scorecardresearch

বড় খবর

পোল্যান্ডের সীমান্তে অত্যাচারের মুখে শ’য়ে শ’য়ে ভারতীয়, টুইটারে সরব রাহুল গান্ধী

পরিস্থিতি এতটাই বাজে, যে অনেকের কাছেই কোনও খাবারও নেই। তাদের যদিও সব ধরনের সাহায্য করার চেষ্টা করছে ভারতীয় দূতাবাস।

পোল্যান্ডের সীমান্তে অত্যাচারের মুখে শ’য়ে শ’য়ে ভারতীয়, টুইটারে সরব রাহুল গান্ধী
রাহুল গান্ধী। ফাইল ছবি

ইউক্রেনে রাশিয়ান আক্রমণের পর থেকে সেদেশ থেকে পালাচ্ছেন শয়ে শয়ে মানুষ। অনেকই সীমান্ত অতিক্রম করে পোল্যান্ডে পৌঁছেছেন। কোনও যানবাহন না পায়ে পায়ে হেঁটে পোল্যান্ড সীমান্তে পৌঁছেছেন ভারতের বেশ কয়েকজন। তাঁরা জানিয়েছেন ইউক্রেনের পরিস্থিতি ভয়াবহ। ইউক্রেন সীমান্তে আটকে পড়া শ’য়ে শ’য়ে ভারতীয় ছাত্রছাত্রী সে দেশের সেনা ও নিরাপত্তারক্ষীদের হাতে তুমুল হেনস্থা ও নির্যাতনের শিকার হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। পোল্যান্ড ও ইউক্রেনের সীমান্তে ভারতীয় শিক্ষার্থীদের সীমান্ত পেরোতে না-দিয়ে মারধর করার একটি ভিডিও সামনে এসেছে, কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী সেটি সোমবার সকালে টুইটারে শেয়ারও করেছেন। সেখানে মেয়েদের পর্যন্ত চুলের মুঠি ধরে টানা হচ্ছে এবং রড দিয়ে পেটানো হচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। সীমান্তে কীরকম দুর্বিষহ অবস্থার মধ্যে তাদের পড়তে হচ্ছে, তা বর্ণনা করে গত আটচল্লিশ ঘন্টায় ভারতীয় ছাত্রছাত্রীরা অজস্র ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করেছেন।

উল্লেখ্য, ইউক্রেনের আকাশসীমা বন্ধ হওয়ায় সেদেশে বসবাসরত ভারতীয়দের সীমান্ত পার করে পার্শ্ববর্তী দেশে যেতে বলা হয়েছে। হাঙ্গেরি, রোমানিয়া, পোল্যান্ডের মতো দেশ থেকে ভারতীয়দের উদ্ধার করা হচ্ছে। অপারেশন গঙ্গা নামক একটি অভিযান চালানো হচ্ছে। তবে এর মধ্যে ইউক্রেন সীমান্তে ভারতীয়দের এই দৃশ্য চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। এই নিয়ে টুইট করেছেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া এক ভিডিও পোস্ট করেন রাহুল গান্ধী। দাবি করা হচ্ছে, ভিডিওটি ইউক্রেন সীমান্তে তোলা হয়েছে। সেখানে কয়েকজন পড়ুয়াকে সামরিক পোশাক পরিহিত রক্ষীরা মারছে। অভিযোগ, ইউক্রেনের সেনা পড়ুয়াদের সীমান্ত পার করতে দিচ্ছে না। সেই ভিডিও পোস্ট করে রাহুল গান্ধী লিখেছেন, ‘যেভারতীয় ছাত্ররা এই ধরনের সহিংসতায় ভুগছেন এবং তাদের পরিবারের সাথে রয়েছে আমার হৃদয়। কোনও অভিভাবকের এর মধ্যে দিয়ে যাওয়া উচিত না। ভারত সরকারের উচিত অবিলম্বে আটকে পড়া ভারতীয়দের উদ্ধার করার পরিকল্পনা ভাগ করে নেওয়া উচিত তাদের এবং তাদের পরিবারের সঙ্গে। আমরা আমাদের নিজেদের মানুষ ত্যাগ করতে পারি না।’

এদিকে এই আবহে ভারতীয় দূতাবাসের তরফে ভারতীয়দের ইউক্রেন থেকে উদ্ধার করতে সীমান্তে বাসের ব্যবস্থা করা হয়। উল্লেখ্য, কয়েক হাজার ভারতীয় ইউক্রেনে আটকে৷ এর মধ্যে বাংলার শতাধিক নাগরিকও রয়েছেন। এদের কেউ পড়ুয়া, কেউ বা চাকরিজীবী। শুকনো খাবার খেয়েই এখন তাঁরা আছেন। পরিস্থিতি এতটাই বাজে, যে অনেকের কাছেই কোনও খাবারও নেই। তাদের যদিও সব ধরনের সাহায্য করার চেষ্টা করছে ভারতীয় দূতাবাস। এই আবহে আটকে পড়া পড়ুয়ারা যত দ্রুত সম্ভব ভারতে ফিরে আসার অপেক্ষা করছেন। তাঁদের পরিবারের সদস্যরাও দিনরাত প্রার্থনা করছেন যাতে তাঁদের ঘরের ছেলে তাড়াতাড়ি ঘরে ফিরে আসেন।

আরো পড়ুন: ইউক্রেনের অসহায় মানুষের হাতে খাবার তুলে দিচ্ছেন স্বেচ্ছাসেবকরা, ভিডিও ভাইরাল

এদিকে আতঙ্কের মাঝেই যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেন থেকে ফিরিয়ে আনা হল ১৮২ ভারতীয় নাগরিককে। এয়ার ইন্ডিয়ার এক্সপ্রেস ফ্লাইট মঙ্গলবার সকালে রোমানিয়ার রাজধানী বুখারেস্ট থেকে মু্ম্বইয়ে নিয়ে ফিরেছে ১৮২ ভারতীয়কে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নারায়ণ রানে এদিন মুম্বই বিমানবন্দরে তাঁদের স্বাগত জানিয়েছেন। মঙ্গলবার সকাল ৭.৪০ মিনিটে বুখারেস্ট থেকে কুয়েত হয়ে মুম্বইয়ে নামে এয়ার ইন্ডিয়ার এই বিশেষ বিমান।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest National news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Cannot abandon our own people rahul gandhi on alleged abuse of indians in ukraine