ভয়াবহ! নিজের অজান্তেই প্রতি সপ্তাহে আপনি গিলছেন আস্ত একটা এটিএম কার্ড

"আজকে আমরা এমন একটা সময়ে দাঁড়িয়ে আছি, যেখানে প্লাস্টিক জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমরা প্লাস্টিকের পাত্রে খাচ্ছি, জল পান করছি, দোকানেও খাবার প্লাস্টিকে মুড়েই বিক্রি হচ্ছে।

By: New Delhi  Updated: June 14, 2019, 05:17:58 PM

প্রতি সপ্তাহে নিয়ম করে ৫ গ্রাম। হ্যাঁ, মানে একটা এটিএম কার্ডে যে পরিমাণ প্লাস্টিক থাকে, ফি হপ্তায় আপনি খেয়ে ফেলছেন ততটা প্লাস্টিক। তাও আবার নিজের অজান্তে। সম্প্রতি ডব্লিউডব্লিউএফ সংস্থার এক সমীক্ষায় ধরা পড়েছে তা।

অস্ট্রেলিয়ার নিউ ক্যাসেল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বলছেন, মানুষ সপ্তাহে নেই নেই করেও হাজার দুয়েক ছোট ছোট প্লাস্টিক টুকরো খেয়ে ফেলছে। সারা বছরে হজম করে ফেলছে ২৫০ গ্রাম প্লাস্টিক। হ্যাঁ সেই প্লাস্টিক, যাকে সভ্যতার ‘ভিলেন’ হিসেবে তকমা দিয়েই দিয়েছেন পরিবেশবিদরা এবং বিজ্ঞানীরা। যে প্লাস্টিক ব্যবহারের ভয়াবহ দিক নিয়ে মানুষকে সচেতন করতে কয়েক যুগ ধরে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন একদল পরিবেশ সচেতন মানুষ।

আরও পড়ুন, খলনায়ক সেই বায়ু দূষণ, ভারতীয়দের গড় আয়ু কমছে ২.৬ বছর

ফরটিস এস্কর্ট হার্ট ইন্সটিটিউটের পালমোনোলজি বিভাগের চিকিৎসক ডঃ অভি কুমার এই প্রসঙ্গে বললেন, “আজকে আমরা এমন একটা সময়ে দাঁড়িয়ে আছি, যেখানে প্লাস্টিক জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমরা প্লাস্টিকের পাত্রে খাচ্ছি, জল পান করছি, দোকানেও খাবার প্লাস্টিকে মুড়েই বিক্রি হচ্ছে। এদের মধ্যে সস্তার টেকসই কিছু প্লাস্টিকে রয়েছে কারসিনোজেনিক উপাদান, যা ক্যানসারের কারণ”।

সমীক্ষা বলছে, জলপানের সময়েই সবচেয়ে বেশি প্লাস্টিক প্রবেশ করছে আমাদের শরীরে। আর তার পরেই রয়েছে শক্ত খোল যুক্ত মাছ ভক্ষণ। গবেষকরা বলছেন, আমরা যখন এই ধরণের মাছ খাই, তাদের পাচনতন্ত্র সমেত খেয়ে ফেলি। আর এই সামদ্রিক মাছেরা প্রচুর পরিমাণে প্লাস্টিক খেয়ে থাকে। ফলে মানুষের শরীরে তার পুরোটাই চলে আসে।

Read the full story in English

 

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Latest News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Unknowingly you are eating plastic daily

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
বিদায় রাজপুত্র
X