বড় খবর

মোদীর রাজ্যেই অস্বস্তিতে পদ্ম শিবির, বিজেপি ছাড়ছেন কৃষকরা

নয়া কৃষি আইনের প্রতিবাদেই গেরুয়া শিবির ত্যাগ করেছেন বলে জানিয়েছেন দলত্যাগীরা।

বড় দিনে কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে নয়া কৃষি আইনের পক্ষে সওয়াল করছেন প্রধানমন্ত্রী। কৃষকদের ‘ভুল’ বোঝানোরও অভিযোগ করেছেন তিনি। এর ২৪ ঘন্টার মধ্যেই মোদীর রাজ্যেই অস্বস্তি বাড়ল পদ্ম শিবিরের। গুজরাটের বারুচে বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিলেন ১০০জন কৃষক। নয়া কৃষি আইনের প্রতিবাদেই গেরুয়া শিবির ত্যাগ করেছেন বলে জানিয়েছেন দলত্যাগীরা।

কংগ্রেসে যোগদাতাদের মধ্যে ৭০ শতাংশেরও বেশি পাতিদার সম্প্রদায়ের। হাত শিবিরের তরফে বলা হয়েছে, আপরেইলি, সামলোদ, দাভালি, ভারথানা, কবিতা, নন্দ, পিপালিয়া, কেরিলা ও উমরাও গ্রামের পাতিদাররা বিজেপি ছেড়েছেন। এছাড়ও রয়েছে আদিবাসী সম্প্রদায়েরও বেশ কয়েকজন।

বারুচ কংগ্রেস সভাপতি পরিমলসিং রানার নেতৃত্বে এঁরা হাত শিবিরে যোগ দেন। তাঁর কথায়, ‘নবাগতরা বলেছেন ওরা আর বিজেপিকে গুরুত্ব দেবে না এবং তাঁদের এলাকায় কোনও উন্নয়ন কাজ হয়নি। আসন্ন স্থানীয় নির্বাচনে সবাই একযোগে কংগ্রেসকে শক্তিশালী করে লড়বো।’

আরও পড়ুন- মঙ্গলবার ফের কেন্দ্র-কৃষক বৈঠক, আরও এক জোটসঙ্গীকে হারাল বিজেপি

আপরেইলি পঞ্চায়েত প্রধান মহেশ প্যাটেল বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেস যোগ দিয়ে জানান, ‘আমি ৩৫ বছর বিজেপির সঙ্গে জড়িত। কিন্তু, নয়া কৃষি আইনের বিরোধী। তাই কংগ্রেসে যোগ দিলাম।’

বিজেপির বারুচ সভাপতি মারুতিসিং আটোদারিয়ার বলেছেন, ‘বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যোগদানের খবর জানি না। তবে আমাদের দলের সক্রিয় কোনও সদস্য কংগ্রেসে যাবেন না। দলের সম্পাদকের সঙ্গে কথা বলে পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখতে বলবো।’

Read in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: 100 bjp workers in bharuch join congress for unhappy with farm laws

Next Story
নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর বিরুদ্ধে লড়তে চান মদন মিত্র!
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com