বড় খবর

ভুয়ো টিকা কাণ্ডে এবার হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের, ভাঙা হল সেই বিতর্কিত ফলক

Fake Vaccination Case: তালতলায় দেবাঞ্জনের নাম থাকা বিতর্কিত রবীন্দ্র-মূর্তির ফলক ভেঙে ফেলল কলকাতা পুরসভা।

Calcutta High Court has issued an interim stay on the transfer of contractual teachers by Bengal Govt
ফাইল ছবি।

Fake Vaccination Case: ভুয়ো টিকা কাণ্ডে এবার জনস্বার্থ মামলা দায়ের হল কলকাতা হাইকোর্টে। শুক্রবার হাইকোর্টে অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেবের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন আইনজীবী সন্দীপন দাস। এই ঘটনায় সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়ে তিনি মামলা করেছেন। আগামী সপ্তাহে এই মামলার শুনানি হতে পারে বলে জানা গিয়েছে। আইনজীবীর দাবি, রাজ্য পুলিশ রহস্য সমাধান করতে পারবে না। এই ঘটনার সঙ্গে শাসকদল তৃণমূলের অনেকে যুক্ত রয়েছে। তাই তদন্তভার সিবিআইকে দেওয়া হোক।

এদিকে, ভুয়ো টিকা কাণ্ডে বৃহত্তর ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছে কলকাতা পুলিশ। পুরো বিষয়টা খতিয়ে ১০ সদস্যের বিশেষ তদন্তকারী দল বা সিট গঠন করেছে লালবাজার। বিজেপির অভিযোগ, তৃণমূলের প্রভাবশালী নেতা-মন্ত্রীদের সঙ্গে দেবাঞ্জনের ঘনিষ্ঠতা ছিল। তাই নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি তুলেছে তারা। শুক্রবারই স্বাস্থ্যভবনে গিয়ে স্বাস্থ্য সচিবের সঙ্গে দেখা করেছে বিজেপির প্রতিনিধি দল। সেখানেও বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী দাবি করেছেন, প্রয়োজনে সিবিআইকে দিয়ে তদন্ত করানো হোক।

আরও পড়ুন ভুয়ো টিকা কাণ্ডে পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবি, স্বাস্থ্য ভবনে গেল বিজেপির প্রতিনিধি দল

পাশাপাশি, তালতলায় দেবাঞ্জনের নাম থাকা বিতর্কিত রবীন্দ্র-মূর্তির ফলক ভেঙে ফেলল কলকাতা পুরসভা। রবীন্দ্রনাথের আবক্ষ মূর্তির ফলকে নেতা-মন্ত্রীদের সঙ্গে ভুয়ো আইএএস পরিচয় দিয়ে ধৃত দেবাঞ্জনের নামও ছিল। বিতর্ক তৈরি হতেই ভাঙা হয় সেই ফলক। প্রথমে কালি লেপে দিয়ে নাম ঢাকা হয়। কিন্তু বিতর্ক ধামাচাপা দিতে ফলক পুরোপুরি ভেঙে ফেলা হয়।

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ওই আবক্ষ মূর্তির ফলক স্থাপন হয়। কবিগুরুর মূর্তির নিচে সাংসদ, মন্ত্রী, বিধায়কের সঙ্গে জ্বলজ্বল করছিল দেবাঞ্জনের নাম। যুগ্ম সচিব হিসাবে পরিচয় লেখা ছিল ফলকে। এদিন পুর প্রশাসকমণ্ডলীয় সদস্য অতীন ঘোষ বলেন, যে ফলক বসানো হয়েছিল, তা কলকাতা পুরসভা বসায়নি। পুরসভার অনুমতিও নেওয়া হয়নি। স্থানীয় কাউন্সিলর আপত্তি জানান। ফলক বসানোর সময় পুরসভার কেউ ছিলেন না।

আরও পড়ুন ভ্যাকসিনকাণ্ডে দেবাঞ্জনের বিরুদ্ধে FIR দায়ের IMA-এর

এদিন অতীনবাবু স্বীকার করেছেন, “ফলক যাঁরা বিনা অনুমতিতে লাগিয়েছিলেন তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত ছিল। শোকজ করা উচিত ছিল, কিন্তু ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি সেটা আমাদের দুর্বলতা।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Kolkata news here. You can also read all the Kolkata news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Fake vaccination case pil filed in calcutta hc demanding cbi investigation

Next Story
Mithun Chakraborty: উস্কানিমূলক মন্তব্য মামলায় হাইকোর্টে স্বস্তি মিলল না মিঠুনের, ফের জেরা করবে পুলিশMithun Chakraborty, BJP. Kolkata Police, Post Poll Violence
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com