scorecardresearch

বড় খবর

গেহলটের পরে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী কে? চাপা উত্তেজনা, কংগ্রেস বিধায়কদের মুখে কুলুপ

হাইকমান্ডের মনরক্ষায় কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতেই হচ্ছে গেহলটকে। ছাড়তে হচ্ছে মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সি।

গেহলটের পরে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী কে? চাপা উত্তেজনা, কংগ্রেস বিধায়কদের মুখে কুলুপ
অশোক গেহলট

দলে গণতন্ত্র আছে। এটা দেখাতে কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্ব এখনও রাজস্থানের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করেনি। বদলে বিধায়কদের বৈঠকে পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঠিক হবে বলেই জানিয়েছে। এই ব্যাপারে দলীয় বিধায়কদের সঙ্গে বৈঠক করতে রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে ও রাজস্থানের ইনচার্জ অজয় মাকেনকে দায়িত্ব দিয়েছেন কংগ্রেস নেতৃত্ব। যদিও রাজস্থান কংগ্রেসের বিধায়কদের বিশ্বাস, হাইকমান্ড ইতিমধ্যেই সিদ্ধান্ত নিয়ে নিয়েছে। তাঁদের কাজ শুধু হাইকমান্ডের সিদ্ধান্তকে সমর্থন করা।

এর মধ্যেই রবিবার সন্ধ্যায়, মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের বাসভবনে কংগ্রেসের একটি গুরুত্বপূর্ণ সভা ডাকা হয়েছে। গেহলট দলের সভাপতি নির্বাচনে প্রার্থী। আরও খোলসা করে বললে হাইকমান্ডের সমর্থিত প্রার্থী তিনি। তাই শশী থারুর বা যে কেউ নাম-কা-ওয়াস্তে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করুন না-কেন, গেহলটের পরবর্তী কংগ্রেস সভাপতি হওয়া একপ্রকার নিশ্চিত।

রাজস্থান কংগ্রেসের বিধায়কদের বেশ কয়েকজন দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানিয়েছেন, হাইকমান্ড পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী পদে যে নামই ঠিক করুক না-কেন, কংগ্রেস কর্মী হিসেবে, তাঁরা সেই নাম সমর্থন করবেন। এই ব্যাপারে সাদুলপুর (চুরু) বিধায়ক কৃষ্ণা পুনিয়া বলেন, ‘আমি একজন কংগ্রেস কর্মী। হাইকমান্ড যাই সিদ্ধান্ত নিক না কেন, যেই আমাদের নেতা হোক না-কেন, সেই নামটাই আমাদের পছন্দের। তাই, হাইকমান্ডই শেষ সিদ্ধান্ত নেবে। রাজস্থান কংগ্রেসের অন্যতম নেতা তথা বারমেরের সিওর-এর বিধায়ক আমিন খানও বলেছেন যে, ‘পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন, সেই নাম দিল্লি থেকেই ঠিক হয়েছে। আমরা সেই সিদ্ধান্ত মেনে নেব।’

আরও পড়ুন- ২৪-এ মোদীকে হারাতে চান নীতীশ, সব বিরোধীকে জোটে আহ্বান জেডি (ইউ) সুপ্রিমোর

ধোলপুরের বারির বিধায়ক গিররাজ সিং মালিঙ্গা, ঠাট্টার সুরে বলেছেন, ‘কে মুখ্যমন্ত্রী হবেন, সেটা হাইকমান্ডই ঠিক করবে। আমার কথায় মুখ্যমন্ত্রীর সিদ্ধান্ত হলে আমি বলতাম, আমাকে করুন।’ জয়পুরের কিশানপোলের কংগ্রেস বিধায়ক আমিনুদ্দিন কাগজির মতো অন্যান্যরাও এখন দেখার অপেক্ষায় আছেন, কে পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী হয়। এমনকী, তাঁরা নিজেদের পছন্দ জানাতেও নারাজ। এই বিধায়করা বলছেন, ‘আমরা অপেক্ষা করব এবং দেখব কী হয়। কারও বিরুদ্ধে আমাদের কোনও অভিযোগ নেই।’

তবে, মুখে যাই বলুন, পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন, তা-ই নিয়ে এখন রীতিমতো চাপা উত্তেজনায় ভুগছেন রাজস্থান কংগ্রেসের বিধায়করা। তাঁদের অনেকের আচরণেই সেটা ধরা পড়ছে। যেমন গেহলট সরকারের উপজাতি দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী অর্জুন সিং বামনিয়া। মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে কাকে পছন্দ? প্রশ্নটা শুনেই চটে গেলেন বামনিয়া। ছুড়ে দিলেন পালটা প্রশ্ন, ‘আমি আপনাকে কেন বলব?’ তবে, রাজস্থান কংগ্রেসের একাংশের ধারণা, গেহলট বিদায়ের পর্বে মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পাল্লা ভারী তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী শচীন পাইলটের দিকে। আর, সেই কারণেই ক্ষুব্ধ গেহলট শিবিরের বিধায়করা।

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Rajasthan cong mlas says that name will come from high command