scorecardresearch

বড় খবর

মা মাটি মানুষ এখন মানি-মানি-মানি, বললেন অর্জুন

উত্তরীয় পরিয়ে অর্জুনকে বিজেপিতে স্বাগত জানান কৈলাশ বিজয়বর্গীয়। এরপর তিনিই বলেন, অর্জুন সিং নিজমুখে তৃণমূল ত্যাগের কারণ জানাবেন। এ কথা বলার পরই মুখ খোলেন ব্যারাকপুর অঞ্চলের ডাকাবুকো নেতা।

মা মাটি মানুষ এখন মানি-মানি-মানি, বললেন অর্জুন
ভাটপাড়া-নৈহাটি সমবায় সমিতি থেকে সরানো হল অর্জুন সিংকে। এক্সপ্রেস ফটো: পার্থ পাল।

মুকুল রায়ের হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দিলেন তৃণমূল নেতা তথা চার বারের বিধায়ক অর্জুন সিং। যে মুকুল রায়ের সঙ্গে একদা নাকি আদায়-কাঁচকলায় সম্পর্ক ছিল তাঁর। বৃহস্পতিবার দিল্লিতে বিজেপির কেন্দ্রীয় দফতরে কৈলাশ বিজয়বর্গীয় এবং মুকুল রায়ের উপস্থিতিতে পদ্মশিবিরে যোগ দেন ভাটপাড়ার বিধায়ক তথা পুরপ্রধান অর্জুন সিং।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দীর্ঘকালের এই সঙ্গী কেন বিজেপি-তে যোগ দিলেন?

উত্তরীয় পরিয়ে অর্জুনকে এদিন বিজেপিতে স্বাগত জানান কৈলাশ বিজয়বর্গীয়। এরপর তিনিই বলেন, অর্জুন সিং নিজমুখে তৃণমূল ত্যাগের কারণ জানাবেন। কৈলাশ এ কথা বলার পরই মুখ খোলেন ব্যারাকপুর অঞ্চলের ডাকাবুকো নেতা। তিনি বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ৩০ বছর থেকেছি। বামপন্থীদের সঙ্গে লড়াই করে রাজ্যে পরিবর্তন এনেছি। কিন্তু, যখন ‘দেশহিতের’ প্রশ্ন উঠল, তখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অবস্থান মেনে নিতে পারি নি।”

আরও পড়ুন: আজ বামেদের প্রার্থীতালিকা প্রকাশের সম্ভাবনা

পুলওয়ামা হামলার কথা উল্লেখ করে এদিন অর্জুন বলেন, “দেশের এত জন জওয়ান মারা যাওয়ার পরও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর পিছনে রাজনীতির গন্ধ খুঁজতে চেয়েছেন।” এ বিষয়টি তাঁর একেবারেই সমর্থনযোগ্য মনে হয়নি বলে জানান তিনি। আর সেজন্যই দেশের নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্ব সুনিশ্চিত করতে “নরেন্দ্র মোদীর হাত শক্ত করবেন বলে” বিজেপিতে যোগ দান। অর্জুন সিং-এর আরও দাবি, অতীতে তৃণমূলের স্লোগান ছিল, “মা-মাটি-মানুষ”। আর এখন, তা হয়ে দাঁড়িয়েছে “মানি-মানি-মানি”।

তবে তৃণমূল সূত্রের দাবি, ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে জোড়াফুল প্রতীকে দাঁড়াতে না পেরেই পদ্ম শিবিরের দিকে ঝুঁকলেন অর্জুন সিং। শোনা যায়, এর আগে তাঁকে দলের তরফে রাজ্যসভায় মনোনয়ন করার কথা উঠেছিল, কিন্তু তাতে সন্তুষ্ট ছিলেন না অর্জুন।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Why arjun singh joins bjp