scorecardresearch

বড় খবর

বিধায়ক, সাংসদ, মন্ত্রী থেকে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সাংবিধানিক পদে ধনখড়, একনজরে তাঁর উত্তরণ

মাসখানেক আগে এক শনিবারই তাঁর নাম উপরাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছিল এনডিএ। সেই সময় তিনি পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল ছিলেন।

vp jagdeep

বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ প্রার্থী জগদীপ ধনখড় শনিবারই উপরাষ্ট্রপতি পদে নির্বাচনে জয়ী হলেন। মাসখানেক আগে এক শনিবারই তাঁর নাম উপরাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছিল এনডিএ। সেই সময় তিনি পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল ছিলেন। রাজ্যপাল পদে বসার পর থেকেই ধনখড়কে ঘিরে সরগরম ছিল পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতি।

তৃণমূল নানা সময় অভিযোগ করেছিল যে ধনখড় বিজেপির কথা বেশি শোনেন। তবে, সেই ধনখড়কেই কিন্তু বারেবারে হাসিমুখে দেখা গিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে। শনিবার উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনেও দেখা গেল তৃণমূল ধনখড়ের ব্যাপারে নিরপেক্ষ অবস্থান ছিল। সংসদে তৃণমূলের ৩৯ জন সাংসদ রয়েছে। কিন্তু, দলগত ভাবে তৃণমূল কংগ্রেস ভোটদানে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নেয়।

একনজরে দেখে নেওয়া যাক, কে এই জগদীপ ধনখড় 

২০২২ সাল- ৬ আগস্ট উপরাষ্ট্রপতি পদে নির্বাচনে জয়ী হলেন জগদীপ ধনখড়।

২০১৯ সাল- ৩০ জুলাই পশ্চিমবঙ্গের ২৮তম রাজ্যপাল পদে দায়িত্ব নেন।

১৯৯৩-৯৮ সাল- রাজস্থানের দশম বিধানসভায় কিষাণগড়ের বিধায়ক। রাজস্থান হাইকোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন (জয়পুর)-এর সভাপতি (সর্বকনিষ্ঠ)। সুপ্রিম কোর্টেরও আইনজীবী।

১৯৮৯-৯১ সাল- নবম লোকসভায় রাজস্থানের ঝুনঝুনু লোকসভা কেন্দ্র থেকে সংযুক্ত জনতা দলের সাংসদ। ১৯৯০ সালে কেন্দ্রের সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী।

১৯৭৮ সাল- জয়পুরের রাজস্থান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি। তার আগে পদার্থবিজ্ঞানে বিএসসি (অনার্স)। চিতোরগড়ের সৈনিক স্কুল থেকে স্কুলশিক্ষা। কিথানা গ্রামের সরকারি বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক শিক্ষালাভ।

১৯৫১ সাল- রাজস্থানের ছোট্ট গ্রাম কিথানায় জন্ম। স্ত্রী সুদেশ ধনখড়। একমাত্র সন্তান কন্যা, কামনা।

রাজনৈতিক জীবনে দীর্ঘদিন ধরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ। সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শাসিত রাজ্যে রাজ্যপাল থাকাকালীনই তাঁকে উপরাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী করেছে এনডিএ। তাঁকে প্রার্থী করার দিনকয়েক আগেই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা এবং তৎকালীন রাজ্যপাল ধনখড় দার্জিলিঙে বৈঠক করেছিলেন। বিজেপি নেতৃত্ব অবশ্য তাঁকে অনেকদিন ধরেই ‘জনগণের রাজ্যপাল’ তকমা দিয়ে দিয়েছিলেন। সেই ধনখড় শনিবার উপরাষ্ট্রপতি পদে নির্বাচিত হওয়ার পর তাঁকে শুভেচ্ছাবার্তাতেও ভরিয়ে দিয়েছেন বিজেপি নেতৃত্ব। খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সাক্ষাৎ করে উপরাষ্ট্রপতি পদে জয়ী হওয়ার জন্য জগদীপ ধনখড়কে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন- বিপুল ভোটে জয়লাভ, দেশের পরবর্তী উপরাষ্ট্রপতি বাংলার প্রাক্তন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

ভোটের আগে বিজেপি নেতৃত্ব তাঁকে কৃষকের সন্তান বলেও প্রচার করেছেন। সাংবিধানিক পদাধিকার অনুযায়ী উপরাষ্ট্রপতি হলেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান। সেক্ষেত্রে আইনজ্ঞ ধনখড়কে উপরাষ্ট্রপতি হিসেবে পেলে দেশের সুবিধা হবে বলেই মনে করছেন বিজেপি নেতৃত্ব। উপরাষ্ট্রপতি পদে ধনখড় জয়ী হওয়ার পর সেকথা টুইট করে জানিয়েও দিয়েছেন অমিত শাহ-সহ বিজেপি নেতারা।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest National news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Jagdeep dhankhar vice presidential candidate