বড় খবর

পারস্পরিক বিরোধ ভুলতে গেরুয়া ‘দাওয়াই’ ভবানীপুরের ভোট

পদ্ম শিবিরের আদায়-কাঁচকলার সম্পর্কের নেতারাও ভবানীপুরের উপনির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়ালের হয়ে এক জোট বেঁধেছেন।

Bhabanipur byelection to bjp is forget partys inner disputes
প্রার্থীর নাম ঘোষণার পর থেকেই এক সুরে উপনির্বাচনের ময়দানে বিজেপির তাবড় রাজ্য নেতৃত্ব।

প্রার্থীর নাম ঘোষণার পর থেকেই এক সুরে উপনির্বাচনের ময়দানে নেমে পড়েছেন বিজেপির তাবড় রাজ্য নেতৃত্ব। আদায়-কাঁচকলার সম্পর্কের নেতারাও ভবানীপুরের উপনির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়ালের হয়ে এক জোট বেঁধেছেন। গেরুয়া শিবির নির্বাচনী প্রচারের হাইপ তুলতে সক্ষম হলেও ভোট বাক্সে তার প্রভাব কতটা পড়বে তা নিয়েই সন্দিহান রাজনৈতিক মহল।

চলতি বছরে এরাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে পরাজয়ের পর রাজ্য বিজেপি নেৃতৃত্ব নানা দিক থেকে ছন্নছাড়া হয়ে পড়েছিল। বাকযুদ্ধ যেন গৃহযুদ্ধে পরিণত হয়েছিল। রাজ্য বিজেপির প্রাক্তন সভাপতি তথাগত রায় তির ছুড়েছেন তো পাল্টা জবাব দিয়েছেন সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় বোমার পর বোমা ফাটিয়েছেন, তো বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ গোলা ছুড়েছেন রাজ্য সভাপতির দিকে তাক করে। যুব সভাপতির আক্রমণ থেকে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীও বাদ যাননি। দলের সর্বভারতীয় সহসভাপতির পদ পেয়ে, বিধায়ক হয়েও তৃণমূলে ফিরে যান মুকুল রায়। এত কান্ডের পর ভবানীপুরের উপনির্বাচন যেন বিজেপির কাছে একটু মুক্ত বাতাস বয়ে এনেছে।

আরও পড়ুন- ভবানীপুরে বিজেপি প্রার্থীকে দেখেই উঠল ‘জয় বাংলা’ ধ্বনি, অন্যায় দেখছে না তৃণমূল

দলের যুবনেত্রী আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়াল প্রার্থী হতেই অভিনন্দনের বার্তা এসেছে তথাগত রায়, বাবুল সুপ্রিয়র কাছ থেকে। রাজনীতি ছেড়ে দেওয়ার কথা ঘোষণার পরও নির্বাচন কমিশনে ভবানীপুর কেন্দ্রের স্টার ক্যামপেইনারের তালিকায় বাবুল সুপ্রিয়র নাম জমা দিয়েছে রাজ্য বিজেপি। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় হাজির ছিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। ছিলেন প্রাক্তন সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদী, সাংসদ অর্জুন সিং, এই কেন্দ্রের পরাজিত প্রার্থী রুদ্রনীলও। মানসিক চাপ বৃদ্ধি করতে উপনির্বাচনের মুখে শুভেন্দু তৃণমূল প্রার্থীকে কটাক্ষ করেছেন নন্দীগ্রামের হার নিয়ে। এককথায় বিজেপির জবরদস্ত ভবানীপুর অভিযান!

টিম বিজেপি ভবানীপুর কেন্দ্রে দলীর প্রার্থীর হয়ে রীতিমতো ঝাঁপিয়ে পড়েছে। রাজনৈতিক মহলের মতে, উপনির্বাচনে যতটা হাইপ তোলা যায় সেদিকে যথেষ্ট নজর দিয়েছে বিজেপি। চেষ্টার কোনও কসুর করছে না দল। প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেই দলের ছোট-বড় নেতারা প্রচারে নেমে পড়েছেন। ৩০ সেপ্টেম্বর ভবানীপুরে উপনির্বাচন। ফলপ্রকাশ ৩ অক্টোবর। বিধানসভা নির্বাচনেও গেরুয়া শিবিরের হাইপ কম ছিল না। ৩ থেকে ৭৭ হলেও গেরুয়া ঝড়ের লেশমাত্র ছিল না ২ মে। এবারে নির্বাচনী হাইপের প্রভাব কতাটা পড়ে তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে ৩ অক্টেবর পর্যন্ত। 

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Bhabanipur byelection to bjp is forget partys inner disputes

Next Story
ভবানীপুরে বিজেপি প্রার্থীকে দেখেই উঠল ‘জয় বাংলা’ ধ্বনি, অন্যায় দেখছে না তৃণমূলtmc supporters gives joy bangla slogan TO bhawanipur bjp candidate priyanka tibriwal campaigning
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com