখ ও অন্য়ান্য় বিশদ বিবরণ তুলে ধরছে না ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। ২০১৪ সালের মাঝামাঝি সময় থেকে ২০১৭ সালের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত সাংহাইয়ে ভারতীয় কনস্য়ুলেটে কাজ করেছেন ওই স্থানীয় চিনা নাগরিক।

আরও পড়ুন: তবলিঘি জামাতকাণ্ডে খালাস ৩৬ বিদেশি, নির্দেশ দিল্লির আদালতের

সূত্র মারফত যে তথ্য় মিলেছে, তাতে জানা গিয়েছে, কমপক্ষে ৭৯ হাজার সিপিসি শাখা রয়েছে। ১.৯৫ মিলিয়নেরও বেশি সিপিসি সদস্য় সংখ্য়া রয়েছে। ব্য়াঙ্কিং, প্রতিরক্ষা, ফার্মাসিউটিকয়াল, ফিনান্সিয়াল সেক্টরে এই সিপিসি সদস্য়রা কর্মরত বলে জানা গিয়েছে। এএনজেড, এইচএসবিসি, ফাইজার, অ্য়াস্ট্রাজেনেকা, ভোক্সওয়াগন, বোয়িংয়ের মতো সংস্থাগুলিতে তাঁরা কর্মরত।

উল্লেখ্য়, কিছুদিন আগে দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে’র তদন্তমূলক প্রতিবেদনে উঠে এসেছিল চাঞ্চল্য়কর তথ্য়। চিনা তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা ঝেনহুয়া ভারতে নেতা-মন্ত্রী-সংবাদমাধ্যম থেকে শুরু করে প্রাক্তন আইএফএস অফিসার-সহ একাধিক কূটনীতিকদের তথ্যের উপরও নজর রাখছে। তৈরি করা হয়েছে বিশাল তথ্যভাণ্ডার। যা নিয়ে শোরগোল পড়ে যায়।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Seven branches of chinas ruling party have india link

Next Story
কৃষক বিদ্রোহে সরকারের অত্য়াচারের প্রতিবাদে আত্মঘাতী শিখ ধর্মগুরুPriest kills self near Singhu, শিখ ধর্মগুরুর আত্মহত্য়া
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com