scorecardresearch

বড় খবর

মিসড কল দিলেই মিলতে পারে ‘দেশ গড়ার’ সুযোগ, বলছে আপ

দিল্লির বিদায়ী কেজরিওয়াল সরকারের মন্ত্রী গোপাল রাই বলেছেন, একটি নির্দিষ্ট নম্বরে মিসড কল দিয়ে আপ-এর ‘দেশ গড়ার অভিযানে’ সামিল হতে পারেন দেশের মানুষ।

দিল্লিতে বিপুল ব্যবধানে বিধানসভা নির্বাচন জয়ের পর এবার সারা দেশে বিভিন্ন স্থানীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আম আদমি পার্টি (আপ)। এটিই হবে দিল্লির বাইরে আপ-এর প্রভাব বিস্তারের প্রথম পর্ব। প্রসঙ্গত, পশ্চিমবঙ্গে ঠিক এই পরিকল্পনার কথাই এর আগে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলাকে জানিয়েছিলেন দলের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য শাখার সম্পাদক জর্জ গোমস।

দিল্লিতে সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে শীর্ষ আপ নেতা গোপাল রাই জানিয়েছেন, রবিবার দলের রাষ্ট্রীয় একজিকিউটিভের একটি বৈঠক ডাকা হয়েছে, যেখানে আলোচ্য বিষয় হবে “ইতিবাচক জাতীয়তাবাদ”-এর প্রচার করে দলের প্রভাব এবং সংগঠনের বৃদ্ধি।

আপ সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়ালের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত গোপাল রাই বলেন, প্রথম পর্বে পাঞ্জাব সমেত আরও কয়েকটি রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনেও প্রার্থী দেবে আপ। তাঁর কথায়, “রবিবারের মিটিংয়ের প্রধান এজেন্ডা হবে সারা দেশে প্রচুর পরিমাণে স্বেচ্ছাসেবক এবং পার্টি ক্যাডার নিয়োগ করা, যাতে রাষ্ট্রীয় স্তরে আমাদের সাংগঠনিক কাঠামো বৃদ্ধি পায়।

রাই, যিনি দিল্লির বিদায়ী কেজরিওয়াল সরকারের মন্ত্রীও বটে, আরও জানান যে ৯৮৭১০ ১০১০১ নম্বরে মিসড কল দিয়ে আপ-এর ‘দেশ গড়ার অভিযানে’ সামিল হতে পারেন দেশের মানুষ। “এই প্রচার অভিযানের মাধ্যমে আমরা মানুষের কাছে গিয়ে বহু সংখ্যক স্বেচ্ছাসেবী নিয়োগ করব। সারা দেশে স্থানীয় নির্বাচনে প্রার্থী দেবে আপ। যেমন মধ্যপ্রদেশ ও গুজরাটের আসন্ন স্থানীয় নির্বাচনে লড়ব আমরা,” জানান তিনি।

আরও পড়ুন: ২০২১ রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী দেবে আপ

বিজেপির জাতীয়তাবাদকে “নেতিবাচক” আখ্যা দিয়ে রাই জোর গলায় বলেন যে তাঁর দল প্রভাব বিস্তার করতে চায় “ইতিবাচক জাতীয়তাবাদের” মাধ্যমে। তাঁর মতে, “দিল্লিতে আমরা ইতিবাচক জাতীয়তাবাদের প্রচার করেছি, যার মূলে রয়েছে ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধা। বিজেপির জাতীয়তাবাদের ভিত হলো বিদ্বেষ এবং বিভাজনের রাজনীতি।”

রাই আরও বলেন, “দিল্লিতে আপ-এর পরীক্ষা সফল হওয়ায় তা সারা দেশের কাছে ‘রোল মডেল’ হয়ে গেছে। আমাদের ইতিবাচক জাতীয়তাবাদ কৃষক সহ সমাজের প্রত্যেককে দেয় সুশিক্ষা, স্বাস্থ্য পরিষেবা এবং জীবিকার গ্যারান্টি।”

দিল্লির নির্বাচনের আগে জনৈক টিভি চ্যানেলে ‘হনুমান চালিসা’ আবৃত্তি করে বিজেপির সমালোচনার মুখে পড়েন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে রাই বলেন, ভারতীয় জনতা পার্টির কাছে ধর্ম একটি “রাজনৈতিক হাতিয়ার” হলেও, দেশের মানুষের কাছে ধর্ম মানে বিশ্বাস। “বিজেপি দেশের মানুষকে সম্মান করে না। তাদের কাছে প্রত্যেকটা মানুষ স্রেফ ভোট ব্যাংক,” বলেন তিনি।

দিল্লির নির্বাচনে মোট ৭০টি আসনের ৬২টি আসনেই জয়লাভ করে আপ। বাকি আটটি আসন পায় বিজেপি। এবং গত বিধানসভা নির্বাচনের মতোই এবারও কংগ্রেসের আসন সংখ্যা শূন্য।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest National news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Aap to fight local bodies elections across india expand base says gopal rai