বড় খবর

কৃষি আইনের প্রতিবাদে কলকাতার রাজপথে ট্রাক্টর চালালেন অধীর

কলকাতায় অভিনব ধারায় কেন্দ্রীয় কৃষি আইনের প্রতিবাদ করল কংগ্রেস।

রাজপথে অভিনব ধারায় কেন্দ্রীয় কৃষি আইনের প্রতিবাদ করল কংগ্রেস। ভিক্টোরিয়া থেকে মেয়ো রোড পর্যন্ত ট্রাক্টর চালিয়ে প্রতিবাদ কর্মসূচিতে অংশ নেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। তাঁর সাফ ঘোষণা মানুষের করুণ পরিণতির জন্য ‘দিদি-মোদী’র সরকার সমানভাবেই দায়ী। কষ্ট লাঘবে কংগ্রেস ও বাম জোটই আগামিতে বাংলা থেকে তৃণমূল সরকারকে উৎখাত করবে বলে দাবি করেন লোকসভার কংগ্রেস নেতা।

মোদী সরকারের কৃষি আইনের বিরুদ্ধে কার্যত স্তব্ধ পাঞ্জাব-হরিয়ানা। বিভিন্ন রাজ্যেও বিক্ষোভ হয়। সংসদ ও বাইরে প্রতিবাদ করেছে কংগ্রেস সহ বিরোধী দলগুলো। এদিন অধীর চৌধুরী বলেন, ‘আমাদের দেশে ৬৪ কোটি মানুষ কৃষির উপর নির্ভরশীল। নতুন এই আইনের জন্য কৃষককে তাদের তৈরি ফসল জলের দরে বিক্রি করতে হবে। তাদের সমস্যা আরও বেড়ে যাবে। এই জন্যেই পাঞ্জাব, হরিয়ানায় কৃষকদের প্রতিবাদ দেখা যাচ্ছে।’ একই ইস্যুতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের বিরোধিতা করে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বলেন, ‘বাংলায় কৃষকদের জন্য মান্ডির সুবিধা নেই। বাংলায় কৃষকদের অবস্থা খুবই খারাপ সেই কারণে তাদের অন্য রাজ্যে চলে যেতে হচ্ছে কাজের জন্য।’

আরও পড়ুন- মধ্যাহ্নভোজনের নেপথ্যের বাস্তব কী? শাহকে বিঁধে টুইটবার্তা অভিষেকের

এছাড়াও তিনি বলেন, ‘দিদি মোদী এক, কেবল তাদের রং আলাদা। তারা দুজনে একই কাজ করছেন। একদিকে দিদি একদিকে মোদী, দুই অপশক্তির বিরুদ্ধে আমরা লড়ছি। কংগ্রেস ও বাম একসঙ্গে দিদি মোদী দু-জনকে বাংলা থেকে তাড়াবে।’

কৃষি আইনের প্রতিবাদের সঙ্গে অমিত শাহের বাংলা সফরকে জুড়ে অধীরের কটাক্ষ, ‘অমিত শাহ কলকাতায় এসেছেন। কিন্তু এখানে কৃষকদের কথা, শ্রমিকদের কথা বলছেন না। দুই দিন ধরে কোথাও মতুয়া, কোথায় আদিবাসীদের বাড়িতে খাচ্ছেন। তিনি যদি আদিবাসীদের এতই ভালোবাসেন তাহলে কেন হাথরসের সময় চুপ করে ছিলেন?’

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Adhir chowdhuri slams agri bill by drive tractot on kolkata road

Next Story
বঙ্গ রাজনীতিতে ‘নতুন অধ্যায়’? শাহের সঙ্গে শোভন-বৈশাখীর বৈঠক ঘিরে জল্পনা
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com