বানের তোড়ে ভেসে গেল আহিরীটোলা জেটি ঘাট

বেলা ১২টা নাগাদ জোয়ারের জলের তোড়ে ভেসে যায় মূল জেটির অংশটি। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত হতাহতের কোনও খবর নেই।

By: Kolkata  Updated: September 1, 2019, 01:17:36 PM

বানের জলে ভেসে গেল উত্তর কলকাতার আহিরীটোলা জেটি ঘাট। বেলা ১২টা নাগাদ জোয়ারের জলের তোড়ে ভেসে যায় মূল জেটির অংশটি। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত হতাহতের কোনও খবর নেই। তবে জানা যাচ্ছে, ওই জেটিতে কর্মরত এক কর্মী এই ঘটনায় আহত হয়েছেন। তাঁকে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে ইএসআই হাসপাতালে।

ঠিক কী হয়েছে?

জানা যাচ্ছে, সকাল ১২টা নাগাদ বানের ধাক্কা এতোটাই তীব্র ছিল সেই জলের তোড়েই ভেঙে যায় জেটিটি। অতীতে বহুবার গঙ্গায় বানের ধাক্কা সামলানো জেটিটি কেন এমন ধরাশায়ী হইয়ে পড়ল তা নিয়েই প্রশ্ন উঠছে। যেহেতু বান আসার খবর আগে থেকেই ছিল, সেই কারণে জেটিতে থাকা লোকজনদের মূল রাস্তায় নিয়ে যাওয়া হয়, ফলে বিপদ অনেককাংশেই এড়ানো গেছে বলে খবর।

আরও পড়ুন- কলকাতায় অবৈধ অনলাইন লটারি চক্রের পর্দাফাঁস, পুলিশের জালে ধৃত সাত

ঘটনার খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে সেখানে পৌঁছে যান কাউন্সিলর বিজয় উপাধ্যায়। খবর দেওয়া হয় পশ্চিমবঙ্গ ভূতল পরিবহনকেও। বন্ধ করে দেওয়া হয় লঞ্চ পরিষেবাও। তবে সেই সময় জেটিতে উপস্থিত ছিলেন এক কর্মী। ঘটনায় আহত হলেও উপস্থিত সকলের সহায়তায় তাঁকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে বলে জানা গেছে। তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় ইএসআই হাসপাতালে।

এই দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে কাউন্সিলর বিজয় উপাধ্যায় বলেন, “এখানে বান আসার ফলেই জেটিটি ভেঙে যায়। সেই সময় প্রায় জনা ১৫ লোক ছিল। যদিও ওদের উপরে তুলে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু একজন স্থানীয় এবং আরেক কর্মী পড়ে যান। তবে কারুরই বিশেষ চোট লাগেনি”। অন্যদিকে ঘটনার খবর পেয়ে সেখানে পৌঁছয় মন্ত্রী শশী পাঁজা। তিনি বলেন, “ভয়ের কিছু নেই। একজন কর্মী আহত হয়েছে। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। যেহেতু বানের খবর আগে থেকে দেওয়া থাকে, তাই বড়সড়ো বিপদ হয়নি। তবে এখন লঞ্চ পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। আজ রবিবার বলে সবাইকে পেতে একটু সমস্যা হচ্ছে। আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার”।

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Kolkata News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Ahiritola ghat bridge breakdown into ganga

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
অস্বস্তি
X