বড় খবর

হুডখোলা জিপে বিরাট রোড শো, সোমবার শহরের রাজপথে শোভন-বৈশাখী ঝড়

এই প্রথম তাঁদের নেতৃত্বে কলকাতার রাজপথে নামছে বিজেপি। সোমবার বিকেল তিনটেয় আলিপুর থেকে রাজ্য বিজেপির সদর দফতর পর্যন্ত বাইক মিছিল করবে বিজেপি।

আর রাখঢাক নয়, এবার বিজেপির পদ্মপতাকা নিয়েই খাস কলকাতায় ঝড় তুলবেন শোভন-বৈশাখী জুটি। এই প্রথম তাঁদের নেতৃত্বে কলকাতার রাজপথে নামছে বিজেপি। সোমবার বিকেল তিনটেয় আলিপুর থেকে রাজ্য বিজেপির সদর দফতর পর্যন্ত বাইক মিছিল করবে বিজেপি। আর সেই রোড শোয়ে হুডখোলা জিপে থাকবেন শোভন-বৈশাখী। সঙ্গে থাকবেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয়, শঙ্কুদেব পণ্ডা ও রাকেশ সিং। তার আগে আজ রাতে শোভনের গোলপার্কের ফ্ল্যাটে কলকাতা জোনের কোর কমিটির বৈঠক রয়েছে। শোভন-বৈশাখী ছাড়াও ওই বৈঠকে আরও কয়েকজন বিজেপি নেতা থাকবেন বলে জানা গিয়েছে।

দলে যোগ দিয়েছেন দেড় বছর আগে। কিন্তু এতদিনে কোনও মিটি-মিছিল তো দূর, গেরুয়া শিবিরের কোনও কর্মসূচিতেও দেখা যায়নি শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় জুটিকে। কিছুদিন আগে মিল্লি-আল-আমিন কলেজে অচলাবস্থা নিয়ে রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের মন্তব্যে অপমানিত হয়ে রাজ্যপালের কাছে নালিশ করেছিলেন শোভন-বৈশাখী। কয়েকদিন আগে অধ্যাপনা ছাড়ার কথাও ঘোষণা করেন বৈশাখী।

আরও পড়ুন ‘বাংলায় পদ্ম ফোটাবই’, জঙ্গলমহল থেকে চ্যালেঞ্জ শুভেন্দুর

কিন্তু একুশের ভোটের আগে বড় উপহার পেয়েছেন শোভন-বৈশাখী জুটি। বঙ্গ বিজেপির তরফে কলকাতায় বিজেপির পর্যবেক্ষক করা হয় শোভনকে। তাঁর ডেপুটি সহ-পর্যবেক্ষক হয়েছেন তাঁরই বান্ধবী বৈশাখী। বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দলীয় সূত্রে খবর, কলকাতার প্রাক্তন মেয়র তথা একদা দক্ষিণ কলকাতা ও শহরতলির তৃণমূলের দক্ষ সাংগঠনিক নেতা শোভনকে কাজে লাগাতে চাইছে বিজেপি। এবার সেই কাজ শুরু করল বঙ্গ বিজেপি। শোভন-বৈশাখীকে কলকাতার রাস্তায় রোড শো করিয়ে তৃণমূলকে বার্তা দিতে চায় গেরুয়া শিবির।

জানা গিয়েছে, রাতে বৈঠকের পর সাংবাদিক সম্মেলন করতে পারেন শোভন। সূত্রের খবর, সোমবার শোভনের হাত ধরে কলকাতা পুরসভার কিছু বিদায়ী কোঅর্ডিনেটর বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন। অন্যদিকে, বৈশাখীর ঘনিষ্ঠ কিছু ওয়েবকুপার সদস্য অধ্যাপক-শিক্ষাবিদ পদ্মপতাকা হাতে নিতে পারেন ওইদিন। প্রসঙ্গত, জেলায় শক্তিবৃদ্ধি হলেও কলকাতায় এখনও সেভাবে সংগঠন মজবুত করতে পারেনি বিজেপি। একইসঙ্গে কলকাতা সাংগঠনিক জেলা সংগঠনে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব তুমুল। কিছুদিন আগে শোনা যাচ্ছিল, দলীয় নেতৃত্বের উপর গোঁসায় তৃণমূলে ফিরতে চলেছেন শোভন। কিন্তু টিম পিকের আপত্তিতে বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে তাঁর ঘরওয়াপসি। এরপর দলের রাজ্য কমিটিতে আনা হয় শোভন-বৈশাখীকে।

আরও পড়ুন ‘আব্বাস সিদ্দিকির পাশে থাকবে মিম’, রাজ্যে নতুন জোটের জল্পনা উসকে ঘোষণা ওয়েইসির

কিন্তু গত নভেম্বরে রাজ্যে এসে শোভন-বৈশাখীর সঙ্গে বৈঠক করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তারপরই এবার বড় দায়িত্ব পেলেন দুজনে। আগেও দলের কাছে কলকাতায় কাজ করতে চান বলে জানিয়েছিলেন শোভন। সেরকম পদ যেন তাঁকে দেওয়া হয় আবদার করেছিলেন। শেষপর্যন্ত ভোটের মুখে সেই দাবি মেনে নিয়েছে বিজেপি। এবার গেরুয়া শিবিরের এই চাল ভোটে কতটা কার্যকর হয় সেটাই দেখার।

Get the latest Bengali news and State news here. You can also read all the State news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Sovan chatterjee and baishakhi banerjee to kolkata roads for massive rally

Next Story
মুর্শিদাবাদের মাটিতে মমতাকে ‘সিরাজউদ্দৌলা’র সঙ্গে তুলনা রাজ্যের মন্ত্রীর
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com