scorecardresearch

বড় খবর

কর্নাটকে নির্মলা সীতারমণের সফর ঘিরে তরজা অব্যাহত

‘‘নির্ধারিত কর্মসূচি মেনে চলছি। একটার পর একটা কর্মসূচি রয়েছে। এটাকে এলোমেলো করতে পারব না। যদি আধিকারিকরা গুরুত্বপূর্ণ হন, তবে আমার পরিবারও একইরকম গুরুত্বপূর্ণ। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে রাজ্যের মন্ত্রীর কথা শুনে চলতে হচ্ছে, অবিশ্বাস্য!’’

কর্নাটকে নির্মলা সীতারমণের সফর ঘিরে তরজা অব্যাহত
প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ, ফাইল ছবি, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

বন্যাবিধ্বস্ত কর্নাটকের কোড়াগু জেলায় কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের সফর ঘিরে শুরু হল জোর তরজা। বন্যা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে কোড়াগু জেলায় গিয়েছিলেন সীতারমণ। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কর্মসূচি নির্ধারণ করতে যান সে রাজ্যের মন্ত্রী সারা মহেশ। আর এ নিয়েই শুরু হয়েছে বিতণ্ডা। রাজ্যের মন্ত্রীর প্রস্তাব পেয়েই বেজায় চটে যান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। যা নিয়েই আপাতত শোরগোল পড়েছে দক্ষিণের ওই রাজ্যে। রাজ্যের মন্ত্রীর আচরণ নিয়ে যেমন প্রশ্ন তুলেছে প্রতিরক্ষামন্ত্রক। তেমনই আবার তাঁর মন্ত্রীর উপর সীতারমণ জোর খাটাতে চেয়েছিলেন বলে সমালোচনায় সরব হয়েছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া।

ঠিক কী ঘটেছিল? গত শুক্রবার বানভাসি কোড়াগুতে প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্ধারকাজ সরেজমিনে খতিয়ে দেখতে এলাকায় পরিদর্শনে যান সীতারমণ। সরকারি আধিকারিকদের নিয়ে সাংদিকদের সঙ্গে কথাবার্তার জন্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে প্রস্তাব দেন রাজ্যের মন্ত্রী মহেশ। যা শুনেই বেজায় চটে যান প্রতিরক্ষা মন্ত্রী।

আরও পড়ুন, কেরালার স্মৃতি এবার কর্নাটকে, ভারী বৃষ্টিতে বন্যা পরিস্থিতি, মৃত ৮

রেগে গিয়ে সীতারমণ বলেন, “নির্ধারিত কর্মসূচি মেনে চলছি। একটার পর একটা কর্মসূচি রয়েছে। এটাকে এলোমেলো করতে পারব না। যদি আধিকারিকরা গুরুত্বপূর্ণ হন, তবে আমার পরিবারও একইরকম গুরুত্বপূর্ণ। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে রাজ্যের মন্ত্রীর কথা শুনে চলতে হচ্ছে, অবিশ্বাস্য!” একইসঙ্গে রাজ্যের ওই মন্ত্রীকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, “আপনার কাছেও আমার গোটা দিনের কর্মসূচির তালিকা রয়েছে, যা আপনারও মানার কথা। যদি আপনার এ নিয়ে সমস্যা থেকে থাকত, তবে আগে এর সমাধান করতে পারতেন।”

রাজ্যের মন্ত্রীর আচরণ নিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রশ্ন তোলার ঘটনা ব্যাখ্যা করতে গিয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে পরে জানানো হয়েছে যে, এলাকা পরিদর্শনের পর নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী, প্রাক্তন সেনাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। বন্যায় ওই প্রাক্তন সেনাকর্মীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এই সময়ই রাজ্যের ওই মন্ত্রী সরকারি আধিকারিকদের সঙ্গে প্রথমে বৈঠক করার জন্য জোর দেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে। শীঘ্রই সরকারি আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করার জন্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে যেতে বলা হয়। সেখানে সাংবাদিক বৈঠকের ব্যবস্থা করা ছিল। সরকারি আধিকারিকদের সাংবাদিকদের সঙ্গে বসতে বলা হয়েছিল। বন্যা পরিস্থিতির পর্যালোচনা নিয়েই এই বৈঠক ছিল। সাংবাদিকদের সামনে সরকারি আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করা কার্যত নজিরবিহীন বলেই মনে করছে মন্ত্রক।

পরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সম্পর্কে রাজ্যের ওই মন্ত্রীর মন্তব্যের নিন্দা জানিয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে বলা হয় যে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বিরুদ্ধে এমন ব্যক্তিগত মন্তব্য খারাপ রুচিরই পরিচয়। একটি টিভি চ্যানেলে রাজ্যের ওই মন্ত্রী বলেন, “বন্যাদুর্গতদের কষ্ট উনি বুঝতনে যদি ঘরে ঘরে গিয়ে, সব ভোটারদের সঙ্গে দেখা করে, তাঁদের সমস্যার কথা শুনে উনি ভোটে দাঁড়াতেন। উনি তো সরাসরি কর্নাটক থেকে রাজ্যসভায় মনোনীত হয়েছেন।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Karnataka kodagu row defence minister nirmala sitharaman