scorecardresearch

প্রধানমন্ত্রীর শাস্তি মাথা পেতে নেবে আকাশ, বললেন কৈলাশ বিজয়বর্গীয়

কৈলাশ বিজয়বর্গীয় বলেন, “আমি দলের সব রকম সিদ্ধান্তকে সমর্থন করছি। সেই সিদ্ধান্ত যাই হোক না কেন আমি চাই এই বিতর্কের সমাপ্তি হোক।”

প্রধানমন্ত্রীর শাস্তি মাথা পেতে নেবে আকাশ, বললেন কৈলাশ বিজয়বর্গীয়
প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত, বললেন কৈলাশ বিজয়বর্গীয়

ইন্দোরে পুর আধিকারিককে ব্যাট দিয়ে পিটিয়ে খোদ প্রধানমন্ত্রীর তোপের মুখে পড়েছিলেন বিজেপির সাধারণ সম্পাদক কৈলাশ বিজয়বর্গীয় পুত্র আকাশ। সেই প্রসঙ্গেই এবার মুখ খুললেন কৈলাশ বিজয়বর্গীয়। তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রীই আমাদের সুপ্রিমো এবং আমার কাছে দলই প্রধান।” বিজেপি সূত্রে জানানো হয়েছে, বিজেপির জেলা সংগঠনের তরফে আকাশকে তাঁর এই আচরণের জবাবদিহি করতে বলা হয়েছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে কৈলাশ বিজয়বর্গীয় জানান, “আমি দলের সবরকম সিদ্ধান্তকে সমর্থন করছি। সেই সিদ্ধান্ত যাই হোক না কেন, আমি চাই এই বিতর্কের সমাপ্তি হোক। আমরা আমদের দলের একনিষ্ঠ কর্মী। এই বিষয়ে বিজেপি নেতৃত্বের যে কোন সিদ্ধান্তকেই আমরা গ্রহণ করতে প্রস্তুত। বিজেপি আমাদের কাছে সব, তাই চাই না এর কোনও ক্ষতি হোক।” মোদীর বক্তব্যর পরেই ভারতীয় জনতা পার্টির অন্দরে কৈলাশ-পুত্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলেই জানা যাচ্ছে। এ প্রসঙ্গে বিজয়বর্গীয়র সাফ জবাব, আকাশ ‘শো-কজ’ নোটিশ পেলেই তাঁর নিজের বক্তব্য দলের সামনে পেশ করবেন।

উল্লেখ্য, লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির অপ্রত্যাশিত ভালো পারফরম্যান্সের পিছনে যাঁর অন্যতম অবদান ছিল, সেই কৈলাশ বিজয়বর্গীয় এই ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তকেই চূড়ান্ত বলে ব্যাখ্যা করেন। তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রী আমাদের দলের প্রধান। তাঁর সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত এবং তাঁর নির্দেশাবলী অনুসরণ করা দলের কর্তব্য।” কৈলাশ বিজয়বর্গীয় আরও বলেন যে তিনি দৃঢ়প্রত্যয়ী এই ব্যাপারে। কারণ তাঁর বিশ্বাস, প্রধানমন্ত্রী কেবল দলের কথা ভেবেই সমস্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।

আরও পড়ুন, ছেলেকে ‘কাঁচা খেলোয়াড়’ বললেন কৈলাশ বিজয়বর্গীয়

প্রসঙ্গত, দিন দুই আগেই দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “দুর্ব্যবহার করে দলের নাম খারাপ করলে তা কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না।” দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্য বলেন, “ঔদ্ধত্য এবং দুর্ব্যবহার কখনোই বরদাস্ত করা হবে না। তা সে যে কেউ কিংবা যে কারোর ছেলে হোক না কেন।” উল্লেখ্য, প্রথমবারের জন্য মধ্যপ্রদেশ থেকে বিধায়ক পদে নির্বাচিত আকাশ বিজয়বর্গীয় ২৬ জুন ইন্দোরের পুর আধিকারিককে একটি বাড়ি ভাঙাকে কেন্দ্র করে মারধর করেন। এই ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে ‘অসন্তুষ্ট’ মোদী দলীয় বৈঠকে আকাশকে উল্লেখ করে বলেন, “নিবেদন, আবেদন, দনা-দন? এসব কী ধরনের ভাষা?” পুরপ্রধানকে প্রহার করার ঘটনার চারদিনের মধ্যে জামিনে ছাড়া পান আকাশ। কিন্তু বৈঠকে মোদীর কড়া বার্তা, ছাড়া পাওয়ার পর যাঁরা আকাশকে স্বাগত জানান, তাঁদের দল থেকে বহিস্কার করা হবে।

এদিকে কৈলাশ বিজয়বর্গীয় বলেন, “এই ঘটনায় আকাশ ইতিমধ্যেই দুঃখপ্রকাশ করেছে এবং দলের যাবতীয় সিদ্ধান্ত নিতে ও প্রস্তুত। মোদীজি ওর কাছে নিজের ঠাকুরদার মতো। দল যা সিদ্ধান্ত নেবে সেটা মাথা পেতে নিতে প্রস্তুত ও। আমিও আকাশকে বলেছি যে তাঁর অপরাধের দায় তাঁকে নিতেই হবে।”

Read the full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Kailash vijayvargiya says pm is supreme party can do what it wants