বড় খবর

‘জাতীয়’ অস্তিত্বের সংকটে তৃণমূল-সহ আরও দুই দল, কড়া নোটিস নির্বাচন কমিশনের

লোকসভা নির্বাচনের পর্যদুস্ত হওয়ার পরেও কেন এই তিন দলের জাতীয় তকমা বজায় থাকবে, তা জানতে চাওয়া হয়েছে কমিশনের তরফে।

mamata banerjee, tmc, election commission,
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বড় সংকটের মুখে তৃণমূল কংগ্রেস (এআইটিএমসি), ন্যাশন্যালিস্ট কংগ্রেস পার্টি (এনসিপি) এবং কমিউনিস্ট পার্টি অফ ইন্ডিয়া (সিপিআই)। এই তিন দলের মুকুট থেকেই এবার খসতে পারে ‘জাতীয় দলে’র তকমা। সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে এই দলগুলির করুণ ফলাফলের পর দিল্লির নির্বাচন সদন দলগুলির কাছে লিখিতভাবে জানতে চেয়েছে, কেন তাদের ‘জাতীয়’ তকমা কেড়ে নেওয়া হবে না? বৃহস্পতিবার এই তিন রাজনৈতিক দলকে শো-কজ নোটিশ পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন। জানা যাচ্ছে, আগামী ৫ অগাস্টের মধ্যে শরদ পাওয়ার নেতৃত্বাধীন ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল কংগ্রেস এবং কমিউনিস্ট পার্টি অফ ইন্ডিয়াকে জবাবদিহি করতে হবে।

আরও পড়ুন: ইডি জিজ্ঞাসাবাদের পর কী বললেন ঋতুপর্ণা?

উল্লেখ্য, বিধি অনুযায়ী, কোনও রাজনৈতিক দলকে জাতীয় দলের তকমা বজায় রাখতে গেলে কমপক্ষে চারটি রাজ্যের প্রতিটি থেকে নূন্যতম ৬ শতাংশ ভোট পেতে হবে। অথবা, কমপক্ষে তিনটি রাজ্য থেকে লোকসভার মোট আসনের ২ শতাংশ পেতে হবে। কিংবা, কমপক্ষে চারটি রাজ্যে ‘রাজ্য দল’ হিসেবে স্বীকৃত হতে হবে। প্রসঙ্গত, তৃণমূল কংগ্রেস, ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টি কিংবা সিপিআই এই তিন শর্তের কোনওটিই পূরণ করতে পারেনি। ফলে মনে করা হচ্ছে, এই তিনটি রাজনৈতিক দলের থেকে ‘জাতীয় দলে’র তকমা সরে যেতে পারে। সেক্ষেত্রে বিজেপি, কংগ্রেস, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি, সিপিআই(এম) এবং বিএসপি-র মুকুটেই কেবল থাকবে ‘জাতীয়’ পালক।

নির্বাচনী প্রতীক বিধি ১৯৬৮ অনুসারে, যদি কোনও রাজনৈতিক দল তার ‘সর্বভারতীয় দলে’র তকমা একবার হারিয়ে ফেলে, সেক্ষেত্রে সর্বভারতীয় স্তরে নির্বাচনে লড়াই করার সময় অভিন্ন প্রতীক ব্যবহার করতে পারবে না। উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে, যদি এই সিদ্ধান্ত কার্যকরী হয় সেক্ষেত্রে তৃণমূল কংগ্রেস পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া দেশের অন্যত্র ঘাসফুল প্রতীকে আর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবে না। যে যে রাজ্যে তাঁরা ক্ষমতায় থাকবে বা স্বীকৃত ‘রাজ্য দল’ হবে, কেবল সেখানেই নিজস্ব প্রতীক ব্যবহার করতে পারবে।

আরও পড়ুন: ‘মমতা পারছেন না, তাই তৃণমূল সভাপতি প্রশান্ত কিশোর’

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের পরে সিপিআই, বিএসপি, এনসিপি’র জাতীয় দলের তকমা হারানোর মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। কিন্তু সেই সময় আগামী দুটি নির্বাচন দেখে নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে নির্বাচন কমিশন। নতুন নিয়মে বলা হয়, রাজনৈতিক দলগুলির জাতীয় এবং রাজ্যভিত্তিক দলের তকমা পাঁচ বছরের পরিবর্তে দশ বছর অন্তর পুনর্বিবেচনা করা হবে। তবে এবার নির্বাচন কমিশন এই আর নিয়ম শিথিল করবে না বলেই সূত্রের খবর।

Read the full story in English

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: The ec served showcause notices to three political parties seeking explanation on their national party status

Next Story
দ্বিতীয় সময়সীমা পার, কর্ণাটক সংকটের সমাধান অধরাkumaraswamy, কুমারস্বামী
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com