কেন কেন্দ্রের আয়ুষ্মান প্রকল্প থেকে নাম তুলে নিল রাজ্য?

এখনও পর্যন্ত ১ কোটি মানুষ নাম লিখিয়েছেন 'প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য যোজনা'তে। ওদিকে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের সুবিধা পেয়েছেন ৪০ লক্ষ রাজ্যবাসী। ১৭৬.৬৫ কোটি টাকা কেন্দ্র থেকে রাজ্যে পাঠানো হয়েছিল ইতিমধ্যে। 

By: Abantikha Ghosh Kolkata  Updated: January 14, 2019, 04:09:53 PM

গত বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন, কেন্দ্রের ‘আয়ুষ্মান ভারত প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য যোজনা’ (পিএমজেএওয়াই) থেকে নাম তুলে নিচ্ছে রাজ্য। দিল্লি, তেলেঙ্গানা, ওড়িশা আগে থেকেই এই প্রকল্পে ছিল না। বরং কর্ণাটকের মতো কংগ্রেস শাসিত রাজ্য রয়ে গেছে পিএমজেএওয়াই-এর তালিকায়।

পশ্চিমবঙ্গ কেন বেরিয়ে গেল প্রকল্প থেকে?

   প্রকল্পের বিজ্ঞাপন জুড়ে থাকে প্রধানমন্ত্রীর ছবি। ৬০:৪০ অংশিদারিত্বের প্রকল্পে রাজ্যের দাবি ছিল বিজ্ঞাপনে সমান জায়গা দেওয়া হোক কেন্দ্র এবং রাজ্যকে। ১০ জানুয়ারি কেন্দ্রকে লেখা এক চিঠিতে রাজ্য সরকার বলেছে, প্রকল্পের নাম ‘প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য যোজনা’-র পরিবর্তে দেওয়া হোক ‘জন আরোগ্য যোজনা’।

রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রকের অতিরিক্ত মুখ্য সচিব রাজীব সিনহা চিঠিতে লিখেছেন, “কেন্দ্র এবং রাজ্যের মধ্যে ‘জন আরোগ্য যোজনা’-র মউ স্বাক্ষরিত হয়েছিল। রাজ্যের ইতিমধ্যে একটি জনপ্রিয় স্বাস্থ্য প্রকল্প রয়েছে ‘স্বাস্থ্যসাথী’ নামে। রাজ্য সরকার এই নামেই প্রকল্পের নাম রাখতে চেয়েছিল। আমাদের অবাক করে দিয়ে প্রকল্পের নাম পাল্টে ফেলা হয়। এটা শুধুমাত্র মউ-এর শর্ত লঙ্ঘন করাই নয়, তৃণমূল স্তরে প্রকল্প নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে”।

আরও পড়ুন, দেশদ্রোহিতা মামলায় চার্জশিটে কানহাইয়া কুমারের নাম

এখনও পর্যন্ত ১ কোটি মানুষ নাম লিখিয়েছেন ‘প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য যোজনা’তে। ওদিকে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের সুবিধা পেয়েছেন ৪০ লক্ষ রাজ্যবাসী। ১৭৬.৬৫ কোটি টাকা কেন্দ্র থেকে রাজ্যে পাঠানো হয়েছিল ইতিমধ্যে।

আয়ুষ্মান প্রকল্প থেকে রাজ্য নাম তুলে নেওয়ায় শুধু যে রাজ্যবাসীর একাংশই ক্ষতিগ্রস্ত হবেন না, এমনটা মনে করেছেন অনেকেই। কারণ উত্তর-পূর্ব ভারতের জনসংখ্যার একটা বড় অংশ চিকিৎসার জন্য কলকাতায় আসেন নিয়মিত।

অন্য রাজ্য কেন প্রকল্পের আওতায় এল না?

প্রতিটি রাজ্যেরই প্রকল্পভুক্ত না হওয়ার নিজস্ব কারণ রয়েছে। পিএমজেএওয়াই প্রকল্প চালু হওয়ার ৪০ দিন আগেই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিজু পট্টনায়কের নামে নতুন স্বাস্থ্য প্রকল্প চালু হয়েছে ওড়িশায়। বিজু স্বাস্থ্য কল্যাণ যোজনার আওতায় প্রতিটি পরিবার ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত স্বাস্থ্য বিমা পান। পরিবারের সদস্য মহিলা হলে বিমা পাবেন ৭ লক্ষ টাকা পর্যন্ত।

পশ্চিমবঙ্গের মতো দিল্লিরও প্রকল্পের নাম নিয়ে আপত্তি রয়েছে। সে রাজ্যের পক্ষ থেকে কেন্দ্রকে চিঠি দিয়ে বলা হয়েছিল প্রকল্পের নাম ‘মুখ্যমন্ত্রী আম আদমি স্বাস্থ্যবিমা যোজনা আয়ুষ্মান ভারত’ দেওয়া হোক। দিল্লির যুক্তি ছিল, সে ক্ষেত্রে কারা বিমার সুবিধা পাবেন, নাম থেকেই স্পষ্ট বোঝা যাবে তা। কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়, কেন্দ্রীয় প্রকল্প হওয়ায় নামের শেষে ‘আয়ুষ্মান ভারত’ রাখা যাবে না।

তেলেঙ্গানার ক্ষেত্রেও কেন্দ্র থেকে রাজি করানো যায়নি মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রশেখর রাওকে। হায়দরাবাদে একটি বৈঠকের সম্ভবনা রয়েছে। যদিও মত পালটালেও নতুন প্রকল্প নির্বাচনের আগে শুরু করা যাবে না। দরিদ্রসীমার নীচে বসবাসকারী পরিবারকে বছরে ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিমা দেয় তেলেঙ্গানার ‘আরোগ্যশ্রী’ প্রকল্প।

Read the full story in English

 

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Politics News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Mamata banerjee west bengal ayushman bharat pmjay scheme

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
হয়রানির আশঙ্কা
X