বড় খবর

মায়েরা সব পারেন! দেখালেন উত্তরপ্রদেশের সেই কনস্টেবল

কাজ করতে গিয়ে ছোটো মেয়েকে দেখভালে যাতে কোনও অসুবিধে না হয়, সে কারণে ওই মহিলা কনস্টেবলকে তাঁর বাপেরবাড়ির এলাকায় বদলি করা হয়েছে।

uttar pradesh, উত্তরপ্রদেশ
সেই ভাইরাল হওয়া ছবি। ফাইল ছবি, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

পরনে খাকি উর্দি, একমনে কাজ করে চলেছেন। চেয়ারে বসে হাঁটুর উপর খাতা রেখে লেখালেখিতে ব্যস্ত তিনি। ডেস্ক রয়েছে ঠিকই। কিন্তু সেই ডেস্কে তখন ঘুমোচ্ছে তাঁরই ছোট্ট মেয়ে। পাশে রাখা ফিডিং বোতল। আর এমন ছবিই টুইট করেছেন উত্তরপ্রদেশের এক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাহুল শ্রীবাস্তব। যে ছবি মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। তবে এখানেই শেষ নয়, এমন ছবি সামনে আসার পরই নড়েচড়ে বসেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। ওই মহিলা কনস্টেবলের কাজ ও দায়িত্বের বহর দেখে মুগ্ধ হয়ে তাঁকে বদলির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কাজ করতে গিয়ে ছোটো মেয়েকে দেখভালে যাতে কোনও অসুবিধে না হয়, সে কারণে ওই মহিলা কনস্টেবলকে তাঁর বাপেরবাড়ির এলাকায় বদলি করা হয়েছে।

ওই মহিলা কনস্টেবলের নাম অর্চনা জয়ন্ত(৩০)। তিনি ঝাঁসির কোতওয়ালি কর্মরত ছিলেন। ছোটো শিশুকন্যাকে দেখভালের জন্যই তাঁকে তাঁর বাপেরবাড়ি আগ্রাতে বদলি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের ডিজিপি ওমপ্রকাশ সিং। আগ্রায় তাঁকে বদলি করার ফলে, তাঁর বাড়ির লোকেরাই ছোট্ট শিশুকন্যার দেখভাল করতে পারবেন।

আরও পড়ুন, লিফ্টে অশ্লীল আচরণ, দেখুন অভিযুক্তকে কীভাবে পেটালেন মহিলা

এ প্রসঙ্গে, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে ডিজিপি বলেন, ‘‘যখন আমি ছবিটা দেখলাম ও এ ব্যাপারে জানলাম, ঝাঁসির আইজির সঙ্গে কথা বললাম। উনি ওই কনস্টেবলকে হাজার টাকা পুরস্কার হিসেবে দিয়েছেন। জানতে পারি যে ওই কনস্টেবল খুব পরিশ্রমী। ওঁর ছোট শিশুকন্যা থাকা সত্ত্বেও উনি ছুটি নেননি। উনি কাজে যোগ দিয়েছেন। ওঁর সঙ্গে কথা বলে বুঝলাম, ওঁর একটাই সমস্যা যে ঝাঁসিতে ওঁর মেয়েকে দেখার জন্য কেউ নেই।’’

এদিকে, এ ছবি নিয়ে বহু নেটিজেনই সোশাল দুনিয়ায় ওই কনস্টেবলের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন। অর্চনাকে বদলির সিদ্ধান্ত নেওয়ায় উত্তরপ্রদেশ পুলিশকেও অনেকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।

Read the full story in English

Web Title: Up woman constable viral

Next Story
দিল্লিতে ১০ বছরের পুরনো ডিজেল গাড়ি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট, চলবে না ১৫ বছরের পুরনো পেট্রোল গাড়িও
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com