আজব কাণ্ড! ভবানীপুরে নিজের পাড়ায় চা বিক্রি করলেন মদন, ‘এক ভাঁড় ১৫ লক্ষ টাকা’

পিছনে তখন অনুগামীরা সবাই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মুখোশ পরে দাঁড়িয়ে। ব্যাপারটা কী!

রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী রবিবাসরীয় দুপুরে নিজের পাড়া ভবানীপুরে চা বিক্রি করলেন।

মদন মিত্র মানেই অভিনব, রঙিন কিছু। নিত্যনতুন কাণ্ডকারখানায় সোশ্যাল মিডিয়ায় জনপ্রিয় তিনি। কামারহাটির বিধায়ক রবিবারও তেমনই এক কাণ্ড করলেন। এর আগে পেট্রোপণ্যের মূল্যবূদ্ধির প্রতিবাদে হাতে টানা রিকশা চালিয়েছিলেন। তারপর পেগাসাস ইস্যুতে পক্ষীরাজের আদলে সাজানো ঘোড়া নিয়ে চোখে কালো কাপড় বেঁধে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে অভিনব মিছিল করেছেন। রবিবারও তেমনই অভিনব কাজ করলেন তিনি।

রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী রবিবাসরীয় দুপুরে নিজের পাড়া ভবানীপুরে চা বিক্রি করলেন। যেমন তেমন চা নয়, একেবারে ১৫ লাখি চা। এক ভাঁড় ১৫ লক্ষ টাকা। গায়ে কালো পাঞ্জাবি, মাথায় কালো টুপি। চা বানাতে বানাতে দুকলি গানও গাইলেন তিনি। তারপর বললেন, ওহ লাভলি। পিছনে তখন অনুগামীরা সবাই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মুখোশ পরে দাঁড়িয়ে। ব্যাপারটা কী!

এদিন মদন মিত্র বলেছেন, গোটাটাই প্রতীকী প্রতিবাদ। জ্বালানি-রান্নার গ্যাসের দাম বৃদ্ধিতে নাভিশ্বাস আমজনতার। তার জন্য কেন্দ্রই দায়ী। তাই প্রতিবাদের নামে প্রধানমন্ত্রীকে খোঁচা দিলেন মদন মিত্র। এদিন তাঁর গলায় স্লোগান ছিল, “এক কাপ চায়ের দাম ১৫ লক্ষ টাকা। এমন চা আমেরিকার রাষ্ট্রপতিও খাওয়াতে পারেননি। যা নরেন্দ্র মোদী আমাদের খাওয়াচ্ছেন।”

আরও পড়ুন বাবুলের নিশানায় দিলীপ-কুণাল! রুচিবোধের প্রশ্নে ঝাঁঝালো আক্রমণ

কিন্তু চায়ের দাম ১৫ লক্ষ কেন, তার উত্তরে মদনের কটাক্ষ, ক্ষমতায় এলে দেশবাসীর অ্যাকাউন্টে ১৫ লক্ষ টাকা দেবেন বলে ২০১৪ সালে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। তার সঙ্গে চা বিক্রেতা ইমেজকেও হাতিয়ার করেছিলেন। এদিন দুটো জিনিসকেই প্রতিবাদের মাধ্যমে তুলে ধরেন তিনি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Kolkata news here. You can also read all the Kolkata news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Tmc mla madan mitra sells tea in road side shop

Next Story
বছরের শেষদিকেই শিয়ালদহ পর্যন্ত ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো! জোরকদমে ট্রায়াল রান শুরু
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com