scorecardresearch

‘মুকুল রায় তৃণমূলের হয়ে কাজ করছেন’, তীর্যক মন্তব্য অভিষেকের

‘‘চাণক্য কি না জানি না, তবে চাণক্যের নীচে মেড ইন চায়না লেখা থাকা উচিত। তিনি নিজেকে সর্বভারতীয় নেতা হিসেবে দাবি করছেন, অথচ নিজের পাড়ার কাউন্সিলরকেই রক্ষা করতে পারছেন না’’।

abhishek, mukul, অভিষেক, মুকুল
অভিষেক ও মুকুল রায়।

মুকুল রায় তৃণমূলের হয়ে কাজ করছেন! এমন বিস্ফোরক দাবিই করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো তথা তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার মুকুলের হাতযশেই বিজেপির ‘দখলে’ যাওয়া কাঁচরাপাড়া পুরসভা ‘পুনরুদ্ধার’ করে অভিষেক কটাক্ষের সুরে বলেন, ‘‘মুকুলবাবু তৃণমূলের হয়ে কাজ করছেন। ওঁর হাত ধরে যাঁরা যাচ্ছেন (বিজেপিতে), তাঁরাই ফিরে আসছেন তৃণমূলে। মুকুলবাবুর যোগ্যতা কোথায়, বিজেপি সেটা প্রশ্ন করুক’’। প্রসঙ্গত, লোকসভা ভোটের পর তৃণমূলে কার্যত ভাঙন ধরিয়ে একের পর এক তৃণমূল নেতা-কর্মীদের বিজেপিতে যোগদান করান মুকুল রায়। হালিশহর, কাঁচরাপাড়া-সহ বেশ কিছু পুরসভার কাউন্সিলরদরে দলবদল করিয়ে মুকল রায়রা দাবি করেন ওই পুরসভাগুলো বিজেপির দখলে। কিছুদিনের মধ্যেই মমতা বাহিনীর ‘কৌশলে’ তৃণমূলের সেইসব ‘হাতছাড়া’ হওয়া পুরসভাগুলো ফের দখল করেছে বলে দাবি করেছে শাসক শিবির। এ প্রেক্ষিতেই মুকুলের উদ্দেশে এদিন অভিষেকের এই তীর্যক মন্তব্য তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: মমতা বিজেপির সমর্থন চেয়েছেন, বিস্ফোরক মন্তব্য মুকুলের

এদিন দলবদলের প্রসঙ্গে মুকুলকে হুঁশিয়ারি দিয়ে অভিষেক আরও বলেন, ‘‘নিজেরে ছেলেকে ধরে রাখতে পারবেন তো?’’। উল্লেখ্য, ক’দিন আগেই মুকুল রায়ের হাত ধরে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন বীজপুরের বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়।

আরও পড়ুন: মুকুল রায়কে চ্যালেঞ্জ তৃণমূলের, কাঁচরাপাড়া ‘পুনরুদ্ধার’ মমতা বাহিনীর

এদিকে, এদিন সাংবাদিক বৈঠকে বিজেপি নেতা মুকুল রায় ফের দাবি করেন, ‘‘আরও ১০৭ জন বিধায়ক বিজেপিতে আসছেন। এঁদের মধ্যে অধিকাংশই তৃণমূলের’’। এ প্রসঙ্গে মুকুলকে কটাক্ষের সুরে অভিষেক বলেন, ‘‘ওঁকে কেউ বলছেন বঙ্গ রাজনীতির চাণক্য, কেউ বলছেন মাস্টারস্ট্রোক, কেউ বলছেন দোর্দন্ডপ্রতাপ নেতা। চাণক্য কি না জানি না, তবে চাণক্যের নীচে মেড ইন চায়না লেখা থাকা উচিত। তিনি নিজেকে সর্বভারতীয় নেতা হিসেবে দাবি করছেন, অথচ নিজের পাড়ার কাউন্সিলরকেই রক্ষা করতে পারছেন না। নিজের গড় রক্ষা করতে পারছেন না। তো লজ্জা হওয়া উচিত। সে নাকি ১০৭ জন বিধায়কের সঙ্গে কথা বলবে! যদি নীতিবোধ থাকে, তাহলে অন্য বিধায়কদের সঙ্গে কথা বলার আগে একশো বার ভাববেন। আগে বলত ১০০, এখন বলছে ১০৭, ক’দিন বাদে বলবে ১১৭, বাংলায় একটা কথা আছে না, ঘরে নেই নুন, ছেলে আমার মিঠুন! মুকুল রায়ের ক্ষেত্রে একথাই প্রযোজ্য’’।

অন্যদিকে, ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ বলেন, ‘‘যাঁরা বিজেপিতে গিয়েছেন, তাঁদের প্রত্যেকের সঙ্গে যোগাযোগ করছে দল। কাদের দল নেবে, কাদের নেবে না, সেটা দল সিদ্ধান্ত নেবে’’।

লোকসভা ভোট মেটার পর বঙ্গ রাজনীতিতে যেভাবে তৃণমূল-বিজেপি চাপানউতোর চলছে, সেখানে এদিন মুকুল রায়কে অভিষেকের কটাক্ষ এই আবহে জল-বাতাস দেবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Tmc mp abhishek banerjee hits out at mukul roy