বড় খবর


রাজনৈতিক প্রতিহিংসার আশঙ্কা, হস্তক্ষেপ চেয়ে রাজ্যপালকে চিঠি শুভেন্দুর

তাঁকে ও তাঁর অনুগামীদের পুলিশ যাতে মিথ্যা মামলায় না ফাঁসাতে পারে সেই বিযয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখার জন্যই রাজ্যপালকে চিঠি দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী।

তিনি ও তাঁর অনুগামীদের উপর রাজনৈতিক প্রতিহিংসার আশঙ্কা করছেন শুভেন্দু অধিকারী। চিঠি লিখে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়কে তা জানালেন সদ্য প্রাক্তন তৃণমূলের এই প্রভাবশালী বিধায়ক। তাঁকে ও তাঁর অনুগামীদের পুলিশ যাতে মিথ্যা মামলায় না ফাঁসাতে পারে সেই বিযয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখার জন্যই রাজ্যপালকে চিঠি দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। দুপুরে তৃণমূল বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফার পর স্বাভাবিকভাবেই শুভেন্দুর এই চিঠি ঘিরে আপাতত শোরগোল রাজ্য রাজনীতিতে।

বুধবার সন্ধ্যায় সেই চিঠির কথা টুইটে জানিয়েছেন রাজ্যপাল ধনকড়। টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী আজ চিঠি লিখে আমার হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন। তাঁর আশঙ্কা, কলকাতা পুলিশ বা রাজ্য পুলিশ তাঁর এবং তাঁর অনুগামীদের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক প্রতিহিংসাবশত ফৌজদারি মামলা রুজু করতে পারে।’

আরও পড়ুন: বিধায়ক পদে ইস্তফা দিয়েই তৃণমূল সাংসদের বাড়িতে শুভেন্দু, বাড়ল জল্পনা

চিঠিতে শুভেন্দু অধিকারী রাজ্যপালকে জানিয়েছেন যে, ‘আমি মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা দিয়েছি। এখন জানতে পারছি যে যাঁরা ক্ষমতাসীন তাঁরা আমার রাজনৈতিক অবস্থানের জন্য প্রতিহিংসাপরায়ণ হতে পারেন। রাজনৈতিক উদ্দেশেই আমার ও আমার অনুগামীদের বিরুদ্ধে পুলিশকে কাজে লাগিয়ে মিথ্যা মামলা করা হতে পারে। তাই বাধ্য হয়েই এই চিঠি লিখে আপনার হস্তক্ষেপ দাবি করছি।’

সিপিএম থেকে কংগ্রেস, হালে বিজেপি- গত দশ বছরে একাধিকবার মমতা সরকারের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে পুলিশকে কাজে লাগানোর অভিযোগে সরব হয়েছে। রাজ্যপাল থেকে রাষ্ট্রপতির কাছে বিভিন্ন সময় অভিযোগও জানানো হয়েছে। এবার সেই একই অভিযোগ উঠে এল তৃণমূলের সদ্য প্রাক্তন বিধায়কের চিঠিতে। মমতা মন্ত্রিসভার প্রাক্তন সদস্যের এহেন অভিযোগ যেন এই সরকারের বিরুদ্ধে বিরোধীদের করা অভিযোগই মান্যতা দিল।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Fear of political revenge suvendu letter to the governor dhankhar asking for intervention

Next Story
বিধায়ক পদে ইস্তফা দিয়েই তৃণমূল সাংসদের বাড়িতে শুভেন্দু, বাড়ল জল্পনাশুভেন্দু অধিকারী।
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com