scorecardresearch

বড় খবর

মণিপুরে টলমল বিজেপি সরকার, অনাস্থা আনতে রাজ্য়পালের দ্বারস্থ কংগ্রেস

তিন বিজেপি বিধায়কের পদত্য়াগ ও সরকার থেকে এনপিপি-র সমর্থন প্রত্য়াহারের পরই বৃহস্পতিবার রাজ্য়পাল নাজমা হেপতুল্লার কাছে দ্বারস্থ হয় কংগ্রেস শিবির।

মণিপুরে টলমল বিজেপি সরকার, অনাস্থা আনতে রাজ্য়পালের দ্বারস্থ কংগ্রেস
বিজেপি-কংগ্রেস।

উত্তর-পূর্বের মণিপুরে টলমল পদ্ম-আসন। এন বীরেন সিংয়ের সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনতে উঠেপড়ে লাগল কংগ্রেস। তিন বিজেপি বিধায়কের পদত্য়াগ ও সরকার থেকে এনপিপি-র সমর্থন প্রত্য়াহারের পরই বৃহস্পতিবার রাজ্য়পাল নাজমা হেপতুল্লার কাছে দ্বারস্থ হয় কংগ্রেস শিবির। রাজ্য়ের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনতে বিশেষ অধিবেশন ডাকার আবেদন জানিয়েছে কংগ্রেস। একইসঙ্গে স্পিকার ওয়াই খেমচাঁদের অপসারণের দাবিতে নোটিস দিয়েছে কংগ্রেস।

জানা যাচ্ছে, স্পিকারকে অপসারণের দাবিতে ভারতীয় সংবিধানের ১৭৯ (সি) অনুচ্ছেদের আওতায় মণিপুর বিধানসভার সেক্রেটারিকে নোটিস দিয়েছেন কংগ্রেসের বিধায়ক কে মেঘচন্দ্র।

বুধবার সিএলপি নেতা ওক্রাম ইবোবি সিং জানান, বিজেপি থেকে যে তিনজন বিধায়ক পদত্য়াগ করেছেন, তাঁরা কংগ্রেসে যোগ দেবেন। এদিকে, বিজেপির অন্য়তম প্রধান শরিক ন্য়াশনাল পিপলস পার্টি (এনপিপি) সরকার থেকে সমর্থন তুলে নেওয়ার কথা জানিয়েছে। বিজেপির বদলে তারা কংগ্রেসকে সমর্থনের কথা জানিয়েছে। উল্লেখ্য়, এনপিপি-র ৪ বিধায়ক মন্ত্রিসভার সদস্য় ছিলেন।

আরও পড়ুন: আইনস্টাইনের উক্তি হাতিয়ার করে মোদী সরকারকে আক্রমণ রাহুলের

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের বিধানসভা নির্বাচনে মণিপুরে ৬০ আসনের বিধানসভায় ২১টি আসনে জিতেছিল বিজেপি। একক বৃহত্তম দল হিসেবে কংগ্রেস জিতেছিল ২৮টি আসনে। তৃণমূলের এক বিধায়ক, ৪ এনপিপি বিধায়ক ও ৪ নাগা পিপলস ফ্রন্টের বিধায়ক বিজেপির সঙ্গে জোট বাঁধে। যার জেরে মণিপুরের গদিতে বসে বীরেন সিংয়ের সরকার।

বুধবার তিন বিজেপি ও এনপিপি-র বিধায়কের পাশাপাশি তৃণমূল বিধায়ক ও এক নির্দল বিধায়কও সমর্থন প্রত্য়াহার করে নেন। বর্তমানে মণিপুর বিধানসভায় ৫৯ জন বিধায়ক রয়েছেন। একজন বিধায়কের সদস্য়পদ বাতিল করা হয়েছে।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Manipur congress serves notice to remove speaker asks guv for special house session