scorecardresearch

বড় খবর

‘স্বপ্নপূরণে কাজ করে যেতে হবে’! সংবিধান দিবসে বিশেষ বার্তা মোদীর

মোদী বলেন, আমাদের সংবিধানের প্রস্তাবনার শুরুতে ‘উই দ্য পিপল’ লেখা আছে, এটা কোন শব্দ নয়, এ এক অনুভূতি।

‘স্বপ্নপূরণে কাজ করে যেতে হবে’! সংবিধান দিবসে বিশেষ বার্তা মোদীর
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

শনিবার সুপ্রিম কোর্টে সংবিধান দিবসের অনুষ্ঠানে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এদিনের অনুষ্ঠানে তিনি ই-কোর্ট প্রকল্পের আওতায় বিভিন্ন নতুন উদ্যোগের সূচনা করেন। এর আওতায় ভার্চুয়াল জাস্টিস ক্লক, জাস্টিস মোবাইল অ্যাপ 2.0, ডিজিটাল কোর্ট এবং S3WAS ওয়েবসাইট চালু করেন মোদী।

অনুষ্ঠানে ভাষণ দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, ‘আজ ২৬/১১ মুম্বাই সন্ত্রাসবাদী হামলার দিনও। ১৪ বছর আগে যখন ভারত তার সংবিধানের উৎসব পালন করছিল, ঠিক সেই দিনেই ভারতে সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসবাদী হামলার সাক্ষী থাকে ভারত।  সেদিনের সেই হামলায় যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাই’।

বিশ্ব আমাদের দিকে আশার চোখে তাকিয়ে আছে

প্রধানমন্ত্রী মোদী তাঁর ভাষণে বলেন, ‘ভারতের আন্তর্জাতিক ভাবমূর্তি মজবুত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সারা, বিশ্ব আমাদের দিকে আশার চোখে তাকিয়ে আছে। আজ এ দেশ পূর্ণ সক্ষমতা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। এসবের পেছনে আমাদের সবচেয়ে বড় শক্তি আমাদের সংবিধান। আমাদের সংবিধানের প্রস্তাবনার শুরুতে ‘উই দ্য পিপল’ লেখা আছে, এটা কোন শব্দ নয়, এ এক অনুভূতি।

আইনের সরলীকরণ

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভারতের সংবিধানে দেশের সমস্ত সংস্কৃতি ও চেতনা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। আমি সন্তুষ্ট যে আজ গণতন্ত্রের প্রতীক হিসেবে দেশ তার আদর্শ ও সংবিধানের চেতনাকে শক্তিশালী করছে। দেশের মা-বোনদের ক্ষমতায়ন করা হচ্ছে। আজ সাধারণ মানুষের জন্য আইন সহজ করা হচ্ছে। অতীত থেকে আমাদের বিচার ব্যবস্থা ন্যায়বিচারের জন্য অনেক পদক্ষেপ নিচ্ছে। আমি এই প্রচেষ্টার জন্য সবাইকে অভিনন্দন জানাই। আমাদের কর্তব্যের পথে হাঁটতে হাঁটতে দেশকে নিয়ে যেতে হবে উন্নয়নের নতুন উচ্চতায়। আজ ভারতের সামনে একাধিক নতুন সুযোগ তৈরি হচ্ছে।

G-20-এর সভাপতিত্ব পাওয়া একটি বড় সুযোগ

প্রধানমন্ত্রী মোদী আরও বলেন, এক সপ্তাহ পর G-20-এর চেয়ারম্যান পদ পেতে চলেছে ভারত। এটি ভারতের জন্য একটি বড় সুযোগ। আসুন আমরা সবাই ‘টিম ইন্ডিয়া’ হিসাবে বিশ্বে ভারতের সুনাম বাড়াই। এটা আমাদের সকলের সম্মিলিত দায়িত্ব। ভারতকে গণতন্ত্রের ‘মা’ হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে, একে আরও শক্তিশালী করতে হবে।

আরও পড়ুন: [ মুম্বই হামলায় নিহতদের স্মরণ করে সন্ত্রাস দমনে কড়া বার্তা জয়শঙ্করের ]

তরুণরা সংবিধান বোঝে, এটাই দেশের গুরুত্বপূর্ণ প্রয়োজন

প্রধানমন্ত্রী তাঁর ভাষণে বলেন, তরুণদের দেশের সংবিধান বোঝা উচিত। আমাদের সংবিধান প্রণীত হওয়ার আগে দেশের পরিস্থিতি কী ছিল? গণপরিষদের বিতর্কে সে সময় কী ঘটেছিল? তরুণদের এই সকল বিষয়ে জানতে হবে। এতে তাদের জানার পরিধি এবং দেশের প্রতি সম্মান আরও বাড়বে। তিনি বলেন, আমাদের গণপরিষদে ১৫ জন মহিলা সদস্য ছিলেন। এই সকল মহিলাদের অবদান খুব কমই আলোচিত হয়। আমি আশা করি যে সংবিধান আমাদের সিদ্ধান্তগুলিকে আরও শক্তিশালী করে তুলবে।

সংবিধান প্রণেতাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানানোর এই সুযোগ

অনুষ্ঠানে বক্তৃতায় আইনমন্ত্রী কিরেন রিজিজু বলেন, সংবিধান হল সেই ভিত্তিপ্রস্তর যার উপর ভারত দাঁড়িয়ে আছে এবং প্রতি বছরই নতুন উচ্চতা অর্জন করছে। আজ এই সুযোগ আমাকে সংবিধান প্রণেতাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করার সুযোগ দিয়েছে। তিনি বলেন, ‘আমাদের উচিত বাবাসাহেব আম্বেদকরের কথা মনে রাখা। তিনি বলেছিলেন, এই স্বাধীনতা আমাদের ওপর বিরাট দায়িত্ব চাপিয়ে দিয়েছে। এই স্বাধীনতার পর আমরা কোন ভুলের জন্য ইংরেজদের দোষ দিতে পারি না’।

রিজিজু বলেন, ভারতের মতো দেশে এখনও ৬৫ শতাংশ মানুষ গ্রামীণ এলাকায় বাস করে। এসব এলাকায় আঞ্চলিক ও স্থানীয় ভাষাই বোঝার একমাত্র মাধ্যম। অনুষ্ঠানে আইনমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদী বহুবার বিচার ব্যবস্থায় স্থানীয় ভাষাকে উৎসাহিত করার কথা বলেছেন। এর অধীনে, আইন মন্ত্রকের তত্ত্বাবধানে, বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া ভারতীয় ভাষা কমিটি গঠন করেছে। প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদে এই কমিটির নেতৃত্ব দেবেন। তিনি বলেন, কমিটি আইনি উপাদানকে আঞ্চলিক ভাষায় অনুবাদ করবে এবং সমস্ত ভারতীয় ভাষার জন্য একটি মূল শব্দভাণ্ডার তৈরি করবে।

সামাজিক বিভাজন দূর করার প্রয়োজন

একই সময়ে, অ্যাটর্নি জেনারেল আর ভেঙ্কটারমানি বলেছেন, জাতপাত এবং অন্যান্য সামাজিক বিভাজনের মতো ক্ষতিকারক সমস্যাগুলি নির্মূল করা দরকার। এই কাজটি চ্যালেঞ্জিং। সমতার দাবিটি জটিল এবং আমাদের অবশ্যই আইন, সমাজ এবং আদালতের মধ্যে নতুন বিভাজন সৃষ্টি না করে সে বিষয়ে সমন্বয়ের চেষ্টা করতে হবে। 

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Will fulfill vision of those who gave us our constitution pm modi other leaders extend greetings on constitution day