ভার্জিনিয়ায় গণহত্যা, মৃত কমপক্ষে ১২ জন সরকারী কর্মী

জানা গিয়েছে যে বন্দুকধারী ওই ব্যক্তি বিকেল চারটের অল্প পরেই মিউনিসিপ্যাল বিল্ডিংয়ে অবস্থিত অফিসে ঢুকে "তৎক্ষণাৎ এলোপাথাড়ি গুলি চালায়"।

By: New Delhi  Published: June 1, 2019, 5:18:14 PM

ফের গণহত্যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। শুক্রবার বিকেলে ভার্জিনিয়া রাজ্যের ভার্জিনিয়া বিচ শহরে নিজের অফিসে ঢুকে সহকর্মীদের ওপর এলোপাথাড়ি গুলি চালিয়ে ১২ জনকে হত্যা করল শহরের এক জনপরিষেবা কর্মী। আরও অন্তত চারজনকে জখম করার পর পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয় আততায়ীর।

ভার্জিনিয়া বিচের পুলিশ প্রধান জেমস সেরভেরা জানান, উপকূলবর্তী এই শহরে গণহত্যার পূর্ণাঙ্গ বিবরণ এখনও পাওয়া যায় নি, কিন্তু জানা গিয়েছে যে বন্দুকধারী ওই ব্যক্তি বিকেল চারটের অল্প পরেই মিউনিসিপ্যাল বিল্ডিংয়ে অবস্থিত অফিসে ঢুকে “তৎক্ষণাৎ এলোপাথাড়ি গুলি চালায়”। সেরভেরা আরও জানান, “সন্দেহভাজন আততায়ী এক পুলিশ অফিসারকে লক্ষ্য করেও গুলি চালায়। পাল্টা গুলি চালায় পুলিশ। সন্দেহভাজন আততায়ীর মৃত্যু হয়েছে।”

শহরের এক মুখপাত্র সংবাদসংস্থা রয়টার্সকে মেইল মারফত জানান, বন্দুকধারী পুলিশের গুলিতে আহত হয়, এবং হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুন: নারদা কান্ডে রত্না চট্টোপাধ্যায়, শ্রেয়া পাণ্ডেকে ইডির নোটিস

উল্লেখ্য, গত ফেব্রুয়ারির পর আবারও আমেরিকায় কর্মক্ষেত্রে এই হত্যালীলা কার্যত প্রশ্নের মুখে দাঁড় করাচ্ছে পুলিশ, প্রশাসনকে। ফেব্রুয়ারি মাসে ইলিনোইসের অরোরা শহরে এমনই একটি ঘটনায় নিজের চাকরি চলে যাওয়ার পর পাঁচ সহকর্মীকে গুলি করে মারে এক শ্রমিক। ভার্জিনিয়ার এই ঘটনা সেই হত্যাকাণ্ডকে তুলে ধরল আরও একবার। ভার্জিনিয়ার পুলিশ প্রধান জানান, এই মুহুর্তে ঘটনার ব্যাপ্তি এবং গুরুত্ব বুঝতে তদন্তকারী দল নামানো হয়েছে, সঙ্গে আছেন এফবিআই এজেন্ট এবং নিরাপত্তা কর্মীরা।

পুলিশ প্রধান আরও বলেন, “আততায়ী দীর্ঘদিন ধরে একটি জনসংযোগ দপ্তরের কর্মী ছিলেন, কিন্তু বর্তমানে কোনও কারণে তিনি তাঁর অফিসের প্রতি অসন্তুষ্ট ছিলেন।” কিন্তু কেন এই ধরনের আক্রমণ, সেই প্রশ্নের উত্তর দিতে চান নি পুলিশ প্রধান। ঘটনার দুঘণ্টা পর তিনি সংবাদ সংস্থাকে বলেন, “সব প্রশ্নের উত্তর এই মুহুর্তে আমাদেরও জানা নেই”। তবে তিনি জানান, পৌরসভার এই কমপ্লেক্সটির একটিতে শহরের পৌরসভার কাজ চলত, এবং অপরটিতে জনসংযোগের কাজ।

আরও পড়ুন: কঠোর পরিশ্রম করেও এই বিজেপি নেতারা মন্ত্রিসভা থেকে বাদ

প্রসঙ্গত, শুক্রবারের ঘটনাস্থল শহরের আকর্ষণীয় সমুদ্র সৈকত থেকে অনেকটাই দূরে আতলান্তিক মহাসাগরের শেষভাগে চিসাপিক উপসাগরের পাড়ে অবস্থিত। ভার্জিনিয়ার সবচেয়ে জনবহুল অঞ্চল এটি। প্রায় ৪ লক্ষ ৪৫ হাজার মানুষের বসবাস এই শহরে। এই ঘটনার পর এলাকার পুরপ্রধান ববি ডায়ার একটি সাংবাদিক সম্মেলন করে বলেন, “ভার্জিনিয়া বিচের ইতিহাসে এটি সবচেয়ে কলঙ্কিত দিন। যাঁরা এখানে ছিলেন, তাঁদের মধ্যে অনেকেই আমাদের বন্ধু, কিংবা প্রতিবেশী, কিংবা সহকর্মী।”

হত্যাকাণ্ডের কিছুক্ষণের মধ্যেই সেখানে পৌঁছন গভর্নর রালফ নর্দাম, এবং বলেন, “আজ একটি ভয়ঙ্কর দিন আমাদের সকলের জন্য।” উল্লেখ্য, এই ঘটনার পর আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের তরফ থেকে হোয়াইট হাউসের এক মুখপাত্র ঘটনাটির বিবরণ তুলে ধরেন সকলের সামনে এবং উল্লেখ করেন, “পরিস্থিতির উপর নজর, নিয়ন্ত্রণ রাখা হয়েছে সরকারের তরফ থেকে।”

Read the full story in English

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the General News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Virginia mass shooting at least 12 killed in attack by disgruntled govt employee

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং