একদিনেই রগড়ে তুলবেন না সমস্ত রং, বলছেন ডাক্তারবাবু

প্রত্যেক রঙেই দেখা যায় বিভিন্ন গন্ধ থাকে, সেই গন্ধ থেকেও অ্যালার্জি হতে পারে। রঙের মধ্যে অ্যাসিডের পরিমাণ বেশি থাকলে পুড়ে যেতে পারে ত্বক।

By: Kolkata  Updated: March 21, 2019, 12:15:39 PM

ফাগুন হাওয়ায় এখন ভরপুর আবিরের গন্ধ। কিন্তু রং খেলার ময়দানে নামার আগে মাথায় রাখুন কিছু আগাম সতর্কতা। একাধিক ক্ষেত্রে দেখা যায়, রং খেলতে গিয়ে বিপদ এসে জোটে। সংক্রমণ ঘটে ত্বকে। তার কারণ, আজকালকার সিন্থেটিক রং। যা আপনার ত্বকই শুধু নয়, চুল ও নখের ক্ষতিও করে। চলুন জেনে নেওয়া যাক এর থেকে নিস্তারের উপায় কী। পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসক কৌশিক লাহিড়ি।

দোলের আগে ত্বকের জন্য নিয়ে রাখুন আগাম সতর্কতা। চুল, ত্বক ও নখের মূলত যত্ন নেওয়ার প্রয়োজন। দোলের আগের দিন রাত থেকে চুল ও ত্বকে তেল মেখে রাখুন। রং খেলতে যাওয়ার আগে আবারও তেল বা ক্রিম মেখে নিতে পারেন। চুলে সাধারণত আমদের তেল মাখার অভ্যাস থাকে না। যার ফলে রঙ লেগে আরও ড্রাই হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। দোলের দিন ও তার আগে রাতে ভালো করে চুলে তেল দিয়ে রাখলে, রঙের বিষাক্ত প্রভাব পড়তে পারবে না। মহিলারা নখে নেলপলিশ পরে নেবেন। যার ফলে বিষাক্ত রং থেকে সুরক্ষিত থাকবে নখ।

মূলত আবির খেলাই ভাল। জলে গোলা রং ক্ষতি করলেও, তার পরিমাণ কম। কিন্তু বর্তমানে যে ধরণের রুপোলি, সোনালি রং বেড়িয়েছে, সেসব সিন্থেটিক রং ভয়ঙ্কর ক্ষতি করে ত্বকের। এই তালিকায় রয়েছে বাঁদুরে রংও। যদি ত্বকের কথা চিন্তা করেন, তাহলে এই ধরণে ক্ষতিকারক মেটালিক রং দিয়ে একেবারেই খেলা উচিত নয়। সম্প্রতি কিছু সংস্থা ভেষজ রং বাজারে নিয়ে এসেছে, সেগুলি ব্যবহার করাই উপযুক্ত সিদ্ধান্ত।

আরও পড়ুন: হোলির নাছোড়বান্দা রঙ তুলতে হিমশিম? জানুন ঘরোয়া উপায়

রং থেকে কী রোগ হতে পারে ত্বকের? এই প্রশ্নের উত্তরে ডা: লাহিড়ি বলেন, দোল খেলার ফলে মূলত কন্টাক্ট ডার্মাটাইটিস হয়ে থাকে। প্রত্যেক রঙেই দেখা যায় বিভিন্ন গন্ধ থাকে, সেই গন্ধ থেকেও অ্যালার্জি হতে পারে। রঙের মধ্যে অ্যাসিডের পরিমাণ বেশি থাকলে পুড়ে যেতে পারে ত্বক।

রঙ একদিনে রগড়ে তুলতে যাবেন না। একদিনে বেশি ঘষাঘষি করলে ত্বকের ক্ষতি করা হয়। কয়েকদিন অপেক্ষা করলে রং এমনিতেই উঠে যায়। প্রি অ্যান্টি অ্যালার্জিক কোনো ওষুধ খেয়ে রং খেলতে যাওয়া উচিত। রং খেলার পর ত্বকে অতিরিক্ত সমস্যা দেখা দিলে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

রং থেকে কেন ক্ষতি হয়? ডা: লাহিড়ি জানাচ্ছেন, লাল রঙে থাকে কঙ্গো রেড, ক্রোসিন স্কারলেট, বা রোজামিন। হলুদ রঙে থাকে মেটালীন ইয়েলো, লেড ক্রোমেট। বাঁদুরে মেটালিক রঙ মারাত্মক। এতে থাকে নানারকম ধাতুচূর্ণ, যা থেকে কিডনি বা লিভারের অসুখ, এমনকি ক্যানসার এর সম্ভাবনাও থাকে।

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Latest News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Holi precaution doctor advise metallic colours

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং