Sisodia says PM should apologise if I am not arrested: ফের স্টিং, আগেও জেলে রাখতে পারেনি এবারও মুখ পুড়বে, মোদীকে চ্যালেঞ্জ সিসোদিয়ার | Indian Express Bangla

ফের স্টিং, আগেও জেলে রাখতে পারেনি এবারও মুখ পুড়বে, মোদীকে চ্যালেঞ্জ সিসোদিয়ার

আপ সরকারকে অভিযুক্ত করে বৃহস্পতিবার ফের স্টিং অপারেশনের ভিডিও প্রকাশ করেছে বিজেপি।

ফের স্টিং, আগেও জেলে রাখতে পারেনি এবারও মুখ পুড়বে, মোদীকে চ্যালেঞ্জ সিসোদিয়ার
মণীশ সিসোদিয়া

দিল্লির রাজনীতিতে ফের স্টিং অপারেশনের দাপাদাপি। তেহলকা ডট কম বাজপেয়ী জমানায় যে পথ দেখিয়েছিল, অতি সম্প্রতি সেই পথ ধরে আম আদমি পার্টিকে বারবার বিদ্ধ করেছেন বিজেপি নেতৃত্ব। দিল্লি রাজ্যের শাসক দল বৃহস্পতিবার ফের স্টিং-এ বিদ্ধ হলেন। ভিডিও প্রকাশ করেছে বিজেপি। যেখানে দিল্লি সরকারের বাতিল আবগারি নীতির এক সুবিধাভোগীকে বলতে শোনা গিয়েছে, ওই আবগারি নীতি এমনভাবে প্রণয়ন করা হয়েছিল, যাতে বাছাই কয়েকজনই সুবিধা পায়।

জবাব দিতে দেরি করেনি আম আদমি পার্টিও। দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া বলেন, ‘সিবিআই আমার বাড়িতে অভিযান চালিয়েছে, কিন্তু কিছুই পায়নি। ওরা আমার লকারেও তল্লাশি করেছে। সেখানও কিছু পায়নি। এবার এই স্টিং সামনে এনেছে বিজেপি। সিবিআই এবং ইডিরও এই বিষয়ে তদন্ত করা উচিত। অভিযোগ সঠিক হলে সোমবারের মধ্যে আমাকে গ্রেফতার করতে হবে। তা না-হলে, প্রধানমন্ত্রীর উচিত সোমবারের মধ্যে এই ভুয়ো স্টিং-এর জন্য আমার কাছে ক্ষমা চাওয়া।’

কয়েকদিন আগেই এমন এক স্টিং অপারেশনের ভিডিও বিজেপি প্রকাশ করেছিল। তারপর সিবিআই আর ইডি বাতিল আবগারি নীতির মূল সুবিধাভোগী হিসেবে মণীশ সিসোদিয়াকে কাঠগড়ায় তুলে ব্যাপক অভিযান চালায়। কিন্তু, গোয়েন্দারা হাজারো চেষ্টা করেও সিসোদিয়ার বিরুদ্ধে কোনও দুর্নীতির তথ্য পাননি। যে আবগারি নীতি দিল্লি সরকার বিতর্কের পর বাতিল করেছে, সেই দফতর সিসোদিয়াই দেখতেন।

বিজেপির অভিযোগ ছিল, সিসোদিয়া এই নীতির প্রত্যক্ষ সুবিধাভোগী। আর, সিসোদিয়ার দৌলতে কেজরিওয়াল সুবিধা পেয়েছেন। তাঁরা কিছু বাছাই করা ব্যক্তিকে আবগারির লাইসেন্স পাইয়ে দিয়েছেন। বিনিময়ে সেই সব ব্যক্তিদের থেকে অর্থ নিয়েছেন। আর, সেই অর্থ কেজরিওয়াল ও সিসোদিয়া মিলে পঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচনে ব্যয় করেছেন। গল্প হিসেবে এটা বেশ ভালো হলেও এমন দুর্নীতির কোনও তথ্যই তল্লাশি করেও পায়নি ইডি-সিবিআই। ফলে বিজেপির মুখ পুড়েছে।

আবার সেই বাতিল আবগারি নীতি নিয়েই স্টিং অপারেশন। সেই সিসোদিয়াকেই কাঠগড়ায় তোলার চেষ্টা। ফলে, এবার আর ছাড়তে নারাজ দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী। তাঁর অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এই সব তল্লাশির মূলে। তাঁরা দিল্লি রাজ্যের বিরোধীশাসিত সরকারকে বিপাকে ফেলতে চান। সেই কারণেই বারবার তল্লাশি করে হেনস্তার চেষ্টা করছেন। কিন্তু, এবারও তাঁদের মুখ পুড়বে।

আরও পড়ুন- লোকসভা নির্বাচনে তিনিই বিরোধী জোটের নেতা, প্রতিশ্রুতির বন্যা ছুটিয়ে বোঝালেন নীতীশ

স্টিং অপারেশনের ভিডিও প্রকাশ করে বিজেপির মুখপাত্র সুধাংশু ত্রিবেদী অবশ্য সাংবাদিক বৈঠকে দাবি করেছেন, সিবিআইয়ের এফআইআরে অভিযুক্তের তালিকায় ৯ নম্বরে অমিত অরোরার নাম আছে। অরোরা আবার সিসোদিয়ার ঘনিষ্ঠ বলেই দাবি করেছে সিবিআই। তিনি বাডি রিটেল প্রাইভেট লিমিটেড সংস্থার ডিরেক্টর। সেই প্রসঙ্গ টেনে বিজেপি মুখপাত্র সুধাংশু ত্রিবেদীর দাবি, ‘ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে লোকটি বলছে কীভাবে রীতিমতো সংগঠিত পদ্ধতিতে আবগারি নীতি আপ সরকার তৈরি করেছিল। যাতে কিছু ব্যক্তিকে আর্থিক সুবিধা পাইয়ে দেওয়া যায়।’

পালটা সিসোদিয়ার সাংবাদিক বৈঠকের প্রশংসা করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। মোদীকে চ্যালেঞ্জ ছোড়া প্রসঙ্গে নিজের ডেপুটির প্রশংসা করে কেজরিওয়াল বলেন, ‘বাহ, মণীশ! একজন সৎ ও সাহসী ব্যক্তিই এমন চ্যালেঞ্জ দিতে পারেন। আমি নিশ্চিত যে বিজেপি আপনার চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করবে। পুরো দেশ আপনার কাজ এবং আপনার সততা নিয়ে গর্বিত। তাই তারা আপনার কাজকে ভয় পাচ্ছে। এটি বন্ধ করতে চাইছে। আপনি এগিয়ে চলুন।’

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Sisodia says pm should apologise if i am not arrested

Next Story
কেন্দ্রে ক্ষমতায় এলে পিছিয়ে পড়া রাজ্যগুলিকে ‘বিশেষ মর্যাদা’, বিরাট ঘোষণা নীতীশের