scorecardresearch

বড় খবর

‘ড্রাই’ বিহারে বিষমদ কাণ্ডে মৃত বেড়ে ৩৯, ‘মদ যে খাবে, সে মরবেই’, সাফাই নীতীশের

গত ২০১৬ সালে বিহারে মদ নিষিদ্ধ ঘোষণা করে নীতীশ কুমার সরকার।

‘ড্রাই’ বিহারে বিষমদ কাণ্ডে মৃত বেড়ে ৩৯, ‘মদ যে খাবে, সে মরবেই’, সাফাই নীতীশের
বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার

বিহারে বিষমদ কাণ্ডে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৯। বিহারের সারণ জেলায় এই মর্মান্তিক ঘটনায় প্রশাসনের ভূমিকা প্রশ্নের মুখে। বৃহস্পতিবার নীতীশ কুমার রাজ্যে মদ নিষিদ্ধ করার নীতি নিয়ে ফের জনগণকে সচেতন করলেন। সাফ জানালেন, বিষমদ থেকে দূরে থাকতে। বললেন, “কেউ মদ খেলে সে মরবেই। এটাই আমাদের কাছে বড় দৃষ্টান্ত।”

তিনি বলেন, “মদ খুবই খারাপ, আর সেটা খাওয়া উচিত না।” তিনি সংবাদসংস্থা এএনআই-কে জানিয়েছেন বিষাক্ত মদ নিয়ে রাজ্যের মানুষকে সচেতন হতে হবে। ইতিমধ্যেই বিষমদ খেয়ে ৩৯টি প্রাণ ঝরে গিয়েছে। গত ২০১৬ সালে বিহারে মদ নিষিদ্ধ ঘোষণা করে নীতীশ কুমার সরকার। নীতীশ বলেছেন, তিনি আধিকারিকদের কড়া নির্দেশ দিয়েছেন, মদ তৈরি ও বিক্রি করতে দেখলেই দোষীদের গ্রেফতার করতে।

তবে নীতীশ এটাও স্পষ্ট করেছেন, কোনও গরিব মানুষকে গ্রেফতার করা যাবে না। তিনি এএনআই-কে জানিয়েছেন, “আমি সেই মানুষদের অন্য কাজের জন্য ১ লক্ষ টাকা দিতে রাজি। আমি টাকাও বাড়িয়ে দেব। কিন্তু কেউ যেন মদ ব্যবসায় না নামে।” সংবাদমাধ্যমকে নীতীশ বলেছেন, “মদ নিষিদ্ধ হওয়ার কারণে অনেকেই নেশা করা ছেড়ে দিয়েছেন। তাও কিছু সমস্যা তৈরি করে। আমি আধিকারিকদের জানিয়েছি, কারা গন্ডগোল করছে তাঁদের চিহ্নিত করে ধরতে।”

আরও পড়ুন ফের বিষমদ! মৃত অন্তত ২০, বিরোধীরা ‘মাতাল হয়ে গিয়েছেন’, অভিযোগ ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রীর

বিরোধীরা নিহতদের পরিজনকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার দাবি জানিয়েছে। তা নিয়ে বিহারের মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, এটার সমাধান হবে। ওই এলাকায় গিয়ে মানুষের সঙ্গে কথা বলতে হবে। এদিকে, বিষমদ কাণ্ডের জেরে বিহার বিধানসভা থেকে বিক্ষোভ সংসদেও পৌঁছেছে। এদিন রাজ্যসভা ১৫ মিনিটের জন্য মুলতুবি হয়ে যায় বিরোধীদের হই-হট্টগোলে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: As bihar hooch tragedy toll rises to 39 nitish says if someone consumes alcohol they will die