মেট্রোর কাজের জন্য বৌবাজারে ভেঙে পড়ছে বাড়ি, ফাঁকা করা হলো এলাকা

শনিবার এবং রবিবার মিলিয়ে মেট্রো কর্তৃপক্ষের পরামর্শে কিছু বাড়ি ফাঁকা করে দেওয়া হয়। ঘটনাস্থলে পরিদর্শনে পৌঁছন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ 'ববি' হাকিম।

By: Kolkata  Updated: September 1, 2019, 05:14:24 PM

শনিবার সন্ধেবেলাই কেঁপে ওঠে বৌবাজার চত্বর। প্রাথমিকভাবে ভূমিকম্প মনে করলেও পরে জানা যায়, মাটির নিচে পূর্ব ও পশ্চিমদিকের শিয়ালদাগামী মেট্রোর কাজ চলার জন্যই কম্পমান কলকাতা পুরসভার ৪৮ নম্বর ওয়ার্ডের দুর্গা পিথুরি লেন। যার জেরে ভেঙে পড়ছে বেশ কিছু বাড়ির একাধিক অংশ। পাশাপাশি গায়ে লাগোয়া একের পর এক বাড়িতে দেখা দিয়েছে বড় বড় ফাটল।

জানা যাচ্ছে, টানেলে বোরিং মেশিনের কম্পনেই মূলত এই ফাটল দেখা গিয়েছে। এতগুলি বাড়ি থেকে একের পর এক চাঙড় খসে পড়ায় ধোঁয়ার মতো ধুলো উড়ছে এলাকায়। বাড়ি ভেঙে পড়ার আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন এলাকার বাসিন্দারা। শনিবার এবং রবিবার মিলিয়ে মেট্রো কর্তৃপক্ষের পরামর্শে কিছু বাড়ি ফাঁকা করে দেওয়া হয়। ঘটনাস্থলে পরিদর্শনে পৌঁছন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ ‘ববি’ হাকিম।

রান্নাঘর ভেঙে পড়েছে বলে জানিয়েছেন বাড়ির মালিক

আরও পড়ুন: বানের তোড়ে ভেসে গেল আহিরীটোলা জেটি ঘাট

এলাকাবাসীরা জানিয়েছেন, হঠাৎই সন্ধে সাতটা নাগাদ তাঁরা দেখেন, বাড়ির কড়িবরগা, জানলা, ফ্যান, ঝুলন্ত বারান্দা, সমস্ত কাঁপছে। সকলে ভূমিকম্পের ভয়ে বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে আসেন। চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়। এই সময়ই ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হন মেট্রো আধিকারিকরা, এবং রাতরাতি বাড়ি ফাঁকা করার নির্দেশ দেন। তখনই এলাকার বাসিন্দারা জানতে পারেন, ভূমিকম্প নয়, মাটির নিচে মেট্রোর কাজের জন্যই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। মেট্রো টানেলে জল ঢুকে পড়ে এই বিপত্তি বলে জানানো হয়েছে।

রাতেই সাত থেকে ১০টি বাড়ির বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সূত্রের খবর, স্থানীয় বিভিন্ন হোটেল ও লজে রাখার বন্দোবস্ত করা হয়েছে তাঁদের। আপাতত এলাকা ফাঁকা করে দিয়েছে পুলিশ। ঘটনাস্থলে উপস্থিত মেট্রো আধিকারিকদের পরামর্শে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছে গোটা এলাকায়।

মেট্রো কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করে ফিরহাদ হাকিম বলেন,” বাড়িতে ঢুকতে দেওয়ার অনুমতী কোনোভাবেই দেওয়া যাবে না। বাড়ির ডকুমেন্ট সহ সমস্ত কিছু যখন বাড়ির ভিতরে রয়েছে। তাই তিন চারদিনের জন্য হোটেলে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে এলাকাবাসীদের। এখন সাময়িক সিমেন্ট দিয়ে ঠিক করে দেওয়া হবে বাড়ির ভেঙে যাওয়া অংশগুলি। কিন্তু তাতে সমাধান না হলে, আগামীদিনে মেট্রোর থেকে টাকা নিয়ে ওই জায়গায় নতুন করে বাড়ি তৈরি করে দেওয়া হবে। তবে তা সময়সাপেক্ষ। তাহলে একদিন মানুষগুলো থাকবে কোথায়? মেট্রো থেকে জানানো হয়েছে, এই কয়েকদিন অস্থায়ীভাবে কোনো ফ্ল্যাটে বা ভাড়া বাড়িতে রাখার বন্দবস্ত করা হবে”।

সকাল থেকে বৌবাজারের ঘটনায় রাস্তায় বসানো হয়েছে ‘মিনি কন্ট্রোল রুম’। সূত্রের খবর, শিয়ালদায় ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার কাছে দুর্গা পিথুরি লেন এবং পাশের একাধিক স্যাকরার দোকান সংলগ্ন এলাকায় প্রায় কুড়িটি বাড়িতে ফাটল দেখা গিয়েছে, তিনটি বাড়ি একেবারেই ভেঙে পড়েছে। বিবি গাঙ্গুলি স্ট্রিটে নামানো হয়েছে কলকাতা পুলিশের মোবাইল কন্ট্রোল পোস্ট ভ্যান। যেখানে বসেই গোটা বিবি গাঙ্গুলি স্ট্রিটের পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা হচ্ছে। এই ভ্যানের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ রয়েছে হেড কোয়ার্টারের। বাড়তি ফোর্স চাওয়া থেকে শুরু করে চিকিৎসা সহযোগীতা বা উদ্ধারের প্রয়োজন হলে সবটা এখানে বসেই পরিচালনা করা হবে বলে জানা যাচ্ছে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত রয়েছেন পুলিশ, জাতীয় ও রাজ্যের বিপর্যয় মোকাবিলা বিভাগ, এবং দমকলের আধিকারিকরা।

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Kolkata News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Many house breakdown at bowbazar due to east west metro work

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
বিশেষ খবর
X