বড় খবর

ইয়েস সঙ্কট: কলকাতার বিভিন্ন শাখায় আতঙ্কিত গ্রাহকদের লম্বা লাইন

হঠাৎ এই ঘোষণায় প্রবল সমস্যা হবে বলে দাবি ওই ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের।

উত্তর কলকাতার ইয়েস ব্যাঙ্কের একটি শাখাতে গ্রহকদের ভিড়। ছবি: পার্থ পাল

ইয়েস ব্যাঙ্কের গ্রাহকরা সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকাই তুলতে পারবেন ব্যাঙ্ক থেকে। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রের এই নির্দেশে চরম উৎকণ্ঠায় গ্রাহকরা। কলকাতার বিভিন্ন ইয়েস ব্যাঙ্ক শাখাতেই গ্রহকদের ভিড় লক্ষ্য করা গিয়েছে। হঠাৎ এই ঘোষণায় প্রবল সমস্যা হবে বলে দাবিওই ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের।

৩ এপ্রিল পর্যন্ত ইয়েস ব্যাঙ্কের গ্রাহকরা সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকাই তুলতে পারবেন ব্যাঙ্ক থেকে। কেন্দ্রের তরফে আরও বলা হয়েছে, ইয়েস ব্যাঙ্কের কাজকর্মের সূচনা এবং কাজ চালিয়ে যাওয়ার পদক্ষেপ হিসেবেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দেশের শীর্ষ ব্যাঙ্ক আরবিআই-এর আবেদনের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। তবে চিকিৎসা, উচ্চশিক্ষা, বিয়ের মতো পরিস্থিতিতে আপতকালীন ভিত্তিতে বেশি টাকার প্রয়োজন হলে তা তোলা যাবে বলেও ওই বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফে বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানানো হয়েছে, “ব্যাঙ্কের গুরুতর আর্থিক অবনতির কথা মাথায় রেখে ৩০ দিনের জন্য বোর্ডের হস্তান্তর করা হচ্ছে”। ইয়েস ব্যাঙ্কের অংশীদারিত্ব কেনার জন্য স্টেট ব্যাঙ্কের নেতৃত্বে তৈরি করা কনসোর্টিয়ামের অনুমোদন দিয়েছে সরকার।

আরও পড়ুন: ইয়েস সংকট: ‘টাকা তোলায় নিষেধাজ্ঞা থাকলেও আমানতকারীদের অর্থ সুরক্ষিত’

উত্তর কলকাতায় কাঁকুড়গাছি ইয়েস ব্যাঙ্ক শাখায় এদিন সকাল থেকেই গ্রাহকদের লম্বা লাইন। কেন্দ্রীয় নির্দেশের পর বেশিরভাগই এসেছেন টাকা তুলতে। অনেকেই আবার নির্দেশ সম্পর্কে খোঁজ খবর করছেন। ইয়েস ব্যাঙ্কের গ্রাহক অনলাইনের ওষুধ বিক্রেতা শুভ চৌধুরী বলেন, ‘৫০ হাজারের ঊর্ধ্বসীমা বেঁদে দিলে ব্যবসা চালাতে প্রবল অসুবিধা হবে। তাই নির্ধারিত অর্থ তুলে নিচ্ছি। জানিনা এইভাবে কত দিন টানতে পারব।’

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক মহিলার কথায়, ‘আগামী রবিবার পরিবারে বিয়ের অনুষ্ঠান রয়েছে। তার জন্য অনেক টাকা চাই। ক্যাটারিং থেকে বিয়ে বাড়ি সহ নানা খরচ রয়েছে। কিন্তু, আমাদের মাত্র ৫ লাখ টাকা তুলতে দেওয়া হচ্ছে। এতে তো সব খরচ অসম্ভব। জানিনা কি হবে।’ আরেক গ্রাহক প্রাণেশ সরকারের দাবি এক ঘন্টার বেশি লাইনে দাঁড়িয়েও কাউন্টারে পৌঁছাতে পারেননি। কতক্ষণ এই হয়রানি চলবে তা ভেবেই আতঙ্কিত তিনি।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Yes bank branches kolkata distressed depositors queue up

Next Story
রবীন্দ্রভারতীতে অশ্লীলতা: ‘উপাচার্যের ইস্তফা গৃহীত নয়’
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com