অনুব্রতকে ফের তলব সিবিআইয়ের, বুধবারও হাজিরা এড়াতে পারেন তৃণমূল নেতা

গরু পাচার মামলায় বুধবার ফের তাঁকে তলব করেছে সিবিআই।

অনুব্রতকে ফের তলব সিবিআইয়ের, বুধবারও হাজিরা এড়াতে পারেন তৃণমূল নেতা
সিবিআই দফতরে অনুব্রত মণ্ডল।

মঙ্গলবারের পর বুধবারও সিবিআই তলব অনুব্রত মণ্ডলকে। শারীরিক অসুস্থতার কারণে গতকাল ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় হাজিরা এড়ালেও গরু পাচার মামলায় বুধবার ফের তাঁকে তলব করেছে সিবিআই। সূত্রের খবর, আজও গতকালের মতো শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে হাজিরা এড়াতে পারেন অনুব্রত। বীরভূমের জেলা তৃণমূল সভাপতির অসুস্থতার কথা জানিয়ে ফের সিবিআইকে চিঠি দেবেন তাঁর আইনজীবীরা।

অবশ্য গত বৃহস্পতিবার গরুপাচার মামলায় নিজাম প্যালেসে সিবিআই দফতরে হাজিরা দিয়েছিলেন অনুব্রত। তার পর দিন ফেরেন বীরভূমের বাড়িতে। সিবিআই যেন পিছু ছাড়ছে না ‘কেষ্ট দা’র। একটানা বেশ কিছুদিন ধরে কলকাতায় থাকার পর অবশেষে গত শুক্রবার বোলপুরে নিজের বাড়িতে ফিরেছেন অনুব্রত মণ্ডল। গত সপ্তাহে নিজাম প্যালেসে গরু পাচার মামলায় হাজিরা দিয়েছেন অনুব্রত। বারবার হাজিরা এড়ানোর পর এবার নিজে থেকেই হাজিরা দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন তৃণমূল নেতা।

গরু পাচার মামলার পাশাপাশি ভোট পরবর্তী হিংসা মামলাতেও নাম জড়িয়েছে বীরভূমের দোর্দণ্ডপ্রতাপ এই রাজনীতিবিদের। বীরভূমের ইলামবাজারের এক বিজেপি কর্মী খুনের ঘটনায় নাম জড়িয়েছে অনুব্রত মণ্ডলের। এবার সেই মামলতেই অনুব্রত মণ্ডলকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চান সিবিআই গোয়েন্দারা। কিন্তু গতকাল শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে হাজিরা এড়িয়েছেন অনুব্রত। আজ ফের গরু পাচার মামলায় তলব করেছে সিবিআই।

আরও পড়ুন কেষ্ট-মদনদের অসম্পূর্ণ চিকিৎসা, SSKM-র ডাক্তারদের বিরুদ্ধে বড় অভিযোগ! টুইট অনুপমের

এর আগেও এই মামলায় দু’বার অনুব্রত মণ্ডলকে তলব করেছিল সিবিআই। তবে হাজিরা এড়িয়েছিলেন তৃণমূল নেতা। এবার ফের একবার ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় অনুব্রত মণ্ডলকে ডেকে পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকরাী সংস্থা। আজ তাঁকে হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে মঙ্গলবারের মতো আজও ফের তিনি কলকাতায় আসছেন না বলে খবর। সিবিআই দফতরেও হাজিরা দিচ্ছেন না তিনি।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Cbi again summons tmc leader anubrata mandal in cow smuggling case

Next Story
ব্রাহ্মণ মুখ্যমন্ত্রীই চাই, ক্রমশই দাবি জোরালো হচ্ছে বিজেপিতে